This Article is From Mar 05, 2019

জলপথে ঢুকে ভারতে হামলা চালাতে জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছেঃ নৌসেনা প্রধান

সমুদ্র-পথ দিয়ে ঢুকে  ভারতে  নাশকতা করার জন্য  জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে  দাবি করলেন নৌ বাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল সুনীল  লানবা।

জলপথে ঢুকে ভারতে হামলা চালাতে জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছেঃ নৌসেনা প্রধান

হাইলাইটস

  • জল পথে ঢুকে ভারতে হামলা চালাতে জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছেঃ সুনীল
  • ২০০৮ সালে মুম্বই হামলার সময় এভাবেই সমুদ্র-পথে দেশে ঢুলেছিল জঙ্গিরা
  • সন্ত্রাস রুখতে সমগ্র বিশ্বকে এক হয়ে কাজ করার পরামর্শ দিলেন তিনি
নিউ দিল্লি:

সমুদ্র-পথ দিয়ে ঢুকে  ভারতে  নাশকতা করার জন্য  জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে  দাবি করলেন নৌ বাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল সুনীল  লানবা। পুলওয়ামার জঙ্গি হামলার কয়েক সপ্তাহ বাদেই এমন  আশঙ্কার কথা  জানালেন নৌ সেনা  প্রধান। নিউ দিল্লির একটি অনুষ্ঠানে তিনি জানান পুলওয়ামার হানার নেপথ্যে এমন দেশ আছে  যাদের লক্ষ্য ভারতের ক্ষতি করা। আমাদের কাছে খবর আছে  আরও নানা ভাবে ভারতের জঙ্গি হানার  পরিকল্পনা  করা  হয়েছে। তার মধ্যে একটি হল সমুদ্র পথ।

 ২০০৮ সালে মুম্বই হামলার সময়ও এই  একই কায়দায় লস্কর-ই- তইবা দশ জঙ্গিকে সমুদ্রের রাস্তা দিয়ে দেশের বাণিজ্যিক রাজধানী ভেতরে প্রবেশ করিয়ে দিয়েছিল। অন্য একটি প্রসঙ্গে তিনি জানান ভারত এবং আশপাশের দেশ গুলিতে  গত কয়েক  বছরে একাধিক বার হামলা হয়েছে।

ভারতকে দেওয়া বাণিজ্যিক সুবিধা প্রত্যাহার করে নিচ্ছে আমেরিকা

তাঁর মতে  গোটা  বিশ্বেই সন্ত্রাস কায়েম করার কায়দা  বদলেছে। হামলার ধরনেও এসেছে  পরিবর্তন। কিন্ত ভারতের  ক্ষেত্রে সন্ত্রাসবাদ আরও বড়  বিষয়। কারণ  ভারতে  যে সন্ত্রাস হয়  তাতে  রাষ্ট্রের মদত থাকে।  আমরা মাত্র  তিন সপ্তাহ আগে  পুলওয়ামায়  ভয়াবহ সন্ত্রাস  দেখেছি। সেখানে এমন রাষ্ট্রের মদত ছিল যারা ভারতকে বিনাশের পথে ঠেলে দিতে চায়।  কয়েক সপ্তাহ আগে পুলওয়ামায় জঙ্গি হানা হয়। সিআরপিএফ জওয়ানদের কনভয়ে হামলা  চালায়  জইশ-ই-মহম্মদ। তারপর থেকেই ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে  উত্তেজনা নতুন মাত্রা নিয়েছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবাইকে সতর্ক করে  দিয়ে  তিনি বলেন, আমরা দেখেছি  সন্ত্রাসবাদ কত তাড়াতাড়ি বড়  সমস্যায় পরিণত হতে পারে। যে কোনও একটি নির্দিষ্ট জঙ্গি সংগঠন আগামী দিনে সন্ত্রাসের চেহারা হয়ে উঠতেই পারে। ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী  সন্ত্রাস দমনের কাজ করছে একথা  উল্লেখ করে তিনি বলেন বিশ্বের অন্য দেশ গুলিরই এই উদ্যোগে সামিল হওয়া উচিত।  

এদিনের আলোচনা ছিল  ইন্দো প্যাসিফিক এলাকা  নিয়ে। এ ব্যাপারে  নৌ সেনা  প্রধান বলেন, সমুদ্র নিয়ে মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি বললেছে। আর্থিক এবং রাজনৈতিক দিক থেকে সমুদ্রের ভূমিকা আগের থেকে অনেক বেশি  তাৎপর্যপূর্ণ।