Budget 2020: ভারতীয় রেলে সর্বাধিক বরাদ্দের প্রত্যাশায় বিশেষজ্ঞরা

Rail Budget: গত বছরের বাজেটে রেলের জন্যে বরাদ্দ ব্যয় ছিল ১.৬০ লক্ষ কোটি টাকা, তার আগের বছর ১.৪৮ লক্ষ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়

Budget 2020: ভারতীয় রেলে সর্বাধিক বরাদ্দের প্রত্যাশায় বিশেষজ্ঞরা

Budget: ২০১৬ সালের আগে, ভারতে কেন্দ্রীয় বাজেট এবং রেল বাজেট আলাদা আলাদা দিনে পেশ করা হত

হাইলাইটস

  • আগামী ১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় বাজেট পেশ করতে চলেছেন নির্মলা সীতারামন
  • ওই দিনই একসঙ্গে পেশ করা হবে রেল বাজেটও
  • এবারের বাজেটে রেলের জন্যে রেকর্ড পরিমাণ টাকা বরাদ্দের প্রত্যাশা রয়েছে

২০১৬ সালের আগে, ভারতে কেন্দ্রীয় বাজেট এবং রেল বাজেট (Rail Budget) আলাদা আলাদা দিনে পেশ করা হত। ৯২ বছরের এই ঐতিহ্যকে বাতিল করে কেন্দ্রীয় বাজেটের মধ্যেই রেল বাজেটকে অন্তর্ভুক্ত করেন তৎকালীন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি, তাঁর আমলেই রেল বাজেট সাধারণ বাজেটের সঙ্গে একযোগে পেশ করা শুরু হয়। সেই রীতি মেনেই আগামী ১ ফেব্রুয়ারি সংসদে পেশ হতে চলেছে কেন্দ্রীয় বাজেট (Budget 2020)। আর ওই বাজেট ঘিরে চড়ছে প্রত্যাশার পারদ (Budget-Expectations)। আসন্ন বাজেটে ভারতীয় রেলের জন্যে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের (Union Finance Minister Nirmala Sitharaman) কাছ থেকে ১.৭০ লক্ষ কোটি টাকারও বেশি ব্যয় বরাদ্দের প্রত্যাশা করা হচ্ছে। রেলমন্ত্রকের এক প্রবীণ আধিকারিক জানিয়েছেন, গত বছরের বাজেটে রেলের জন্যে বরাদ্দ ব্যয় ছিল ১.৬০ লক্ষ কোটি টাকা, তার আগের বছর ১.৪৮ লক্ষ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়। "এই বছরও ভারতীয় রেলের জন্যে কমপক্ষে ১.৭০ অথবা ১.৭৫ লক্ষ কোটি টাকারও বেশি ব্যয় বরাদ্দ হবে", বলেন ওই আধিকারিক।

পাশাপাশি ওই আধিকারিকের মতে, চলতি বছরের বাজেটে রেলের খাতে সাধারণ বরাদ্দও এ বছর বৃদ্ধি পেয়ে ৭০,০০০ কোটি টাকারও বেশি হবে, যা আগের বছর ছিল ৬৫,৮৩৭ কোটি টাকা।

Budget 2020: এক ঝলকে দেখে নিন গত কয়েকটি বাজেটের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

২০১৮-১৯ অর্থবর্ষের বাজেটে রেলের জন্যে ব্যয় বরাদ্দ করা হয়েছিল ১.৪৮ লক্ষ কোটি টাকা এবং বাজেটে রেলের জন্যে সাধারণ বরাদ্দ ছিল ৫৫,০৮৮ কোটি টাকা।

রেলমন্ত্রকের আধিকারিকদের মতে, ভারতীয় রেলের পরিকাঠামোর উন্নয়নে ২০১৮ থেকে ২০৩০ সালের মধ্যে ৫০ লক্ষ কোটি টাকার বিনিয়োগের প্রয়োজন হবে, ওই  বিপুল পরিমাণ টাকার সংস্থানও এই বাজেটে করা হতে পারে।

Union Budget 2020: বাজেটের সব খবর সরাসরি, কখন, কোথায়, কীভাবে দেখবেন?

ওই আধিকারিক বলেন, রেল বাজেটে আরও বেশি করে জোর দেওয়া হতে পারে সিগন্যালিং সিস্টেমের আধুনিকীকরণ, নতুন রেলপথ নির্মাণ, রেলপথের সংখ্যা দ্বিগুণ ও তিনগুণ করা, রোলিং স্টক এবং রেলের টেলিকম প্রযুক্তির দিকে। এছাড়াও তেজস এক্সপ্রেস এবং বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের নতুন পরিষেবা সম্পর্কে বড় কোনও ঘোষণা করা হতে পারে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে।

২০১৭ সালে তৎকালীন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি প্রথমবারের জন্য কেন্দ্রীয় বাজেট পেশ করেন, যার অন্যতম অংশ হিসেবে রাখা হয়েছিল রেল বাজেটকে। এ বছর কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী হিসাবে তাঁর দ্বিতীয় বাজেট পেশ করতে চলেছেন নির্মলা সীতারামন। মনে করা হচ্ছে, আসন্ন বাজেটেও রেলে জন্যে বরাদ্দ করা অর্থের বিষয়ে বিশেষ জোর দেবেন অর্থমন্ত্রী।

More News