মোদীকে মহম্মদ বিন তুঘলকের ঠাকুরদা বলে কটাক্ষ করলেন মমতা

তিনি বলেছেন, বিজেপি বাংলায়  ক্ষমতায় এসে এখানেও এনআরসি করবে। আমি বলেছি গায়ে হাত দিয়ে দেখুন, যে  হ্যাঙ্গারের তলায় মিটিং  করেছেন ওই হ্যাঙ্গারের তলায় ঢুকিয়ে দেব।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
মোদীকে মহম্মদ বিন তুঘলকের ঠাকুরদা বলে কটাক্ষ করলেন মমতা

এনআরসি প্রসঙ্গে মমতা  বলেন, এভাবে সবাইকে  তাড়িয়ে দিতে চাইছে ।


ময়নাগুড়ি: 

হাইলাইটস

  1. প্রধানমন্ত্রীকে মহম্মদ বিন তুঘলকের ঠাকুরদা বলে কটাক্ষ করলেন মমতা
  2. মুখ্যমন্ত্রী রবিবার বলেন, আগে ছিল চায়েওয়ালা এখন হয়েছে চৌকিদার
  3. আজ-ই কোচবিহার থেকে তোপ দেগেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

প্রধানমন্ত্রীকে (PM Modi) মহম্মদ বিন তুঘলকের ঠাকুরদা বলে কটাক্ষ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। ময়নাগুড়ির নির্বাচনী  (Lok Sabha Elections 2019) সভা থেকে রবিবার মুখ্যমন্ত্রী বলেন,  আগে ছিল চায়েওয়ালা এখন হয়েছে চৌকিদার। কিন্তু চৌকিদাররা মাইনে পায় না। সবাই বলছে  চাওয়ালা পালিয়ে গিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী যখন উত্তরবঙ্গের ময়নাগুড়িতে  সভা করছেন তাঁর একটু আগে  কোচবিহার থেকে  তোপ দেগেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সারদা- নারদা কাণ্ড নিয়ে তৃণমূলের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী। এ প্রসঙ্গে নাম না করে  মুকুল রায়কে জড়িয়ে  প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করে মমতা  বলেন, সারদা- নারদার অভিযুকক্ত পাশে নিয়ে মিটিং করছেন আর  বলছেন তৃণমূল সারদা করেছে! আপনি সারদার নায়ক, গদ্দারকে  নিয়ে মিটিং  করছে। বিজেপির নেতাই সারদার নেতা। সবচেয়ে  বড় অভিযুক্ত।

বাচ্চাদের মতো আচরণ করে ভোট জেতা যায় না, একই মাঠে মঞ্চ নিয়ে মমতাকে তোপ মোদীর

এনআরসি প্রসঙ্গে মমতা  বলেন, এভাবে সবাইকে  তাড়িয়ে দিতে চাইছে । আমি মায়ের জন্মদিন জানি না। আমাকে মা কখনও বলেনি। আমিও জানতে চাইনি। এভাবেই পঞ্চাশ বছর আগের তথ্য চাইছে। আবার  বলছে বাংলায়  ক্ষমতায় এসে এখানেও এনআরসি করবে। আমি বলেছি গায়ে হাত দিয়ে দেখুন, যে  হ্যাঙ্গারের তলায় মিটিং  করেছেন ওই হ্যাঙ্গারের তলায় ঢুকিয়ে দেব।  ফালাকাটার সভা থেকে মমতা বলেন, নির্বাচনের পর চৌকিদারের চৌকি  যে  হ্যাঙ্গারের তলায় মিটিং  করেছেন ওই হ্যাঙ্গারের তলায় ঢুকিয়ে দেব। বিজেপিকে এনআসি হ্যাংলা বলেও কটাক্ষ করনে মমতা। প্রাকৃতিক  আবহাওয়া খারাপ বলে  নির্ধারিত সময়ের আগেই ময়নাগুড়ির সভা  শুরু হয়। বক্তব্য  পেশ করেই ফলাকাটায় চলে আসেন মমতা। দুটি সভা  থেকে মমতা  বলেন, বাইরের রাজ্য থেকে লোক পাঠিয়েছে বিজেপি। এরা নজরদারি চালাচ্ছেন। ময়নাগুড়ির পর ফালাকাটার সভা থেকেও নাম না করে  মুকুলকে হাওলার নেতা বলে কটাক্ষ করেন মমতা। তিনি বলেন, হাওলা নেতার কত সাহস, বলছেন এসপিকে দেখে নেবে। দুজন অফিসারকে  সরিয়ে ভোট জিততে পারববেন না। সব অফিসারই আমাদের অফিসার। অত সস্তা না।  জলপাইগুড়ির সার্কিট বেঞ্চ নিয়ে নাটক করেছেন প্রধানমন্ত্রী। কেন্দ্র একটাকাও দেয়নি। আমরা করেছি। উনি এমন উদ্বোধন করেছেন যে আবার করতে হল। বিজেপিকে বসন্তের কোকিল বলেও কটাক্ষ করেন মমতা। তরাইতে দাঙ্গা লাগিয়েছিলেন জন বারলা। তাঁকেই প্রার্থী করেছে বিজেপি। এটা  বিধানসভা  নির্বাচন নয়, এটা মোদীবাবুর নির্বাচন। কী করেছেন জবাব দিন। আমাদের বিধানসভা নির্বাচনে জবাব দেব কী করেছি। এত বড় কেলেঙ্কারির নির্বাচন  আগে হয়নি। অনেক প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কাজ করেছি এমন বাজে কথা বলা প্রধানমন্ত্রী দেখিনি। এত নিম্নমানের কথা প্রধানমন্ত্রী বলেননি।  দুটি সভা  থেকেই মমতা বলেন, টাকা  দিয়ে  মিছিলে  লোক নিয়ে যাচ্ছে বিজেপি। মমতার পরামর্শ কেউ টাকা দিলে ছবি তুলে রাখবেন।  মমতা বলেন, দুজন অফিসারকে  সরিয়ে ভোট জিততে পারববেন না। সব অফিসারই আমাদের অফিসার। অত সস্তা না।  কাল আপনি ক্ষমতায় না থাকলে লোকে  আপনাকে ছুঁড়ে ফেলে দেবেন। রাজ্যের সচিবকে কমিশন সরাচ্ছে তাহলে ক্যাবিনেট সচিবকেও সরিয়ে দেওয়া হোক। কোনও সরকারি পরিষেবা পেতে টাকা দিতে হবে না। কেউ টাকা  নিলে আমরা তাঁকে ক্ষমা করব না। বাংলার মানুষ ভিক্ষা চায় না।

     

                                              



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................