বাজেট পেশের পর শেয়ার বাজারে ২০১৯-এর সবচেয়ে বড় ধস, ৯০০ পয়েন্ট পড়ল সূচক

২০১৯-২০ বাজেট খুশি করতে পারে নি শেয়ার বাজারের লগ্নিকারীদের,সোমবার বাজার খোলার পরেই তার প্রভাব পড়ল শেয়ার বাজারে

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

হাইলাইটস

  1. সেনসেক্স নামল ৩৮,৮৫০ এর নিচে
  2. নিফটির ৪৫টি শেয়ার ক্ষতির মুখ দেখেছে
  3. বিদেশি বিনিয়োগকারী ও উচ্চবিত্তদের জন্যে উচ্চ কর প্রয়োগ হওয়ার প্রভাব

মোদি সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে পেশ করা প্রথম সাধারণ বাজেটের পরেই সোমবার শেয়ার বাজারে বড় ধস নামতে দেখা গেল।সোমবার দুপুরে শেয়ার বাজারে ৯০০ অঙ্কেরও বেশি নেমে গেল সূচক।সকাল থেকেই শেয়ার বাজার নিম্নমুখি ছিল। S&P BSE সেনসেক্স ৫০ সূচক নেমে যায়। সরকার তালিকাভুক্ত সংস্থাগুলির সর্বনিম্ন পাবলিক শেয়ারহোল্ড বৃদ্ধি এবং বিদেশী পোর্টফোলিও বিনিয়োগকারীদের এবং উচ্চ আয়ের ব্যক্তিদের জন্য কর বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়ার পরেই এই প্রভাব পড়তে দেখা গেল শেয়ারবাজারে। শুক্রবার সংসদে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দ্বিতীয় মেয়াদে প্রথম বাজেট উপস্থাপনকালে অর্থমন্ত্রী সীতারামান বলেন, "আমি সেবিকে বর্তমানের ঊর্ধ্বমুখী ত্রৈমাসিকে ২৫ শতাংশ থেকে ৩৫ শতাংশ বাড়ানোর কথা বিবেচনা করার কথা বলেছি"। আর এরপরেই সেদিন বিকেলে লেনদেনের পরিমাণ ৮৪৭ পয়েন্ট কমে গিয়ে ৩৮,৬৬৬ পয়েন্টে দাঁড়ায় এবং এনএসই নিফটি ৫০ ইনডেক্স কমে ২৬৮.৫ পয়েন্ট নেমে গিয়ে ১১,৬০০ এ গিয়ে দাঁড়ায়।

দুপুর ১:১২-র মধ্যে সেনসেক্স ৬৮২.০৩ পয়েন্ট বা ১.৭৩ শতাংশ হ্রাস পেয়ে ৩৮,৮৩১.৩৬ পয়েন্টে নেমে যায় এবং নিফটি ২১৭.৬০ পয়েন্ট বা ১.৮৪ শতাংশ হ্রাস পেয়ে ১১,৫৯৩.৫৫ তে নেমে যায়।

আইডিবিআই ক্যাপিটালের প্রধান গবেষক এ কে প্রভাকর টেলিফোনে জানান, "বৈদেশিক পোর্টফোলিও বিনিয়োগকারীদের এবং উচ্চ নেট মূল্যের ব্যক্তিদের জন্য বাজেটে প্রস্তাবিত উচ্চ করের ঘটনাগুলি বাজারকে ঘিরে রয়েছে।" তিনি বলেন, বাজেটে তালিকাভুক্ত সব কোম্পানির জন্য সর্বনিম্ন জনসাধারণের শেয়ারহোল্ডিং বাড়ানোর প্রস্তাবটি বাজারকে নেতিবাচকভাবে প্রভাবিত করছে।

বিশেষজ্ঞরা আরও জানান, তালিকাভুক্ত সংস্থাগুলিতে নতুন করের প্রভাব বিনিয়োগকারীদের অনুকূলে নয়। "তালিকাভুক্ত কোম্পানীর শেয়ারগুলি ফেরত নেওয়ার জন্য সরকার ২০ শতাংশ কর প্রস্তাব দিয়েছে।করটি পূর্বে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলিতে সীমিত ছিল এবং কর শেয়ারের প্রবর্তনের সাথে সাথে আবার কিনে নেওয়া হয়েছিল, বিনিয়োগকারীদের মনে হয়েছিল যে করের এই পরিবর্তন বিনিয়োগ সহায়ক নয়, এনডিটিভিকে জানিয়েছেন নবীন ওয়াধা।

পিএসইউ ব্যাঙ্ক সূচকের ৫.৫ শতাংশ অবনতির কারণে ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জের সব সেক্টরেই সংকট দেখা যায়, সমস্ত সেলস গেজ বিস্তৃতভাবে বিক্রি হয়ে যায়। রয়্যালটি, অটো, ব্যাংক, ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস, মিডিয়া ও প্রাইভেট সেক্টর ব্যাংকের গেজও ২ থেকে ৩ শতাংশের মধ্যে পড়ে।



Get Breaking news, live coverage, and Latest News from India and around the world on NDTV.com. Catch all the Live TV action on NDTV 24x7 and NDTV India. Like us on Facebook or follow us on Twitter and Instagram for latest news and live news updates.

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

Top