Systematic Investment Plan-এ বিনিয়োগ ডিসেম্বরে বেড়ে হল ৮,৫১৮ কোটি টাকা

SIP Inflows: ২০১৯ সালের নভেম্বর মাসে এসআইপিতে বিনিয়োগ করা হয়েছে ৮,২৭২ কোটি টাকা, এদিকে এসআইপি অ্যাকাউন্টের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২.৯৭ কোটিতে

Systematic Investment Plan-এ বিনিয়োগ ডিসেম্বরে বেড়ে হল ৮,৫১৮ কোটি টাকা

হাইলাইটস

  • সিস্টেমিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যানে বাড়ছে বিনিয়োগের পরিমাণ
  • দীর্ঘ মেয়াদে নিয়মিত টাকা ঢালতে পারলে চড়া রিটার্নের সম্ভাবনা
  • টাকা জমা দিতে পারেন প্রতি দিনে/সপ্তাহে/ ১৫ দিনে/ মাসে/ তিন মাস অন্তরও
মুম্বই:

সিস্টেমেটিক ইনভেসমেন্ট প্ল্যানে বিনিয়োগ ক্রমশই বাড়ছে। সদ্য ফেলে আসা গত বছরের ডিসেম্বরে সিস্টেমেটিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান বা পদ্ধতিগত বিনিয়োগের পরিকল্পনা (SIP)-তে বিনিয়োগের পরিমাণ এক লাফে ২৪৫ কোটি (এক মাস থেকে অপর মাসে) বেড়েছে, যা এখনও পর্যন্ত সর্বকালীন রেকর্ড। ডিসেম্বরে বিপুল পরিমাণ বিনিয়োগের ফলে বর্তমানে ওই প্ল্যানে বিনিয়োগের অঙ্ক (SIP Inflows) বেড়ে সর্বোচ্চ ৮,৫১৮ কোটি টাকায় পৌঁছেছে। এই তথ্য জানিয়েছে অ্যাসোসিয়েশন অফ মিউচুয়াল ফান্ডসের (এএমএফআই) একটি রিপোর্ট। জানা গেছে, ২০১৯ সালের নভেম্বর মাসে এসআইপিতে (Systematic Investment Plan) বিনিয়োগের পরিমাণ ছিল ৮,২৭২ কোটি টাকা। পাশাপাশি এসআইপি অ্যাকাউন্টের সংখ্যাও বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২.৯৭ কোটিতে। এদিকে এসআইপি-র আওতাধীন ব্যবস্থায় (Mutual Funds) বেড়েছে সম্পদের পরিমাণও, নভেম্বর মাসে যেখানে ৩.১২ লক্ষ কোটি টাকার সম্পদ ছিল তা এখন বেড়ে হয়েছে ৩.১৭ লক্ষ কোটি টাকা।

এএমএফআইয়ের সিইও এন.এস. ভেঙ্কটেশ বলেন: "এই বিনিয়োগ দেখেই বোঝা যাচ্ছে, খুচরা বিনিয়োগকারীরা এখনও মিউচুয়াল ফান্ডের উপরে আস্থা রাখতে পারছেন, কেননা যেভাবে এসআইপিগুলিতে নাগাড়ে বিনিয়োগ হচ্ছে সেই ঘটনা তাই প্রমাণ দিচ্ছে। দেশীয় অর্থনৈতিক পরিস্থিতি এবং বিশ্বব্যাপী বাণিজ্যিক মন্দা সহ নানা সমস্যা সত্ত্বেও ওই বিপুল বিনিয়োগ হয়েছে"।

সিস্টেমেটিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান (SIP) হচ্ছে বিনিয়োগকারীদের জন্য মিউচুয়াল ফান্ডের মাধ্যমে করা একটি বিনিয়োগ পদ্ধতি, যেখানে এককালীন অর্থ বিনিয়োগের পরিবর্তে ধাপে ধাপে অল্প পরিমাণে অর্থ বিনিয়োগ করা হয়ে থাকে ৷ সাধারণত অর্থ বিনিয়োগ করা হয় সাপ্তাহিক, মাসিক বা ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে ৷ বিনিয়োগকারীরা তাদের নিজস্ব মোট সম্পত্তির উপর ভিত্তি করে ইউনিট লাভ করে থাকে৷ প্রতিবার অর্থ বিনিয়োগের সঙ্গে সঙ্গে বিনিয়োগকারীর অ্যাকাউন্টে ইউনিট যোগ হয়ে থাকে৷

ডিসেম্বরে আইডিএফসি এএমসির প্রধান কার্যনির্বাহী আধিকারিক বিশাল কাপুর বলেন: "এমএফ শিল্পের ডিসেম্বরের যে তথ্য পাওয়া যাচ্ছে তাতে শেয়ার বাজারের উপর নির্ভরশীল এই ধরণের প্ল্যানের প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছেন খুচরো বিনিয়োগকারীরা। এর ফলে নেট ইক্যুইটির গতিপ্রকৃতি নভেম্বরে চারগুণ বেড়েছে এবং মাসিক এসআইপিতে বিনিয়োগও বেড়েছে, যেখানে গত বছরের নভেম্বরে ছিল ৮,২৭২ কোটি টাকা সেখানে ডিসেম্বরে তা বেড়ে হয়েছে রেকর্ড পরিমাণ ৮,৫১৮ কোটি টাকা"।

বুদ্ধি করে ফান্ড বাছাইয়ের পর দীর্ঘ মেয়াদে নিয়মিত সিস্টেমেটিক ইনভেসমেন্ট প্ল্যানে টাকা ঢালতে পারলে চড়া রিটার্নের সম্ভাবনা। ফলে সন্তানের উচ্চশিক্ষা সহ নানা দীর্ঘ মেয়াদি সুবিধার লক্ষ্য পূরণে এই বিনিয়োগ যথেষ্ট কার্যকরী হতে পারে।

More News