কর্নাটক কংগ্রেসের ঘরেও করোনার হানা, আক্রান্ত সিদ্দারামাইয়া

এর আগে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পাও, তারপরেই মঙ্গলবার সকালে টুইট করে করোনা আক্রান্ত হওয়ার কথা জানালেন সিদ্দারামাইয়া

Coronavirus: চিকিৎসকের পরামর্শে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে, জানিয়েছেন সিদ্দারামাইয়া (ফাইল চিত্র)

হাইলাইটস

  • সোমবারই জ্বর জ্বর বোধ করেন কর্নাটক কংগ্রেসের প্রধান সিদ্দারামাইয়া
  • তারপরেই তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হয় এবং ফল পজিটিভ আসে
  • বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন কর্নাটকের প্রাক্তন এই মুখ্যমন্ত্রী
নয়া দিল্লি:

কর্নাটক বিজেপির ঘরে বাসা বাঁধার পর এবার করোনা (Coronavirus) হানা দিল কর্নাটক কংগ্রেসের অন্দরমহলে। কোভিড-১৯ (Covid-19) পজিটিভ হিসাবে ধরা পড়লেন কর্নাটক কংগ্রেসের প্রধান সিদ্দারামাইয়া। দক্ষিণের ওই রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী (Siddaramaiah) মঙ্গলবার নিজের টুইট করে তাঁর করোনায় আক্রান্ত হওয়ার দুঃসংবাদটি জানিয়েছেন। টুইটারে একটি সংক্ষিপ্ত পোস্টে সিদ্দারামাইয়া জানান যে, চিকিৎসকের পরামর্শে তিনি বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। পাশাপাশি গত কয়েকদিনে ওই কংগ্রেস নেতার সংস্পর্শে যাঁরা এসেছিলেন তাঁদের সকলকে করোনা সংক্রমণের বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে এবং শরীরে ওই রোগের লক্ষণ দেখলেই সেল্ফ কোয়ারান্টাইনে যাওয়ার জন্যে অনুরোধ করা হয়েছে। 

ভারতে ১৮.৫৫ লক্ষ মানুষ কোভিডের কবলে, মৃত ৩৮,৯৩৮; তবে সুস্থতার হার ৬৬%

মঙ্গলবার সকালে সিদ্দারামাইয়া টুইট করেন, "আমি কোভিড-১৯ এর পরীক্ষা করানোর পর পজিটিভ হিসাবে ধরা পড়েছি এবং সতর্কতা হিসাবে চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী হাসপাতালেও ভর্তি হয়েছি। গত কয়েকদিন যাঁরা আমার সংস্পর্শে এসেছিলেন তাঁদের সকলকেই অনুরোধ করছি যাতে তাঁরা শরীরে করোনার কোনও লক্ষণ দেখলেই পরীক্ষা করান এবং কিছুদিন সেল্ফ কোয়ারান্টাইনে থাকেন।" 

সিদ্দারামাইয়ার ছেলে জানিয়েছেন, সোমবার তাঁর বাবার জ্বর আসে। তখনই তাঁকে করোনার অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করা হয়, যে পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসে। এর আগে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পাও। করোনা পজিটিভ হিসাবে ধরা পড়েন ইয়েদুরাপ্পার মেয়ে এবং তাঁর দফতরের আরও ৬ কর্মী।

কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পা ও তাঁর মেয়ে দুজনেই করোনা পজিটিভ

ওদিকে রবিবারই জানা যায় যে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, তিনি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। গত মাসে মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানও করোনা পজিটিভ হিসাবে ধরা পড়েন। তখন থেকেই তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তামিলনাড়ুর রাজ্যপাল বানওয়ারিলাল পুরোহিতও করোনা পজেটিভ হিসাবে ধরা পড়ার পর তাঁকে চেন্নাইয়ের কাবেরী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি বর্তমানে চিকিৎসা সহায়তায় স্থিতিশীল রয়েছেন। যদিও এরই মধ্যে করোনা ভাইরাস প্রাণ কেড়েছে উত্তরপ্রদেশের এক মন্ত্রী কমল রানি বরুণের। লখনউয়ের সঞ্জয় গান্ধি পোস্ট গ্রাজুয়েট ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সে প্রয়াত হন তিনি।

দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। মঙ্গলবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক যে পরিসংখ্যান দিয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে যে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে আরও ৫২,০৫০ জন করোনা পজিটিভ হিসাবে ধরা পড়েছেন। ফলে ভারতে এখনও পর্যন্ত মোট কোভিড -১৯ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮,৫৫,৭৪৫ এ। পাল্লা দিয়ে বেড়েছে মৃত্যুও। গত একদিনে দেশে আরও ৮০৩ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা ভাইরাস। দেশে এপর্যন্ত মোট ৩৮,৯৮৩ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে।