রাত পেরলেই ফাঁসি! আত্মহত্যার হুমকি দিলেন নির্ভয়া আসামি অক্ষয়ের স্ত্রী

জানা গিয়েছে, এই মহিলাই এদিন এজলাসে স্বামীর শেষ পরিণতি শুনে মূর্ছা গিয়েছিলেন

রাত পেরলেই ফাঁসি! আত্মহত্যার হুমকি দিলেন নির্ভয়া আসামি অক্ষয়ের স্ত্রী

পুনিতা দেবী, নির্ভয়ার আসামি অক্ষয় সিংয়ের স্ত্রী, পাতিয়ালা হাউজ কোর্টের বাইরে।

নয়াদিল্লি:

রাত পেরলেই নির্ভয়া-কাণ্ডের চার অপরাধীর ফাঁসি। ইতিমধ্যে আদালত বলে দিয়েছে, ফাঁসি ঠেকাতে ওই চার অপরাধী নিজেদের সব আইনি পরিসর ব্যবহার করে ফেলেছে। আর কোনও বিকল্প খোলা নেই। ফলে ফাঁসি কার্যকর এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। চূড়ান্ত নির্ঘণ্টের আগে প্রহর গুনছে তিহার জেলও। প্রস্তুতি সেরে ফেলেছেন মেরঠের পবন জহ্লাদ। এই পরিস্থিতিতে আত্মহত্যার হুমকি দিলেন সেই মামলার অন্যতম আসামি অক্ষয় সিংয়ের স্ত্রী পুনিতা দেবী। এদিন সেই মহিলাকে দিল্লির পাতিয়ালা হাউজ কোর্টের বাইরে কপালে চটির বাড়ি মারতে মারতে কাঁদতে দেখা গিয়েছে। বলতে শোনা গিয়েছে, আমি বাঁচতে চাই না। নিজেকে শেষ করে দেবো। জানা গিয়েছে, এই মহিলাই এদিন এজলাসে স্বামীর শেষ পরিণতি শুনে মূর্ছা গিয়েছিলেন। 

আগামিকাল নির্ভয়ার চার আসামির ফাঁসি, আর্জি খারিজ করল আদালতে

এদিকে পুনিতা দেবী বিহারের এক আদালতে বিবাহ-বিচ্ছেদ চেয়ে মামলা করেছিলেন। আবেদনে তিনি বলেছিলেন, ফাঁসির আসামির বিধবা বউয়ের তকমা মেনে নিতে পারবো না। তাই ফাঁসির আগেই আমার বিবাহ-বিচ্ছেদে সিলমোহর বসাক আদালত। সেই আবেদনে ওই মহিলার দাবি ছিল, তাঁর স্বামী নির্দোষ। 

স্বাস্থ্যবিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে করোনা সন্দেহভাজনরা দিব্যি ঘুরছেন প্রকাশ্যে

Newsbeep

এই মামলায় ইতিমধ্যে ৩ বার ফাঁসির সাজা পিছিয়েছে। অপরাধীদের শেষ মুহূর্তের কৌশলের কাছে মাথা নত করতে হয়েছে ভারতীয় বিচার ব্যবস্থাকে। এমনটাই বলছেন আইনজ্ঞরা। তবে, ফাঁসি রুখতে আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন ওই তিন অপরাধী। যদিও সেই মামলার শুনানি এখনও ঝুলে। এই মামলার ৬ অপরাধীর মধ্যে একজন ঘটনার দিন নাবালক ছিল। ফলে ৩ বছর কিশোর সংশোধনাগারে কাটিয়ে ২০১৬ সালে মুক্তি পায় সে/ মূল অপরাধী রাম সিং। বিচারাধীন অবস্থায় তিহার জেলে তার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়।