এই সমস্ত কারণে ইপিএফও-র টাকা তোলা যায়

ইপিএফও হল সরকার পরচালিত পেনশন স্কিম। এই স্কিমের সুদের হার ৮.৬৫ শতাংশ। আগেরবার এই সুদের পরিমাণ ছিল ৮. ৫৫ শতাংশ।

এই সমস্ত কারণে ইপিএফও-র টাকা তোলা যায়

কোনও কর্মী যদি দুমাস বেকার থাকেন তাহলে  তিনি ইপিএমফও–র পুরো টাকাটাই তুলতে পারেন।

ইপিএফও হল সরকার পরচালিত পেনশন স্কিম। এই স্কিমের সুদের হার ৮.৬৫ শতাংশ। আগেরবার এই সুদের পরিমাণ ছিল ৮. ৫৫ শতাংশ। ২০ জন কর্মী আছেন এমন সমস্ত সংস্থাকেই ইপিএফও-র সুবিধা দিতে  হয়। অন্য কয়েকটি কারণের সঙ্গেই কোনও কর্মী যদি দুমাস বেকার থাকেন তাহলে  তিনি ইপিএমফও–র পুরো টাকাটাই তুলতে পারেন।

বৈবাহিক কারণ  

 একজন কর্মী ইপিএফও-র মোট জমার  ৫০ শতাংশ বিয়ের জন্য তুলতে পারেন। নিজের পাশাপাশি ছেলে অথবা মেয়ের বিয়েতে খরচের জন্য এই টাকা তোলা যায়।    

 শিক্ষা

 কর্মীর সন্তানদের জন্য মাধ্যমিক পরবর্তী শিক্ষা চালিয়ে নিয়ে যেতে তিন খেপে মোট  জমার  ৫০ শতাংশ তোলা যায়। তবে  তার জন্য চাকরির মেয়াদ সাত বছরের বেশি হতে হবে।          EPFO withdrawal rules, EPFO account, EPFO partial withdrawal, EPFO advance, EPFO money withdrawal, EPFO money withdraw, withdraw EPFO money, withdraw EPFO  account, advance EPFO, EPFO advance, EPFO advance withdrawal

 

এ ধরনের কয়কেটি  কারণে ইপিএফও-র টাকা  তোলা যায়।   

 
সম্পত্তি কিনতে

কোনও কর্মী পাঁচ বছর চাকরি হয়ে যাওয়ার পর বাড়ি বা ফ্ল্যাট কেনার  জন্য ইপিএফও- তে থাকা টাকা ব্যবহার করতে পারেন। সেক্ষেত্রে কর্মীর ৩৬ মাসের  মূল বেতন যা হয় সেই পরিমাণ টাকা  পাওয়া  যেতে পারে। আর বাড়ি  তৈরির জন্য  জমি কিনলে পাওয়া  ২৪ মাসের মূল বেতনের সমান টাকা।              

 গৃহঋণ মেটাতে    

১০ বছর চাকরি হয়ে গেলে মূল বেতনের ৩৬ মাসের সমান টাকা পাওয়া যায় গৃহ ঋণ শোদ করতে।         

 
More News