This Article is From Mar 06, 2020

করোনা ভাইরাসের আক্রমণে ধুঁকছে শেয়ার বাজার, ১,৩০০ পয়েন্ট নামল সেনসেক্স, নিফটির পতন ১১,০০০

Share Market: শেয়ার বাজারে পতন, BSE Sensex ১,৩০০ পয়েন্ট কমে গিয়ে ৩৭,১৮০ তে এসে দাঁড়িয়েছে, ওদিকে SGX Nifty ৩৮৫ পয়েন্ট কমে বর্তমানে হয়েছে ১০,৮৮১

করোনা ভাইরাসের আক্রমণে ধুঁকছে শেয়ার বাজার, ১,৩০০ পয়েন্ট নামল সেনসেক্স, নিফটির পতন ১১,০০০

Stock Market: বিএসইর সমস্ত বিভাগীয় সূচকগুলি শুক্রবার বাজার শুরুর সময় থেকেই বিপদসঙ্কেত দিচ্ছে

হাইলাইটস

  • করোনা ভাইরাসের জেরে প্রভাবিত বিশ্বের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি
  • ভারতীয় শেয়ার বাজারেও পড়েছে এই ভাইরাসের প্রভাব
  • বাজার খোলার সঙ্গেসঙ্গেই দেখা যায় ভারতীয় শেয়ার বাজারের সূচক নিম্নমুখী

করোনা ভাইরাস এবার থাবা বসিয়েছে শেয়ার বাজারেও। চিনে এই মারণ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর সেখান থেকে ধীরে ধীরে বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলিতেও সেটি ছড়িয়ে পড়ায় প্রভাব পড়েছে বিশ্ব অর্থনীতিতে। ভারতীয় শেয়ার বাজারেও (Share Market) করানো-প্রভাবে সূচক নিম্নমুখী। শুধু তাই নয়, অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন শেয়ার বাজারের সাম্প্রতিক এই মন্দা দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব ফেলবে ভারতীয় বাণিজ্যে। শুক্রবার বাজার খোলার সঙ্গে সঙ্গেই শেয়ার সূচকে পতন (Sensex Nifty) দেখা যায়, BSE Sensex ১,৩০০ পয়েন্ট কমে গিয়ে ৩৭,১৮০ পয়েন্টে এসে দাঁড়িয়েছে, ওদিকে SGX Nifty ৩৮৫ পয়েন্ট কমে বর্তমানে হয়েছে ১০,৮৮১ পয়েন্ট। পাশাপাশি বিএসইর মিডক্যাপ সূচক ৫৬৮ পয়েন্ট বা ৩.৯ শতাংশ কমে ১৪,০০২ পয়েন্টে স্থির হয়েছে এবং বিএসইয়ের স্মার্টক্যাপ সূচক ৪২৬ পয়েন্ট বা ৩.১ শতাংশ হ্রাস পেয়ে ১৩,১৬৪ এ এসে দাঁড়িয়েছে। বিএসইর সমস্ত বিভাগীয় সূচকগুলি আজ (শুক্রবার) বাজার শুরুর (Stock Market) সময় থেকেই বিপদসঙ্কেত দিচ্ছে।

দিল্লিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত আরও ১, সব মিলিয়ে ৩০, আতঙ্কে বন্ধ স্কুল: ১০ তথ্য

করোনা ভাইরাসের প্রভাব হ্রাসের কোনও লক্ষণ এই মুহূর্তে দেখা যাচ্ছে না, আন্টার্কটিকা ছাড়া সমস্ত মহাদেশের ৬০ টিরও বেশি দেশে এই ভাইরাসের প্রভাব পড়েছে। বিশ্ব জুড়ে আক্রান্ত প্রায় ৯৫,০০০ মানুষ এবং ভারতে এখনও পর্যন্ত ৩০ জনের শরীরে এই মারণ ভাইরাসের বাসা বাঁধার প্রমাণ মিলেছে। ফলে আতঙ্কে ভুগছে দেশবাসী।

ইউরোপের দেশগুলিতেও ক্রমশই সংক্রমণ বাড়ছে করোনা ভাইরাসের। ইতালিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে বেশ কয়েকজনের। ইরানেও আক্রান্ত বহু মানুষ, মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ১০০ জনের। এই পরিস্থিতিতে বিশ্ব বাজারের গতিবিধি নিম্নমুখী। এর জেরেই শুক্রবার গোটা বিশ্বের শেয়ার বাজারেও দেখা যায় বড়সড় পতন। বিশ্ব অর্থনীতি নিয়ে উদ্বিগ্ন বিশেষজ্ঞ থেকে সাধারণ মানুষ।

ইপিএফের সুদের হার ৮.৬৫% কমে হল ৮.৫০%, প্রভাব পড়বে ৬ কোটি কর্মচারীর উপর

যেভাবে চিনে করোনা ভাইরাস মহামারীর রূপ নিয়েছে তাতে সেখানকার পর্যটন শিল্পের পাশাপাশি এই ভাইরাসের জেরে বন্ধ হয়ে গিয়েছে চিনের আমদানি রফতানি বাণিজ্যও। এর জেরে এই অঞ্চলের অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে বিস্তর। যদি আগামী কয়েক সপ্তাহে চিনের উহান শহরে এই মহামারী নিয়ন্ত্রণ না করা যায় তবে বিশ্ব অর্থনীতিতে বড় ধস নামবে বলেই আশঙ্কা অর্থনীতিবিদ ও বিশেষজ্ঞদের৷