করোনার ধাক্কায় বেতনে কোপ রিলায়েন্সে, বেতন নেবেন না মুকেশ আম্বানি

তবে ১৫ লক্ষ টাকার নীচে বার্ষিক রোজগার যাঁদের, তাঁদের বেতন কেটে নেওয়া হবে না। মুকেশ আম্বানি জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি কোনও বেতন নেবেন না।

করোনার ধাক্কায় বেতনে কোপ রিলায়েন্সে, বেতন নেবেন না মুকেশ আম্বানি

মুকেশ আম্বানি জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি কোনও বেতন নেবেন না।

করোনার (Coronavirus) প্রকোপ এবার রিলায়েন্স (Reliance Industries) কর্মীদের বেতনেও। ২৯ এপ্রিল সংস্থার এক নোটে জানানো হয়েছে, কর্মীদের বেতন (Salary) ৫০ শতাংশ পর্যন্ত কেটে নেওয়া হবে। করোনা অতিমারীর ধাক্কায় লভ্যাংশ কমে যাওয়াতেই এমন সিদ্ধান্ত নিল এই সংস্থা। সংস্থার কর্ণধার ভারতের ধনীতম ব্যক্তি মুকেশ আম্বানি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বার্ষিক ১৫ লক্ষ টাকা বা তার বেশি বেতন যাঁরা পাচ্ছেন, তাঁদের ১০ শতাংশ বেতন কাটা হবে। সিনিয়র এগজিকিউটিভদের বেতন ৩০ শতাংশ থেকে ৫০ শতাংশ কেটে নেওয়া হবে।

তবে ১৫ লক্ষ টাকার নীচে বার্ষিক রোজগার যাঁদের, তাঁদের বেতন কেটে নেওয়া হবে না। মুকেশ আম্বানি জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি কোনও বেতন নেবেন না।

সংস্থার এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর আর মেসওয়ানি একটি পত্রে জানিয়েছেন, ‘‘হাইড্রোকার্বনের ব্যবসায় প্রভাব পড়েছে চাহিদা কমে যাওয়ায়। এবং পেট্রোকেমিক্যালেও... পরিস্থিতির দাবি এমনই ছিল যে আমরা খরচের দিকটি বজায় রাখি।'' তিনি ওই চিঠিতে সকলকে এই পরিস্থিতিতে সংস্থার জন্য অবদান রাখার কথা বলেন।

পাশাপাশি রিলায়েন্সে্র তরফে বার্ষিক বোনাস ও অন্যান্য ইনসেনটিভও বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

সংস্থার ত্রৈমাসিক হিসেবও বৃহস্পতিবারই প্রকাশ করা হবে। পাশাপাশি জানানো হয়েছে, প্রায় তিরিশ বছর পর সংস্থার পক্ষ থেকে এই প্রথম রাইট ইস্যু করা হবে। ২০২১ মার্চের হিসেবে ঋণের পরিমাণ হ্রাস করতেই এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গত বছরের শেষে সংস্থার ঋণ ছিল ৪৩ বিলিয়ন ডলার।