অমেঠীতে কংগ্রেস নেতার ছেলে প্রার্থী হচ্ছেন রাহুলের বিরুদ্ধে

Election 2019: অমেঠীর সঙ্গে  গান্ধী  পরিবারের যোগ খুবই গভীর। ১৯৮০ সালে সঞ্জয় গান্ধী এখান থেকে ভোটে লড়েন। তাঁর মৃত্যুর পর উপ নির্বাচনে জিতে আসেন রাজীব

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
অমেঠীতে কংগ্রেস নেতার ছেলে প্রার্থী হচ্ছেন রাহুলের বিরুদ্ধে

রাহুলকে, রশিদের পাশাপাশি  চ্যালেঞ্জ জানাবেন স্মৃতি ইরানিও


অমেঠী: 

হাইলাইটস

  1. অমেঠীতে কংগ্রেস নেতার ছেলে প্রার্থী হচ্ছেন রাহুলের বিরুদ্ধে
  2. গান্ধী পরিবারের দখলে থাকা অমেঠী কেন্দ্র থেকে লড়বেন রাহুল
  3. এই আসনের সঙ্গে গান্ধী পরিবারের যোগাযোগ খুবই নিবিড়

তাঁর বাবা হাজি সুলতান খান কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর (Congress President) বাবা প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর  প্রস্তাবক হিসেবে নির্বাচনী মনোনয়ন পত্রে স্বাক্ষর করেছিলেন। ইউপিএ চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধীর প্রস্তাবকও ছিলেন তিনি। এবার কংগ্রেসের সেই   নেতার ছেলেই লড়বেন (Lok Sabha Election 2019)  রাহুলের বিরুদ্ধে। দীর্ঘদিন গান্ধী পরিবারের দখলে  থাকা  অমেঠী কেন্দ্র থেকে লোকসভা নির্বাচনে লড়বেন কংগ্রেস সভাপতি। দেশের একাধিক রাজ্য থেকে ভোটে লড়ার প্রস্তাব এলেও অমেঠীকেই  নিজের ‘কর্মভূমি' মনে করেন রাহুল।  ২০০৪ সাল থেকে এই কেন্দ্রের প্রতিনিধিত্ব করে আসছেন তিনি। এবারও প্রার্থী হিসেবে  তাঁর নাম ঘোষণা হয়েছে। আর তাঁর বিরুদ্ধেই নির্দল প্রার্থী হচ্ছেন হাজি হারুণ রশিদ।

কলকাতায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন কমল হাসান

তিনি জানান কংগ্রেসে একা হয়ে পড়েছিলেন বলে দলত্যাগ করেছেন। ভোটে লড়ার জন্য অমেঠীকেই কেন বেছে  নিলেন তাও  ব্যাখ্যা  করেছেন রশিদ। তাঁর কথায় এখানে  সাড়ে ছয় লক্ষ সংখ্যালঘু ভোট আছে। এই ভোট কংগ্রেস পাবে না । পাশাপাশি এলাকায় উন্নয়ন হয়নি বলেও  অভিযোগ করেন রশিদ।       

 ১৯৯১ সালে কংগ্রেসের হয়ে এই কেন্দ্র থেকে  মনোনয়ন দাখিল করেন রাজীব গান্ধী। তাতে স্বাক্ষর করেন হাজি সুলতান। আট বছর বাদে  সোনিয়া গান্ধীর মনোনয়ন পত্রেও প্রার্থীর নাম প্রস্তাব  করেছিলেন তিনি।

রাজীব, সোনিয়া এবং  প্রিয়াঙ্কা রশিদদের বাড়িও  গিয়েছিলেন। সেই সময় তোলা ছবি এখনও নিজের কাছে রেখেছেন তিনি।

অমেঠী থেকে ভোটে দাঁড়ানো রাহুলকে, রশিদের পাশাপাশি  চ্যালেঞ্জ জানাবেন স্মৃতি ইরানিও। কেন্দ্রীয় সরকারের এই মন্ত্রী ২০১৪ সালে রাহুলকে কড়া চ্যালেঞ্জের মুখে  ফেলেছিলেন। চার লাখের চেয়ে বেশি ভোট পেয়েছিলেন তিনি। গত পাঁচ  বছরে বার বার অমেঠী গিয়েছেন স্মৃতি। এবার তিনি কী করেন সেটাই দেখার।     

অমেঠীর সঙ্গে  গান্ধী  পরিবারের যোগ খুবই গভীর। ১৯৮০ সালে সঞ্জয় গান্ধী এখান থেকে ভোটে লড়েন। তাঁর মৃত্যুর পর উপ নির্বাচনে জিতে আসেন রাজীব। সেটা  ১৯৮১ সালের ঘটনা। এরপর ৮৪, ৮৯ এবং ৯১ সালেও এই কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন  রাজীব। ১৯৯৯ সালে লড়েন সোনিয়া। আর  ২০০৪ সাল থেকে লড়ছেন রাহুল।    



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................