This Article is From Apr 03, 2019

প্রকাশের আগে রাফাল নিয়ে বই বাজেয়াপ্ত, পরে ফেরানো হল

Rafale: 15 টাকা মূল্যের পুস্তিকাটিতে রাফাল যুদ্ধবিমান চুক্তি নিয়ে লেখা হয়েছে এবং দুর্নীতি ও পুঁজিবাদের অভিযোগ তোলা হয়েছে।

চেন্নাইয়ের বইয়ের দোকান থেকে 150 টি বই উদ্ধার করে নির্বাচন কমিশন

হাইলাইটস

  • প্রকাশের আগে বাজেয়াপ্ত রাফাল সংক্রান্ত বই
  • বইয়ের দোকান থেকে মেলে প্রায় 150 টি বই
  • রাফাল যুদ্ধবিমান চুক্তি নিয়ে লেখা হয়েছে বইটি
চেন্নাই:

প্রকাশের আগে চেন্নাইয়ের একটি বইয়ের দোকানে হানা দিয়ে রাফাল(Rafale) সংক্রান্ত বিষয়ে লেখা বই বাজেয়াপ্ত করলেন নির্বাচন কমিশনের (Election Commission)প্রতিনিধিরা।১১ এপ্রিল শুরু লোকসভা নির্বাচনের(Loksabha Elections 2019) ভোটগ্রহণ পর্ব, তার আগে রাফাল(Rafale) সংক্রান্ত এই বইটির প্রকাশকে আদর্শ আচরণবিধি লঙ্ঘন বলে ব্যাখা করেছেন আধিকারিকরা। জানা গেছে, এস বিজয়নের (S Vijayan)লেখা বইয়ের প্রায় ১৫০ টি কপি উদ্ধার করেন নির্বাচন কমিশনের প্রতিনিধি দলের সদস্যরা।ভারতী পাঠকালয়ম (Bharathi Puthakalayam) নামে ওই বইয়ের দোকান এবং প্রকাশনা সংস্থাটি সিপিএমের (CPM)সঙ্গে যুক্ত বলে জানা গেছে। প্রতিনিধি দলের এক আধিকারিক কোনও সরকারি সিলমোহর ছাড়াই একটি সাদা কাগজে বইটির প্রকাশনা বাতিলের নির্দেশ দেন।

ইস্তেহারে কথা দিলে তা পালন করতেই হবে: মমতা

ছবি ভাইরাল হতেই তামিলনাড়ুর মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক বলেন, “বইটির বাজেয়াপ্ত নিয়ে ভারতীয় নির্বাচন কমিশন(ECI)বা সিইও (CEO)কোনও নির্দেশ দেন নি।আমি চেন্নাইয়ের জেলা আধিকারিককে (district electoral officer)বিষয়টি খতিয়ে দেখে রিপোর্ট দিতে বলেছি”।

প্রকাশের কিছুক্ষণ আগে বইটি ফিরিয়ে দেয় পুলিশ এবং সন্ধ্যায় বইটির প্রকাশ হয়।

2016 সালে রাফাল যুদ্ধবিমান যুক্তি নিয়ে দ্য হিন্দু পত্রিকায় লেখা প্রকাশ করা হয়।মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বইটি প্রকাশ করেন দ্য হিন্দুর ওই সাংবাদিক এন রাম।

১৯ দিন অতিক্রান্ত তবু কংগ্রেসের উপর রাগ কমল না সিধুর

সাংবাদিক এন রামকে উদ্ধৃত করে সাংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, “এটা ক্ষোভ। তারা ১৫০-এর মতো কপি বাজেয়াপ্ত করেছে বলে আমি জানতে পেরেছি।সোশ্যাল মিডিয়ায় এটা ভাইরাল হয়েছে”।

আমি জানি না কেন জমায়েত  নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন।কোন আইনে তারা বইটি বাজেয়াপ্ত করেছে ? আমার মনে হয়, প্রতিষ্ঠানগুলিকে ঝোঁকানো হয়েছে”।

সাংবাদিক এন রাম বলেন. মাজ্রাজ হাইকোর্টে যেতে পারেন প্রকাশক।