RBI Monetary Policy: রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখলো আরবিআই

Repo Rate Unchanged: রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ছয় সদস্যের মুদ্রা নীতি কমিটি তিন দিনের বৈঠকের পর রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখার ঘোষণা করেছে, ফলে রেপো রেট ৪% রইলো

RBI Monetary Policy: রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখলো আরবিআই

RBI Economic Policy: রেপো রেট ৪ শতাংশ রাখারই ঘোষণা করলেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস

হাইলাইটস

  • রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখলো রিজার্ভ ব্যাঙ্ক
  • বর্তমানে রেপো রেট হলো ৪ শতাংশ
  • বৃহস্পতিবার আরবিআইয়ের তরফ থেকে ঘোষণা করেন শক্তিকান্ত দাস
নয়া দিল্লি:

করোনা ভাইরাস মহামারী রূপে দেখা দেওয়ায় গোটা বিশ্বের মতো ভারতের অর্থনৈতিক অবস্থাও টালমাটাল। এই পরিস্থিতিতে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের (RBI) ছয় সদস্যের মুদ্রা নীতি কমিটি (RBI Monetary Policy) তিন দিনের বৈঠকের পর রেপো রেট অপরিবর্তিত (Repo Rate Unchanged) রাখার ঘোষণা করেছে। ফলে রেপো রেট আগের মতো ৪% রইলো। ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস জানিয়েছেন যে, অনেক আলাপ আলোচনার পর সিদ্ধান্ত (RBI Economic Policy) নেওয়া হয়েছে যে এবার রেপো রেটে কোনও পরিবর্তন করা হবে না। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর শক্তিকান্ত দাসের মতে, দেশের গড় অর্থনৈতিক বৃদ্ধি অর্থাৎ জিডিপির অবস্থাও খুব একটা ভালো নয়। আরবিআইয়ের গভর্নর জানিয়েছেন যে মূল জিডিপি প্রথম প্রান্তিকে খুবই প্রান্তিক অবস্থায় থাকবে। তিনি বলেন যে ২০২১-২২ সালেও জিডিপির অবস্থায় খুব বেশি পরিবর্তন আসবে না।

পাশাপাশি ভারতে যেভাবে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে তা নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করতে দেখা যায় আরবিআইয়ের সর্বেসর্বাকে। শক্তিকান্ত দাস বলেন, কোভিডের ফলে সারা বিশ্বেই অর্থনৈতিক গতি হ্রাস পেয়েছে। পাশাপাশি এই সময়ে, কোভিড -১৯ কে রুখতে যে লকডাউন করা হচ্ছে তার ফলেও ভারতে অর্থনৈতিক বৃদ্ধির সম্ভাবনা ক্রমশই কমে যাচ্ছে। 

রেপো রেট অর্থাৎ যে হারে আরবিআই বাণিজ্যিক ব্যাঙ্কগুলোকে স্বল্পমেয়াদী ঋণ দেয় সেটি অপরিবর্তিত থাকার পাশাপাশি একই রয়েছে রিভার্স রেপো রেটও। রিভার্স রেপো রেট হলো যে হারে আরবিআই ঋণ নেয়, এটির বর্তমান হার হলো ৩.৩৫ শতাংশ।

যদিও রিজার্ভ ব্যাঙ্কের মুদ্রা নীতি কমিটির রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখার এই সিদ্ধান্ত মিললো না আগাম সমীক্ষাগুলোর প্রত্যাশার সঙ্গে। সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের এক সমীক্ষায় দুই-তৃতীয়াংশ অর্থনৈতিক বিশ্লেষকই আশা করেছিলেন যে এবার আরবিআই রেপো রেট আরও ২৫ বেসিস পয়েন্ট কমাবে। কিন্তু বাস্তবে তা হলো না। কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কটি গত ফেব্রুয়ারি থেকে এপর্যন্ত মোট ১১৫ বেসিস পয়েন্ট রেপো রেট কমিয়েছে।