মস্কো সফরের আগে চিন সীমান্ত পরিস্থিতি পর্যালোচনা করলেন রাজনাথ সিং

Ladakh face-off: সূত্রের খবর, বৈঠকে বাহিনীর প্রস্তুতি খতিয়ে দেখা এবং প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা হয়

মস্কো সফরের আগে চিন সীমান্ত পরিস্থিতি পর্যালোচনা করলেন রাজনাথ সিং

সোমবার মস্কো সফরে যাচ্ছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং

নয়াদিল্লি:

লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় (Ladakh along the Line of Actual Control) চলা উত্তেজনা পরিস্থিতি নিয়ে চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ (Chief of Defence Staff) বিপিন রাওয়াতের সঙ্গে আলোচনা করলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং (Rajnath Singh) । সূত্রের খবর, বৈঠকে উপস্থিত  ছিলেন তিন বাহিনীর প্রধান, সেনা প্রধান এমএম নারবানে, নৌসেনা প্রধান অ্যাডমিরাল করমবীর সিং  এবং বায়ুসেনা প্রধান আরকেএস ভাদুরিয়া। সোমবার মস্কো সফরে যাবেন রাজনাথ সিং, লাদাপলক্খের গালোয়ান উপত্যকায় চিনা সেনার সঙ্গে সংঘাত এবং ২০ জন ভারতীয় সেনা জওয়ান নিহত  এবং ৭৬ জন আহত হন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সোভিয়েত ইউনিয়নের জয়ের ৭৫তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে মিলিটারি প্যারেডে যোগ দেবেন রাজনাথ সিং।

সূত্রের খবর, বৈঠকে ঠিক হয়েছে যে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় উত্তেজনা বাড়াবে না ভারত, তবে যদি সীমান্তের ওপার থেকে উত্তেজনা বাড়ানো হয়, তাহলে একই ভাষায় জবাব দেবে ভারত। সূত্রের খবর, বৈঠকে বাহিনীর প্রস্তুতি খতিয়ে দেখা এবং প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা হয়।

ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানিয়েছেন যে, সেনাবাহিনীকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে এবং ঘটনাস্থলের পরিস্থিতি বুঝে তাদেরই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

চিনকে জবাব দিতে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় নিজেদের শক্তি বাড়িয়েছে সেনাবাহিনী ও বায়ুসেনা।

শুক্রবার সর্বদলীয় বৈঠকে, প্রধানমন্ত্রী  মোদি বলেন, চিন ভারতের কোনও অংশ দখল করেনি বা তারা সীমান্ত পেরিয়ে ভারতের অংশ ঢোকেনি।  তাঁর কথায়, “আমরা যখন আমাদের স্বশস্ত্র বাহিনীকে ক্ষমতা দিয়েছি, কূটনৈতিকভাবেও চিন নিয়ে আমাদের অবস্থান স্পষ্ট করতে হবে। ভারত শান্তি ও বন্ধুত্ত্ব চায়, তবে নিজেদের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করা আমাদের অগ্রাধিকার”।