রাজীব কুমারের আগাম জামিনের রায় সম্ভবত মঙ্গলবার

আগামী ১ অক্টোবর প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের (Rajeev Kumar) আগাম জামিনের আবেদন বিষয়ে সম্ভবত রায় দেবে কলকাতা হাইকোর্ট।

রাজীব কুমারের আগাম জামিনের রায় সম্ভবত মঙ্গলবার

প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের (Rajeev Kumar) আগাম জামিনের রায় সম্ভবত মঙ্গলবার।

আগামী ১ অক্টোবর প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের (Rajeev Kumar) আগাম জামিনের আবেদন বিষয়ে সম্ভবত রায় দেবে কলকাতা হাইকোর্ট। সোমবার শেষ হল শুনানি। বিচারপতি এস মুন্সি ও এস দাশগুপ্তর বেঞ্চের সামনে সারদা কাণ্ডে (Saradha chit fund scam) অভিযুক্ত রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদনের বিরুদ্ধে তাঁর বক্তব্য পেশ করেন সিবিআই আইনজীবী ওয়াইজে দস্তুর। ক্যামেরার সামনে এই শুনানি হচ্ছিল। সিবিআই আধিকারিক তাঁর বক্তব্য পেশ করার পরই ডিভিশন বেঞ্চ আজকের মতো বিষয়টি মুলতুবি করে দেয়।

এর আগে বৃহস্পতিবার ডিভিশন বেঞ্চের সামনে রাজীব কুমারের আগাম জামিনের পক্ষে সওয়াল করেন তাঁর আইনজীবী। তাঁদের তরফে ক্যামেরারা সামনে বিচার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার আবেদন করা হয়। ২৫ সেপ্টেম্বর সেই আবেদন সাড়া দেয় আদালত। তবে শর্ত ছিল কেবলমাত্র এই বিচার প্রক্রিয়ার সঙ্গে যে আইনজীবীরা যুক্ত তাঁরাই শুনানির সময় উপস্থিত থাকতে পারবেন।

রাজীব কুমার কোথায় রয়েছেন তা জানার চেষ্টা করছেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা। কিন্তু সন্ধান মেলেনি।

গত ২১ সেপ্টেম্বর আলিপুর জেলা ও দায়রা আদালতে রাজীব কুমারের আগাম জামি‌নের আবেদন খারিজ হয়ে যায়।

কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার তরফে বারবার নোটিস দেওয়া হলেও বর্তমানে সিআইডির অতিরিক্ত ডিরেক্টর জেনারেল রাজীব কুমারকে হাজিরা দেননি।

সারদা মামলায় রাজ্য সরকার গঠিত সিটের সদস্য ছিলেন রাজীব। ২০১৪ সালে সুপ্রিম কোর্ট সিবিআইয়ের হাতে ওই তদন্তভার ন্যস্ত করে। তার আগে তদন্তের জন্য রাজ্য সরকার যে বিশেষ তদ‌ন্তকারী দল গঠন করেছিল তাতে ছিলেন রাজীব।

২৫০০ কোটি টাকার কেলেঙ্কারি সারদা কাণ্ড। বহু মানুষ সর্বস্বান্ত হন এই চিট ফান্ডের দ্বারা প্রতারিত হয়। রাজীবের বিরুদ্ধে অভিযোগ, সারদা কাণ্ডের ফাইনাল চার্জ শিট তৈরির আগে বহু প্রমাণ নষ্ট করেছেন তিনি।

কয়েক দিন আগে কলকাতা হাইকোর্ট রাজীব কুমারের গ্রেফতারির উপর থেকে রক্ষাকবচ তুলে নেয়।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)