সর্ষের মধ্যেই ভূত? Parliament Attack-র নেপথ্যেও গ্রেফতার জম্মু-কাশ্মীরের পুলিশ কর্মী?

Parliament Attack 2001: গ্রেফতার দাবিন্দর সিং-এর বিরুদ্ধে ২০০১ সালের ১৩ ডিসেম্বর সংসদ হামলায় সাজাপ্রাপ্ত আফজল গুরুকে মদত দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে

সর্ষের মধ্যেই ভূত? Parliament Attack-র নেপথ্যেও গ্রেফতার জম্মু-কাশ্মীরের পুলিশ কর্মী?

Jammu and Kashmir: শনিবার একদল জঙ্গির সঙ্গে গ্রেফতার করা হয় পুলিশ কর্মী দাবিন্দার সিংকে (ফাইল চিত্র)

হাইলাইটস

  • জঙ্গিদের সঙ্গে গ্রেফতার হওয়া পুলিশ কর্মীকে নিয়ে নয়া জল্পনা
  • ২০০১ সংসদ হামলার নেপথ্যে যোগসাজশ ছিল ওই পুলিশ কর্মীর
  • অভিযোগ পেয়ে দাবিন্দর সিংয়ের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করছে এনআইএ
নয়া দিল্লি:

২০০১ সালের সংসদ হামলার (Parliament Attack 2001) পিছনে হাত রয়েছে খোদ পুলিশ কর্মীর? জঙ্গিদের সঙ্গে গ্রেফতার হওয়া দাবিন্দর সিংকে নিয়ে এখন এই প্রশ্নই মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। অভিযোগ, জম্মু ও কাশ্মীরের (Jammu and Kashmir) পুলিশ কর্মী দাবিন্দরের (Davinder Singh) মদতেই নাকি ১৩ ডিসেম্বর সংসদে হামলা চালিয়েছিল আফজল গুরু। আর এই সন্দেহ দানা বাঁধতেই নড়েচড়ে বসেছে পুলিশ প্রশাসন। মামলাটির তদন্ত করতে চলেছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ। শনিবারই একদল জঙ্গির সঙ্গে গ্রেফতার করা হয় দাবিন্দর সিংকে। অভিযোগ,  জম্মু ও কাশ্মীরের জাতীয় সড়কে একটি গাড়ির মধ্যে ৩ হিজবুল মুজাহিদ্দিন জঙ্গির সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি সুপারিন্টেন্ডেন্ট অফ পুলিশ দাবিন্দর সিং। 

সংসদ হামলার নেপথ্যে যোগসাজশ রয়েছে গ্রেফতার হওয়া পুলিশ কর্মী দাবিন্দর সিংয়ের, এই প্রশ্ন উঠলে জম্মু ও কাশ্মীরের পুলিশ প্রধান দিলবাগ সিং বলেন: "এরকম ধরণের কিছু অভিযোগ উঠলে সেই বিষয়গুলির তদন্ত করা যেতে পারে। কোনও সম্ভাবনাই খতিয়ে দেখার ক্ষেত্রে কোনও বাধা নেই। যার বিরুদ্ধেই অভিযোগ উঠুক না কেন, বেআইনি কার্যকলাপে জড়িত কাউকেই আমরা ছেড়ে কথা বলবো না"।

হিজবুল জঙ্গিদের সঙ্গে গ্রেফতার হওয়া পুলিশ আধিকারিককে জঙ্গিই ধরা হবে: পুলিশ

এর আগেও দাবিন্দর সিংয়ের বিরুদ্ধে সংসদ হামলায় জড়িত থাকার বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ উঠেছিল। তিনিই নাকি সংসদ হামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত আফজল গুরুকে মদত দিয়েছিলেন এবং ২০০১ সালের ১৩ ডিসেম্বর হওয়া সংসদের জঙ্গি হামলার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় রসদ সরবরাহ করেছিলেন।

২০১৩ সালে ফাঁসির সাজা হওয়ার আগে আফজল গুরু একটি চিঠিতে দাবি করেছিলেন যে কোনও এক পুলিশ আধিকারিক নাকি তাকে সংসদ হামলার জন্যে দিল্লিতে যেতে বলেছিলেন এবং তিনিই সেখানে তার থাকা সহ যাবতীয় ব্যবস্থা করে দেন।

Newsbeep

জম্মু ও কাশ্মীরে ধৃত পুলিশ আধিকারিকের বাড়িতে ছিল জঙ্গিরা: সূত্র

শনিবার দাবিন্দর সিংয়ের গ্রেফতারির পরেই তাঁর বাড়িতে অভিযান চালানো হয় এবং সেখান থেকে একটি একে ৪৭ রাইফেল এবং দুটি পিস্তল বাজেয়াপ্ত করা হয়। গত সপ্তাহে মার্কিন রাষ্ট্রদূত সহ ১৫ জন বিদেশি কূটনীতিক যখন জম্মু ও কাশ্মীরে দু'দিনের সফরে এসেছিলেন, তখন এই দাবিন্দর সিং-ই  শ্রীনগর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন।

শুক্রবার জঙ্গিদের দক্ষিণ কাশ্মীরের সোফিয়ান থেকে নিজের বাড়িতে নিয়ে যান ওই পুলিশ আধিকারিক, এবং সেখানে রাতে থাকে জঙ্গিরা। সেনাবাহিনীর ১৫ নম্বর হেডকোর্য়াটারের ঠিক পাশেই ওই পুলিশ আধিকারিকের বাড়িতে রাত্রিবাস করে হিজবুল মুজাহিদিনের অন্যতম শীর্ষ নেতা নভেদ বাবু, ও তার দুই সঙ্গী ইরফান এবং রফি।

শনিবার সকালে তারা জম্মু রওনা হয়, সেখান থেকে তারা দিল্লি যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিল। তখনই তাঁদের ধরে ফেলে পুলিশ।