This Article is From Apr 25, 2020

তামিলনাড়ুর ৫ শহরে ৩ দিনের তীব্র লকডাউন! সামগ্রি মজুতে দোকান-বাজারে হুড়োহুড়ি

এদিকে, সংক্রমণের তালিকায় প্রথম তিনে আছে তামিলনাড়ু। রাজ্যে মোট সংক্রমিত ১৭৫৫ জন আর মৃত ২২। অপরদিকে, দেশে মোট সংক্রমিত ২৪ হাজার ছাড়িয়েছে। মৃতও ৭৭৫ জন

এরম দৃশ্য গত ২৪ ঘণ্টায় দেখা গিয়েছে তামিলনাড়ুর সেই ৫ শহরে।

হাইলাইটস

  • দলে দলে মানুষ সব্জি আর মুদির দোকানের সামনে ভিড় করেছিলেন
  • পাঁচটি শহরে রবিবার-মঙ্গলবার চলবে তীব্র লকডাউন
  • সংক্রমণের বিচারে দেশে প্রথম তিনে আছে তামিলনাড়ু
চেন্নাই:

রবিবার থেকে মঙ্গলবার, টানা ৩ দিন সম্পূর্ণ স্তব্ধ (Intense Lockdown in 5 Cities) থাকবে তামিলনাড়ুর পাঁচটি শহর। মুখ্যমন্ত্রী কে পালনিস্বামীর (Tamilnadu CM) এই ঘোষণার পর থেকে নাগরিকদের মনে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। জানা গিয়েছে, রাজ্যের চেন্নাই, মাদুরাই, কোয়েম্বাটর-সহ সালেম ও তিরুপুরে চলবে এই তীব্র লকডাউন। ফল, শুক্রবার ও শনিবার মিলিয়ে এই পাঁচটি শহরের মানুষ রাস্তায় নেমেছিল শুধু অত্যাবশকীয় পণ্য মজুতের তাগিদে। বিশেষজ্ঞদের দাবি, 'এই হুড়োহুড়িতে লঙ্ঘিত হয়েছে লকডাউন বিধি। মানা হয়নি সামাজিক দূরত্ব।" সূত্রের খবর, শনিবার বিকেল ৩টে পর্যন্ত খোলা ছিল রাজ্যের সব বাজার -দোকান। এই ঘোষণার জেরে আরও বেড়েছিল বিপত্তি। রবিবার সকাল ৬টা থেকে লাগু হবে রাজ্যের এই তীব্র লকডাউন বিধি। 

করোনাকে জয় না করা পর্যন্ত আমাদের ঘরই হোক মন্দির-মসজিদ: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

জানা গিয়েছে, এই তীব্র লকডাউন চলাকালীন ঠেলাগাড়ির সব্জি বাজার, হোম ডেলিভারি আর রেস্তোরাঁ থেকে খাবার আনানোয় অনুমতি দিয়েছে রাজ্য। এর বাইরে সব স্থানীয় এবং পাইকারি বাজার, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সম্পূর্ণ বন্ধ থাকবে। যদিও এতদিন সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এই বাজার ও প্রতিষ্ঠান খুলতে অনুমতি দিয়েছিল রাজ্য সরকার। জানা গিয়েছে, এটিএম আর রাজ্য পরিচালিত আম্মা-ক্যান্টিন খোলা থাকবে। পাশাপাশি খোলা থাকবে ওষুধের দোকান। 

h659c7f8

করোনা সংক্রমণের মধ্যেই নিজের অটোকে ভাইরাসের আদলে সাজিয়ে রাজপথে নেমেছেন এক শ্রমিক।  

আরও ২০ দিন লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্তরে ৩ মে পর্যন্ত চলবে লকডাউন। পাশাপাশি ২০ এপ্রিল থেকে কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া শুরু করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। শুক্রবার রাতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সূত্রে ঘোষণা করা হয়েছে, রেড জোন বা হটস্পট নয়, এমন এলাকার বাইরে খোলা যাবে দোকান-বাজার। শুধু বন্ধ থাকবে মাল্টিপ্লেক্স, সুপার মার্কেট আর শপিং মল। তবে কোনও রাজ্যে চাইলে এই ছাড় নাও মানতে পারে। যদি তারা মনে করে, এখন দোকান-বাজার খুললে বাড়তে পারে সংক্রমণ, তাহলে রাজ্যের আওতায় নিতে পারে ব্যবস্থা। শুক্রবার উল্লেখ করা হয়েছিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের টুইটে। 

‘মসজিদে নয়, বাড়িতে নমাজ পড়ুন', রমজানে অনুরোধ নুসরতের

দেখে নেওয়া যাক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সেই টুইট: 

এদিকে, সংক্রমণের তালিকায় প্রথম তিনে আছে তামিলনাড়ু। রাজ্যে মোট সংক্রমিত ১৭৫৫ জন আর মৃত ২২। অপরদিকে, দেশে মোট সংক্রমিত ২৪ হাজার ছাড়িয়েছে। মৃতও ৭৭৫ জন।