This Article is From Mar 04, 2020

বিট কয়েনের উপর আরবিআইয়ের নিষেধাজ্ঞা বাতিল করে ব্যবসা করার অনুমতি দিল সুপ্রিম কোর্ট

Bitcoin: ২০১৮ সালের এপ্রিলে বিটকয়েনের মতো ভার্চুয়াল মুদ্রার বা ক্রিপ্টোকারেন্সির ব্যবহারকে বন্ধ করতে রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া কড়া নিয়ম করে

বিট কয়েনের উপর আরবিআইয়ের নিষেধাজ্ঞা বাতিল করে ব্যবসা করার অনুমতি দিল সুপ্রিম কোর্ট

হাইলাইটস

  • যে কোনও ধরণের ক্রিপ্টোকারেন্সি দিয়ে ব্যবসায় অনুমতি দিল সুপ্রিম কোর্ট
  • এর আগে আরবিআই বিটকয়েনের মতো ভার্চুয়াল মুদ্রায় নিষেধাজ্ঞা জারি করে
  • এখন ভারতে ১ বিটকয়েনের মূল্য ভারতীয় মুদ্রায় ৬ লক্ষ ৫০ হাজার ২৬২ টাকা

এবার বিটকয়েনের মতো ক্রিপ্টোকারেন্সি (Cryptocurrency) নিয়ে ব্যবসা করার অনুমতি দিল সুপ্রিম কোর্ট, ২০১৮ সালে ক্রিপ্টোকারেন্সির (Bitcoin) উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া, সেই নিষেধাজ্ঞা বাতিল করে দিল শীর্ষ আদালত (Supreme Court)। বিটকয়েনের মতো লেনদেন এ দেশে অবৈধ, আগেই জানায় দেশের শীর্ষ ব্যাংক। এবার সেই নিষেধাজ্ঞা বাতিল করল সুপ্রিম কোর্ট। ২০১৮ সালের এপ্রিলে বিটকয়েনের মতো ভার্চুয়াল মুদ্রার বা ক্রিপ্টোকারেন্সির ব্যবহারকে বন্ধ করতে রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া কড়া নিয়ম করে। ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলিকে বিটকয়েনের মতো কোনও ক্রিপ্টোকারেন্সির বিনিময়ে পরিষেবা দেওয়া বা ব্যবসা করায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল তারা। এদিকে ‘ব্যানিং অব ক্রিপ্টোকারন্সি অ্যান্ড রেজুলেশন অব অফিসিয়াল ডিজিটাল কারেন্সি বিল ২০১৯' নামে একটি বিল আনে মোদি সরকারও। 

প্রায় ৫০ টাকা করে কমল রান্নার গ্যাসের দাম! দেখুন ১ মার্চ থেকে নয়া দামের তালিকা

বিটকয়েন হল সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্রিপ্টোকারেন্সি।  অক্টোবরের পর থেকে হু-হু করে বেড়েছে এর দাম। একটি বিটকয়েনের বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় ১০,০০০ মার্কিন ডলার। বর্তমানে ভারতে ১ বিটকয়েনের মূল্য ভারতীয় মুদ্রায় ৬ লক্ষ ৫০ হাজার ২৬২ টাকা।

দাম বেড়েছে অন্যান্য ক্রিপ্টোকারেন্সিগুলোরও। ইথেরিয়ামের দাম বেড়ে দ্বিগুণেরও বেশি হয়েছে, রিপলের এক্সআরপি ৭৫ শতাংশেরও বেশি বেড়েছে।

স্পেকট্রাম বকেয়া বাবদ ৬,০০০ কোটি টাকা মেটাল ভোডাফোন, এয়ারটেল ও জিও

আসলে বিটকয়েনের মতো যে কোনও ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবহারই খুব ঝুঁকিপূর্ণ, কেননা এর দাম যেমন হু-হু করে বেড়ে যায় তেমনি হঠাৎ করে দাম অনেকটা কমেও যায়। ক্রিপ্টোকারেন্সির গত ১১ বছরের ইতিহাস দেখলে দেখা যাবে ২০১৭ এর শেষদিকে, এই ভার্চুয়াল মুুদ্রার দাম মাত্র ৩৫ দিনের মধ্যে সাড়ে তিনগুণ বেড়ে প্রায় ২০,০০০ মার্কিন ডলারে পৌঁছে যায়, আবার তারপরেই দেখা যায় তার ৭ সপ্তাহ পর এর দাম কমে যায় প্রায় ৭০ শতাংশ। 

যদিও বিশ্বের অনেক দেশেই বিটকয়েনের মতো মুদ্রার বিনিময়ে ব্যবসা করার বিরুদ্ধে সতর্কতা অবলম্বন করা হয়েছে, বহু দেশে নিষিদ্ধও করা হয়েছে এই ক্রিপ্টোকারেন্সিকে। আবার কেউ কেউ এই ভার্চুয়াল মুদ্রাকে সমর্থন জানিয়েছে। ২০১৭ সালে, জাপান বিটকয়েনকে আইনি মুদ্রা হিসাবে গ্রহণ করেছে এবং এমনকি বিটকয়েনের বিনিময়ে ব্যবসা বাণিজ্য করাকেও সরকারিভাবে স্বীকৃতি দিয়েছে ওই দেশ।

.