রাজ্যে করোনায় মৃত আরও ৩, মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১০

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে বলে রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে। রাজ্যে এই মুহূর্তে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৪৪।

রাজ্যে করোনায় মৃত আরও ৩, মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১০

রাজ্যে করোনার বলি এখনও পর্যন্ত দশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে বলে রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে। এর ফলে রাজ্যে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১০। রাজ্যে এই মুহূর্তে করোনা (Coronavirus) আক্রান্তের সংখ্যা ১৪৪ বলে জানানো হয়েছে। সেই সঙ্গে আরও জানানো হয়েছে এখনও পর্যন্ত ৩,৮১১ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণের পরীক্ষা হয়েছে। এদিকে বুধবারই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ সংক্রান্ত এক সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়ে দেন, রাজ্যে মাত্র দু'টি ল্যাবরেটরি রয়েছে। টেকনিশিয়ানের সংখ্যাও সীমিত। তাই করোনা পরীক্ষা কম করা হচ্ছে। ওই দিনের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের পরিস্থিতি সম্পর্কে আরও অনেক কথা বলেন।

ভারতে করোনার বলি ২৮, ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত ৮২৬

শনিবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের কাছে রাজ্য বিজেপি অভিযোগ জানায় যে, রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সংক্রান্ত তথ্য চাপছে রাজ্য সরকার। রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধি দল রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে জানায়, ‘‘রাজ্য সরকার যে তথ্য দিচ্ছে তার উপরে রাজ্যের মানুষের ভরসা নেই।'' ওই প্রতিনিধি দলের দাবি ছিল, কেন্দ্রীয় সরকার ও রাজ্য সরকারের দেওয়া তথ্যের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে।

‘‘লকডাউন করোনা ভাইরাসকে হারাতে পারে না,'': কেন্দ্রকে বার্তা রাহুল গান্ধির

এদিকে গত রবিবার রাজ্যের সিপিআই(এম) নেতা সূর্যকান্ত মিশ্রও অভিযোগ করেন, রাজ্যের করোনা আক্রান্ত বা করোনায় মৃতের সংখ্যার হিসেবে স্বচ্ছতা রাখছে না রাজ্য সরকার। পাশাপাশি তিনি দাবি করেন, রাজ্যে কোভিড-১৯-এর পরীক্ষা আরও বেশি করে করা হোক।

তিনি আরও বলেন, ‘‘কতজন আক্রান্ত হচ্ছেন এই অসুখে এবং কোথায় ও কোন জেলায় কতজন আক্রান্ত হচ্ছেন সে সম্পর্কে স্বচ্ছতা থাকা উচিত। যাতে সাধারণ মানুষ ওই সব অঞ্চল সম্পর্কে সচেতন হতে পারেন।''তিনি আরও বলেন, যে সংখ্যা রাজ্য সরকার বলছে সেই সংখ্যা অন্যান্য সূত্র থেকে প্রাপ্ত সংখ্যার থেকে আলাদা।