মুম্বইয়ের বান্দ্রায় জমায়েত করার জন্যে শ্রমিকদের উস্কে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার ১

Coronavirus Lockdown: ভিডিওতে দেখা যায় বিনয় দুবে নামে ওই ব্যক্তি সরকারকে বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়া অভিবাসী শ্রমিকদের বাড়ি পৌঁছনোর ব্যবস্থা করতে বলছেন

মুম্বইয়ের বান্দ্রায় জমায়েত করার জন্যে শ্রমিকদের উস্কে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার ১

Vinay Dubey: ১৪ এপ্রিল লকডাউন শেষ হচ্ছে ধরে নিয়ে শ্রমিকদের বাড়ি পৌঁছনোর দাবি তোলেন এই ব্যক্তি

হাইলাইটস

  • বান্দ্রায় বিক্ষোভ দেখাতে জড়ো হওয়া শ্রমিকদের উস্কে ছিলেন বিনয় দুবে
  • মঙ্গলবার রাতেই তাঁকে গ্রেফতার করে মুম্বই পুলিশ
  • লকডাউনের নিয়ম না মানায় ১ হাজার শ্রমিকের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের
মুম্বই:

বাড়ি ফেরার জন্যে মহারাষ্ট্রে আটকে পড়া শ্রমিকদের (Migrant workers)  উস্কে দিয়ে এবার বিপাকে এক শ্রমিক নেতা। লকডাউনের (Coronavirus Lockdown) সময় অশান্তি ছড়ানোয় মদত দেওয়ার অভিযোগে তাঁকে গ্রেফতার করল মুম্বই পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধেবেলায় রীতিমতো অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে মুম্বইয়ের (Mumbai) বান্দ্রা স্টেশন চত্বর। ওই এলাকায় কমপক্ষে কয়েক হাজার অভিবাসী শ্রমিক জড়ো হয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। তাঁদের একটাই দাবি ছিল, যে কোনওভাবে তাঁদের বাড়ি ফেরানোর ব্যবস্থা করতে হবে সরকারকে। কিন্তু হঠাৎ এত শ্রমিকের ক্ষেপে ওঠার নেপথ্যে ছিল ওই ব্যক্তির উস্কানি। ১৪ এপ্রিল লকডাউন শেষ হচ্ছে ভেবে ওই ব্যক্তি মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়ে অভিবাসী শ্রমিকদের বাড়ি যাওয়ার ডাক দেন। স্ব-ঘোষিত শ্রমিক নেতা বিনয় দুবে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন "চলো ঘর কি ওর" অর্থাৎ কিনা "চলুন বাড়ি যাই"। ব্যস, এমনিতেই ভিনরাজ্যে গত ২১ দিন ধরে আটকে থাকায় মনে মনে ফুঁসছিলেন ওই শ্রমিকরা, বিনয় দুবের ওই আহ্বানে আগুনে ঘি পড়ে। প্রধানমন্ত্রী মোদি মঙ্গলবার যেই লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে ৩ মে পর্যন্ত করার ঘোষণা করেন সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা রাগে ফুঁসে ওঠেন। মুহূর্তেই কয়েক হাজার শ্রমিক জড়ো হন বান্দ্রা স্টেশন চত্বরে। পুলিশ উত্তেজিত জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করতে বাধ্য হয়। 

মুম্বইয়ের বান্দ্রা স্টেশনে হাজারখানেকের সমাবেশ, পুলিশের লাঠিচার্জ

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যায় বিনয় দুবে নামে ওই ব্যক্তি সরকারকে বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়া অভিবাসী শ্রমিকদের বাড়ি পৌঁছনোর ব্যবস্থা করতে বলছেন। মুম্বই পুলিশ তদন্ত করে দেখেছে যে টুইটার এবং ফেসবুকেও বিভিন্ন পোস্ট দিয়ে সামাজিক দূরত্বের তোয়াক্কা না করে লকডাউন উপেক্ষা করার ডাক দিয়েছিলেন তিনি। এরপরেই অভিবাসী শ্রমিকরা বান্দ্রা স্টেশনে জড়ো হয়ে বাড়ি ফেরার দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। ওই অভিবাসীরা বেশিরভাগই পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, উত্তরপ্রদেশ এবং মধ্যপ্রদেশ থেকে মহারাষ্ট্রে কাজ করতে এসেছিলেন।

প্রকাশ্যে কেন্দ্রের লকডাউন গাইডলাইন, ২০ এপ্রিল থেকে মিলবে কৃষি সহ বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড়

"আমি বলছি ১৪ এপ্রিল এই লকডাউন শেষ হওয়ার পরে, রাজ্য সরকার উত্তরপ্রদেশ, বিহার, ঝাড়খণ্ড, পশ্চিমবঙ্গে শ্রমিকদের ফিরে যাওয়ার জন্যে ট্রেনের ব্যবস্থা করবে। কেননা শ্রমিকরা এখন বাড়ি ফেরার জন্যে মরিয়া, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা না গেলেও খিদেতেই মারা যাবে তাঁরা... আমরা ১৪ বা ১৫ তারিখ পর্যন্ত অপেক্ষা করব, যদি সরকার কিছু না করে, আমি, বিনয় দুবে, পায়ে হেঁটেই এই অভিবাসীদের সঙ্গে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হবো... ", ভিডিওতে বলেন বিনয় দুবে।

মুম্বই পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার রাতেই তাঁকে নবি মুম্বই থেকে গ্রেফতার করা হয়।

মঙ্গলবারের বান্দ্রার ওই ঘটনায়  প্রায় এক হাজার লোকের বিরুদ্ধে হিংসা ছড়ানোর অভিযোগে একটি এফআইআর দায়ের করেছে।