Budget 2019: দীর্ঘমেয়াদী মূলধনী মুনাফার উপরে ১০ শতাংশ কর এবছরও থাকবে, জানাচ্ছে সূত্র

Budget 2019: দীর্ঘমেয়াদী মূলধনী মুনাফার উপরে ১০ শতাংশ কর, যা ১ লক্ষ টাকার উপরে লাভের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হয়েছিল গত বাজেটে, সম্ভবত এবারও তা একই রেখে দেওয়া হচ্ছে।

Budget 2019: দীর্ঘমেয়াদী মূলধনী মুনাফার উপরে ১০ শতাংশ কর এবছরও থাকবে, জানাচ্ছে সূত্র

Budget 2019: শিল্পমহলের আশা সীতারামন এই কর সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ করে দেবেন বা তার হার কমাবেন।

নিউ দিল্লি:

LTCG বা দীর্ঘমেয়াদী মূলধনী মুনাফার উপরে ১০ শতাংশ কর, যা ১ লক্ষ টাকার উপরে লাভের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হয়েছিল গত বাজেটে (Budget), সম্ভবত এবারও তা একই রেখে দেওয়া হচ্ছে। সূত্রানুসারে জানা যাচ্ছে, ১০ শতাংশ থেকে কর বৃদ্ধি যেমন করা হবে না, তেমনই ১ লক্ষের সীমাকেও বাড়ানো হবে না। এক বছরের বেশি সময় ধরে শেয়ারে থাকা দীর্ঘমেয়াদী মূলধনী মুনাফার ক্ষেত্রে ওই কর আরোপ করা হয়েছে। সমদর্শী মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগকারীদেরও এই করের আওতায় আনা হয়েছে।

Budget 2019: শিল্প বিশেষজ্ঞ ও অর্থনীতিবিদদের সঙ্গে বৈঠকে বসলেন প্রধানমন্ত্রী

২০১৮ সালের ২১ জানুয়ারি পর্যন্ত সময়কালের মধ্যে এই লাভের বিচার করবে সরকার। ১৪ বছর পরে ওই ওই কর আবার পুনঃস্থাপিত করা হবে।

অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে আয়করে ছাড়ের সীমা বাড়ানো হতে পারে বাজেটে

এই LTCG-র ক্ষেত্রে কোনও ছাড় দিলে বা সেটাকে তুলে নিলে কিংবা ১ লক্ষ টাকা থেকে ছাড় সীমা বাড়ালে তা পুঁজি বাজারকে গতি দিত বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। ২০১৮ জানুয়ারি থেকেই পুঁজি বাজার একাধিক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ইস্যুর কারণে শুষ্ক অবস্থায় রয়েছে।

শিল্পমহলের আশা সীতারামন LTCG কর সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ করে দেবেন বা তার হার কমাবেন।

এদিকে বাজারে বিনিয়োগকারীরা আশঙ্কিত LTCG কর বৃদ্ধির সম্ভাবনার কথা ভেবে। সরকারি রাজস্ব পরিমাণ বাড়াতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে এই আশঙ্কায় বাজেটের আগে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে এই কর তুলে নেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন তাঁরা। তাঁদের যুক্তি, তাঁরা নিরাপত্তা লেনদেন কর তো দিচ্ছেনই।

যদি সত্যিই LTCG কর বাড়ানো হয় তার প্রভাবে সেনসেক্স ও নিফটির সূচকের বৃদ্ধিকে কমাবে।

গত বাজেটে এই ঘোষণা করার পরে সরকার জানিয়েছিল, এই কর ছাড়ের ফলে স্টক মার্কেট থেকে যে আয় হয় তার পরিমাণ ৩.৭৬ লক্ষ কোটি টাকা। যা থেকে কর পাওয়া যেতে পারে ৩৭,০০০ কোটি টাকা।

গতবছরে তৎকালীন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি LTCG কর লাগু করেন। মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগকারীরা আবেদন করেন, সরকারের উচিত ওই কর তুলে নেওয়া। কারণ, প্রাপ্ত কর তেমন কিছু ‘তাৎপর্যপূর্ণ' নয়।

প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি তাঁদের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করে বলেছিলেন, ‘‘LTCG কর থেকে প্রথম বছরে ২০,০০০ কোটি টাকার প্রান্তিক রাজস্ব ‌পাওয়া যাবে। পরবর্তী সময়ে এই রাজস্বের পরিমাণ বাড়তে থাকবে।''

২০১৮ সালের বাজেটে সরকার LTCG করের মাত্রা ১০ শতাংশ রাখেন। সেই সঙ্গে রেখে দেওয়া হয় নিরাপত্তা লেনদেন কর। তৎকালীন অর্থ সচিব হাসমুখ আধিয়া জানান, নিরাপত্তা লেনদেন কর থেকে মাত্র ৯,০০০ কোটি টাকা আয় হয়।

More News