Watch video: স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার সময় বাঁশের ভাড়াতেই প্রসব অন্ধ্রের আদিবাসী মহিলার

Andhra woman delivered in open...অন্ধ্রপ্রদেশের ভিজিয়ানাগরম জেলার একটি গ্রামের এক আদিবাসী মহিলা, মুথাম্মা। জঙ্গলের কাদা ঢাকা প্রবল নুড়ি-পাথরে ভরা পথের একপাশেই ‘মা’ হলেন। দেখুন দুর্দশার চিত্র।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

Andhra woman delivered in open...বাঁর, ত্রিপল, দড়ি দিয়ে একটা পালকি মতো বানানো হয়েছে।


হায়দরাবাদ: 

খোলা জায়গাতেই প্রসব করতে বাধ্য হল অন্ধ্রপ্রদেদেশের এক মহিলা ( Andhra woman delivered in open...)।প্রবল প্রসবযন্ত্রণা উঠেছে। কিন্তু সামনে কোনও হাসপাতাল নেই। নেই কোনও স্বাস্থ্যকেন্দ্রও। এমনকি, রাস্তা বলতেও সেরকম কিছু নেই সেখানে।

কিন্তু কী করা যাবে! বাঁশ, দড়ি এবং খানিকটা কাপড় দিয়ে একটা পালকি মতো বাঁধা হল। তাতেই ওই মহিলাকে বসিয়ে জঙ্গলের কাদা ও পাথুরে পথ পেরিয়ে বহু কিলোমিটার দূরের স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার জন্য পা বাড়ালেন গ্রামবাসীরা।

যে পালকি মতো জিনিসটা বানানো হয়েছিল, সেখানে বসেই প্রসব বেদনা এক সময় উঠে গেল ধরা ছোঁয়ার বাইরে। তাই মাঝপথেই যাত্রা থামিয়ে দিতে বাধ্য হল গ্রামবাসীরা। জঙ্গলের কাদা ঢাকা প্রবল নুড়ি-পাথরে ভরা পথের একপাশেই তারপর ‘মা’ হলেন অন্ধ্রপ্রদেশের ভিজিয়ানাগরম জেলার একটি গ্রামের এক আদিবাসী মহিলা, মুথাম্মা।

এই যাত্রাপথের গোটা পর্বটাই ভিডিও করে তুলে রাখল ওই গ্রামেরই এক যুবক। তার কথায়, তাদের গ্রামের এই ভয়ঙ্কর খারাপ যোগাযোগ ব্যবস্থা সম্বন্ধে বহু বলে বহু চিঠি লিখে কর্তৃপক্ষকে জানানো হলেও তারা কোনও রকমভাবে সহায়তা করেনি। তাই এই ভিডিও করার সিদ্ধান্ত।

“ঠিক এইভাবেই প্রবল অসুস্থ এবং গর্ভবতী মহিলাদের আমাদের এই গ্রাম থেকে নিয়ে যেতে হয়।বহু অনুরোধ আবেদন সত্ত্বেও কোনও রাজনৈতিক নেতা বা সরকারি কর্তা আমাদের কথায় কান দেওয়ার প্রয়োজন মনে করেননি”। ভিজিয়ানাগরম জেলার মাসিকা ভালাসা চিন্তালা সালুরের ওই আদিবাসী যুবক ভিডিওটিতে এই কথাগুলি বলে। দেখে নিন ভিডিওটি (watch video)

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................