কর প্রদান আরও সরলীকরণ করতে নয়া প্ল্যাটফর্মের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

Transparent Taxation - Honoring The Honest: সৎ করদাতাদের সম্মান জানাতেই এই উদ্যোগ, বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

কর প্রদান আরও সরলীকরণ করতে নয়া প্ল্যাটফর্মের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

PM Modi: করদানের সুবিধার জন্য চালু হলো নয়া প্রকল্প, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

হাইলাইটস

  • দেশের সৎ করদাতাদের সুবিধায় নতুন প্রকল্পের উদ্বোধন
  • বৃহস্পতিবার একটি নতুন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি
  • এর ফলে করব্যবস্থায় আরও সরলীকরণ এলো

"ভারতের কর ব্যবস্থার সংশোধন ও সরলীকরণ" করে দেশের মানুষের কর প্রদান পদ্ধতিকে আরও সহজ করে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Modi)। "ট্রান্সপারেন্ট ট্য়াক্সেশান-অনারিং দ্য় অনেস্ট" বা "স্বচ্ছ কর ব্যবস্থা, স্বচ্ছ করদাতাদের সম্মান" (Transparent Taxation - Honoring The Honest) নামে একটি নতুন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন তিনি। কর (Income Tax) প্রদানে এই স্বচ্ছতা আসলে দেশের সৎ করদাতাদের সম্মান জানানোরই একটি প্রক্রিয়া, একথাও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বৃহস্পতিবার এই প্রকল্পের উদ্বোধন করে আরও বলেন, "দেশের সৎ করদাতারা সবসময়ই দেশ গঠনে একটি বড় ভূমিকা পালন করেছেন ... আজ এই নয়া  সুযোগ-সুবিধাগুলো ওই সৎ করদাতাদের সম্মান জানানোর জন্য়ই, তাঁদের জন্যই সরকারের তরফে এই উদ্যোগ।" প্রধানমন্ত্রী বলেন, "করবিভাগের সব কর্মী ও আধিকারিকদের শুভ কামনা জানিয়ে আমি এই নয়া ব্যবস্থার উপর থেকে পর্দা উন্মোচন করছি। এই নতুন ব্যবস্থার মাধ্যমে করদানে জটিলতা আরও কমবে। করদাতাদের সুবিধা হবে এই প্ল্যাটফর্মে। করদাতাদের সুবিধার্থে সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ডিরেক্টর ট্যাক্সেস আরও পদক্ষেপ নেবে। এই পদক্ষেপ ভারতের উন্নয়নে একটি বড় পদক্ষেপ। কেন্দ্রের এই পদক্ষেপে করব্যবস্থায় স্বচ্ছতা আসবে।"

"নতুন করব্যবস্থার সুফল পাচ্ছেন দেশবাসী। ভারতের কর ব্যবস্থার পুনর্গঠন প্রয়োজনীয় ছিল। করোনার এই সংকট মুহূর্তে ভারতে রেকর্ড সংখ্যক বিদেশি বিনিয়োগ এসেছে। তাই কর ব্যবস্থায় আরও স্বচ্ছতা আনতে চায় কেন্দ্র। এই প্লাটফর্ম চালু করা হল কর সংস্কারের যাত্রাকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে। সৎকরদাতারা দীর্ঘদিন ধরে প্রতারিত হয়েছেন", একথাও বলেন প্রধানমন্ত্রী।

বুধবারই কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রক জানায় যে, আয়কর দফতর গত কয়েক বছরে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সংস্কার করেছে। কর্পোরেট করের হার ৩০ থেকে ২২ শতাংশে নামানো হয়েছে। নতুন কারখানার ক্ষেত্রে কর কমিয়ে করা হয়েছে ১৫ শতাংশ। কর ব্যবস্থায় স্বচ্ছতা আনতেও একগুচ্ছ পদক্ষেপ করা হয়েছে।