This Article is From Mar 02, 2020

প্রধানমন্ত্রী মোদির সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়ার ট্যুইট, ট্যুইটারে উঠল ঝড়

আধঘন্টার মধ্যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পোস্টটি ৯,৩০০ বার রিট্যুইট করা হয় এবং ২৭,৫০০ এর বেশি “লাইক” পড়ে

প্রধানমন্ত্রী মোদির সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়ার ট্যুইট, ট্যুইটারে উঠল ঝড়

রবিবার সোশ্যাল মিডিয়া (Social Media) থেকে নিজেকে সরিয়ে নেবেন বলে ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি

নয়াদিল্লি:

রবিবার সোশ্যাল মিডিয়া (Social Media) থেকে নিজেকে সরিয়ে নেবেন বলে ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি, (Narendra Modi) তার কয়েক মিনিটের মধ্যেই, হাজারখানেক কমেন্ট এবং রিট্যুইট শুরু হয়ে যায়। আধঘন্টার মধ্যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পোস্টটি ৯,৩০০ বার রিট্যুইট করা হয় এবং ২৭,৫০০ এর বেশি “লাইক” পড়ে। প্রধানমন্ত্রী ট্যুইটারে লেখেন, “এই রবিবার ফেসবুক, ট্যুইটার, ইনস্টাগ্রাম, ইউটিউব অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার কথা ভাবছি”। তাঁর এই ঘোষণায় হতবাক হয়ে যান নেটিজেনরা।

সেখানে কমেন্ট করেন হাজারখানেক মানুষ, কেন তিনি বিশ্বের সবচেয়ে বড় সোশ্যাল প্লাটফর্ম ছাড়তে চান, তা জানতে চান অনেকে, কেউ আবার দিল্লিতে সংঘর্ষ ও ৪৬ জনের মৃত্যু নিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদির সমালোচনা করেন।

তবে তাঁকে সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়তে বারণ করেন অনেকে, “নো-স্যার” ট্যুইটারে টপ ট্রেন্ডিং হয়ে যায়।

নরেন্দ্র মোদির এক ভক্ত ট্যুইট করেন, “কেন স্যার? আমরা সবাই আপনার পোস্ট ভালবাসি। এইভাবে দয়া করে মন ভাঙবেন না”।

 গুয়াহাটির বাসিন্দা সঞ্জয় ডি থাকর লেখেন, “কেন স্যার? আপনার সঙ্গে যোগাযোগের এটাই একমাত্র মাধ্যম। আমরা জানি, বর্তমান পরিস্থিতিতে আপনি দুঃখিত, তবুও, এটা করবেন না। আমরা জানি, এই ব্যাপারটা কতদুর যাবে। আপনাকেই আমরা সমর্থন করি। আপনার থেকে আমরা শক্তি পাই। আপনি আমাদের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা”।

সিভিল ইঞ্জিনিয়ার সুব্বা রাও লেখেন, “মোদিজি, আমরা আপনাকে মিস করব। আপনার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করুন”।

তবে অনেক ট্যুইটার ব্যবহারকারী কটাক্ষও করেছেন।

সনিভা সায়েদ নামে এক গবেষক লেখেন, “স্যার, দয়া করে পদত্যাগও করুন”।