"অডিও-ভিডিও রুমকেই বদলানো হয়েছে": মোদির হাসপাতাল পরিদর্শনের ছবি প্রসঙ্গে জানাল সেনা

অনেকেই এই ছবি দেখে বলছেন হাসপাতাল হলে কেন ওষুধের ক্যাবিনেট, ইন্ট্রাভেনাস ফ্ল্যুইডের স্ট্যান্ড এবং অন্যান্য চিকিত্সার সরঞ্জাম চোখেই পড়ছে না সেখানে? বিষয়টি তো আদৌ হাসপাতালের মতো দেখতে নয়।

ছবিতে অনেকেই ছাদ থেকে ঝুলন্ত একটি প্রজেক্টরও দেখতে পেয়েছেন

নয়াদিল্লি:

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির লাদাখ সফরে সামরিক হাসপাতালে পরিদর্শনের যে ছবি ভাইরাল হয়েছে তাতে মেডিকেল ওয়ার্ডটি আসলে সাজিয়ে গুজিয়ে বানানো বলেই অভিযোগ উঠেছে! শনিবার ভারতীয় সেনাবাহিনী জানিয়েছে যে এই অভিযোগ আসলে “মিথ্যা এবং অসমর্থিত"। মেডিকেল ওয়ার্ডটি একটি অডিও-ভিডিও প্রশিক্ষণ কক্ষ ছিল যা প্রধানমন্ত্রী মোদির সফরের অনেক আগেই নাকি COVID-19 প্রোটোকলের অংশ হিসাবে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রূপান্তরিত হয়েছিল। সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে বলেছে, “দুর্ভাগ্যজনক যে আমাদের সাহসী সশস্ত্র বাহিনীর চিকিৎসা নিয়েও অভিযোগ উঠছে। সশস্ত্র বাহিনী তাদের কর্মীদের সর্বোত্তম সম্ভাব্য চিকিত্সাই দেয়!”

প্রধানমন্ত্রী মোদি শুক্রবার লাদখ সফরে একটি অঘোষিত সফরে যান। চিনের সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষের ২০ জন ভারতীয় সেনার মৃত্যুর কয়েক সপ্তাহ পরে তিনি এই সফরে যান এবং হাসপাতালে গিয়ে আহত সৈন্যদের সঙ্গেও দেখা করেন।

সরকার প্রধানমন্ত্রী মোদির লাদাখ সফরে নিমুকে “ফরোয়ার্ড লোকেশন” হিসাবে বর্ণনা করেছে। ফরোয়ার্ড পোস্টগুলি সাধারণত ফ্রন্টলাইনের ৪০ কিলোমিটারের মধ্যে থাকে এবং শত্রুদের সীমার মধ্যেই পড়ে। যদিও গালওয়ান উপত্যকা, যেখানে সংঘর্ষ হয়েছিল, তা থেকে নিমু কমপক্ষে ২০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এবং নিমু দীর্ঘদিন ধরে একটি জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র হিসাবেই পরিচিত।

বিজেপি এবং সরকার প্রধানমন্ত্রী মোদির হাসপাতালে পরিদর্শনের যে ছবিগুলি অনলাইনে শেয়ার করেছে তা বলাবাহুল্য বিতর্ক সৃষ্টি করেছে। অনেকেই এই ছবি দেখে বলছেন হাসপাতাল হলে কেন ওষুধের ক্যাবিনেট, ইন্ট্রাভেনাস ফ্ল্যুইডের স্ট্যান্ড এবং অন্যান্য চিকিত্সার সরঞ্জাম চোখেই পড়ছে না সেখানে? বিষয়টি তো আদৌ হাসপাতালের মতো দেখতে নয়।

এমনকি যখন প্রধানমন্ত্রী মোদি একটি ঝলঝকে পরিষ্কার ঘরে পরিপাটি বিছানায় পরবর্তী সৈন্যদের দেখতে যান তখনও ছবিতে অনেকেই ছাদ থেকে ঝুলন্ত একটি প্রজেক্টরও দেখতে পেয়েছেন।

এই অভিযোগগুলির প্রেক্ষিতে ভারতীয় সেনাবাহিনী শনিবার একটি বিবৃতি জারি করে বলে, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ৩ জুলাই লেহ'র জেনারেল হাসপাতাল সফরকালে সুযোগ-সুবিধার অবস্থা সম্পর্কে কিছু মহলে বিদ্বেষপূর্ণ এবং অসমর্থিত অভিযোগ উঠেছে।”

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, “এটি স্পষ্ট করে বলা হয়েছে যে উল্লিখিত সুবিধাটি ১০০ শয্যা বিশিষ্ট সংকট সম্প্রসারণ ক্ষমতার একটি অংশ এবং জেনারেল হাসপাতাল কমপ্লেক্সেরই একটি অংশ। কোভিড -১৯ প্রোটোকল অনুসারে হাসপাতালের কয়েকটি ওয়ার্ডকে আইসোলেটেড করা হয়েছে।”

বিবৃতিতে লেখা, “অতএব, এই হলটি যা আগে সাধারণত প্রশিক্ষণের অডিও ভিডিও হল হিসাবে ব্যবহৃত হত তাকেই আইসোলেশন ওয়ার্ডে রূপান্তরিত করা হয়েছে, যেহেতু এই হাসপাতালটি কোভিডি-১৯ চিকিত্সা হাসপাতাল হিসাবেও মনোনীত করা হয়েছিল।”

সেনাবাহিনী জানিয়েছে, “কোভিড অঞ্চল থেকে পৃথকীকরণ নিশ্চিত করতে গালওয়ান থেকে আসার পরে এখানেই তাই আহত সাহসী সেনাদের রাখা হয়েছে। সেনা কমান্ডার জেনারেল এম এম নারাভানে এবং সেনা কমান্ডারও একই জায়গায় আহত সেনাদের পরিদর্শন করেছেন।"