প্রায় ১২ হাজার কিমি দূরত্ব! অ্যান্টার্টিকার সিগনাল ধরল বকখালির হাম রেডিও

অ্যান্টার্টিকায় শিবির খাটানো আর্জেন্টাইন একটা গবেষক দলের রেডিও সিগনাল ধরা পড়েছে বকখালির রেডিও অপারেটর বাবুল গুপ্তর হাম তরঙ্গে

প্রায় ১২ হাজার কিমি দূরত্ব! অ্যান্টার্টিকার সিগনাল ধরল বকখালির হাম রেডিও

অ্যান্টার্টিকায় আর্জেন্টিনার গবেষকের তরঙ্গ ধরেছেন বাংলার হাম রেডিও অপারেটর। (ফাইল ছবি)

কলকাতা:

ভৌগলিক দূরত্ব প্রায় ১২ হাজার কিমি। কিন্তু সেই দূরত্ব মিলিয়ে দিল রেডিও তরঙ্গ। কলকাতা আর অ্যান্টার্টিকাকে জুড়লো হাম রেডিওর সিগনাল। এই রেডিও অপারেটর বাবুল গুপ্ত সম্প্রতি ডিজিং তরঙ্গ ধরতে পেরেছেন। এতদূর থেকে এই সিগনাল ধরতে পারা, হাম রেডিও ইতিহাসে খুবই দুর্লভ। পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পশ্চিমবঙ্গ রেডিও ক্লাবের সচিব অম্বরীশ নাগ একথা বলেছেন। জানা গিয়েছে, অ্যান্টার্টিকায় শিবির খাটানো আর্জেন্টাইন একটা গবেষক দলের রেডিও সিগনাল ধরা পড়েছে বকখালির রেডিও অপারেটর বাবুল গুপ্তর হাম তরঙ্গে। সেই রেডিও অপারেটর বাবুল গুপ্ত বলেছেন, "যে সিগনাল আমি ধরেছি, সেটা মেল করে দক্ষিণ গোলার্ধে এলআরএ ৩৬ ক্যাম্পকে পাঠিয়ে দিয়েছি। আমরা তরঙ্গ খতিয়ে দেখেছি ১৫.৪৭৬ কিলোহার্জ মাত্রা।"

তবে এই সাফল্যের জন্য কোনও পুরস্কার নেই। এমনটা জানিয়ে ওই রেডিও অপারেটর বলেছেন, "রেডিও অপারেটর হিসেবে এটা আমার কাছে বড় সাফল্য। অনেকদূর থেকে সিগনাল আমার তরঙ্গে এসেছে। কিন্তু দক্ষিণ গোলার্ধ থেকে এই প্রথম।"

হাম রেডিও পরিচালনা প্রসঙ্গে অম্বরেশ নাগ বিশ্বাস বলেছেন, "ডি-জিং তরঙ্গ ধরার সবচেয়ে অনুকূল পরিবেশ জঙ্গল, ওয়াচ টাওয়ার, উঁচু পর্বতশৃঙ্গ আর মরুভূমি। আমরা যাঁরা রেডিও অপারেটর, সেভাবেই তাঁবু খাটাই।"

Newsbeep