পাকিস্তান, এমনকি আমেরিকাও ধর্মকেন্দ্রিক কিন্তু ভারত ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র:Rajnath Singh

ভারত সব ধর্মের মূল্যবোধকে সম্মান করে। তাই এই রাষ্ট্র (India) ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র। পাকিস্তানের মতো ধর্মকেন্দ্রিক হয়ে উঠতে পারেনি এই দেশ। বুধবার এমন মন্তব্য করলেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং (Rajnath Singh)।

পাকিস্তান, এমনকি আমেরিকাও ধর্মকেন্দ্রিক কিন্তু ভারত ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র:Rajnath Singh

এন সিসি'র প্রজাতন্ত্র শিবিরে এদিন বক্তব্য রাখেন রাজনাথ সিং। (ফাইল)

হাইলাইটস

  • পাকিস্তান এমনকি আমেরিকা ধর্মকেন্দ্রিক কিন্তু ভারত ধর্মনিরেপেক্ষ রাষ্ট্র
  • বুধবার বলেছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং
  • এদিন এনসিসি ক্যাডেটদের একাধিক কেরামতি দেখে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন তিনি
নয়াদিল্লি:

ভারত সব ধর্মের মূল্যবোধকে সম্মান করে। তাই এই রাষ্ট্র (India) ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র। পাকিস্তানের মতো ধর্মকেন্দ্রিক হয়ে উঠতে পারেনি এই দেশ। বুধবার এমন মন্তব্য করলেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং (Rajnath Singh)। এনসিসি'র এক অনুষ্ঠানে (NCC) বক্তব্য রাখতে গিয়ে ওই মন্তব্য করেছেন রাজনাথ সিং। এদিন তিনি বলেন, "আমরা বলে থাকি ধর্মের মধ্যে বিভাজন করব না। কেনই বা করব। আমাদের পড়শি দেশ পাকিস্তান (Pakistan) নিজেকে ধর্মকেন্দ্রিক বলে ঘোষণা করেছে। কিন্তু আমরা তা করিনি।" তিনি যোগ করেছেন, আমেরিকাও (US) ধর্মকেন্দ্রিক রাষ্ট্র। কিন্তু ভারত না। কেন? কারণ আমাদের সাধু ও সন্তরা এদেশের সব নাগরিককে একটা পরিবার মনে করে এসেছেন। গোটা বিশ্বই একটা পরিবার, মনে করতেন তাঁরা। তাঁদের স্লোগান ছিল- 'বাসুদেব কুটুম্বকম'।

CAA: সিএএ বিরোধী আবেদনগুলি ৫ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চে পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট

তিনি মনে করিয়ে দিয়েছেন, ভারত হিন্দু রাষ্ট্র হবে, এমনটা ঘোষণা কোনদিন করেনি। বরং এদেশে শিখ, বৌদ্ধ এবং সব সম্প্রদায়ের মানুষ থাকতে পারবে, সেটাই মেনে এসেছে। প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে এনসিসি'র এই অনুষ্ঠানে তিনি ক্যাডেটদের একাধিক পদকে সম্মানিত করেন। সংস্থার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে দর্শকাসনে ছিলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী। এদিন দিল্লিতে এনসিসি'র বার্ষিক প্রজাতন্ত্র শিবির ২০২০ অনুষ্ঠিত হয়। এনসিসি'র ক্যাডেট দ্বারা প্রদর্শিত একাধিক কেরামতি দেখে এদিন বেশ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। এই বাহিনীকে ভারতীয় যুবদের কাছে "জাতীয় গর্ব" বলে প্রশংসা করেছেন তিনি। 

রাজনাথ সিং বলেন, "আজকের অনুষ্ঠানের সঙ্গে নিজের সময়ের তুলনা করলাম। একটা সময় আমিও এনসিসি করতাম। আজকের অনুষ্ঠান দেখে বুঝলাম সময়ের পরিবর্তন হয়েছে। আমাদের সময় এত সুন্দর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের কথা ভাবাই যেত না।" দেশের সব যুবক- যুবতীর গর্ব করা উচিত, তাঁরা বিশ্বের সর্ববৃহৎ যুব সংস্থা, এনসিসি'র সদস্য, এদিন অনুষ্ঠান শেষে বলেছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী।