Profit
হোম | অধুনা

অধুনা

  • CornaVirus-এর আতঙ্কে সেনসেক্স সূচক পড়ল ৪৬৪ পয়েন্ট
    চিনা ভাইরাসের  (Corona Virus) 'ছোবলে' ৪৬৪ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স (Sensex)। সোমবার বাজার বন্ধের সময় বিএসই সূচক ছিল; ৪১, ১৫৫ পয়েন্ট।
  • Budget 2020: নির্বাচনে বড় জয়ের পাল্টা উপহার বাজেটেই দিতে চলেছে মোদি সরকার?
    আর মাত্র কয়েকটা দিন। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি এই বছরের কেন্দ্রীয় বাজেট (Budget 2020) পেশ করবেন কেন্দ্রীয় অর্থনীতি নির্মলা সীতারামন। ২০১৯ সালেই ফের একবার বিপুল ভোটে জয়ী করে মোদি সরকারকে (PM Modi) ফিরিয়ে এনেছে দেশের জনতা। এবার তাই আসন্ন বাজেটে (Union Budget) সাধারণ মানুষের মন জিতে ওই বিরাট জয়ের প্রতি উপহার ফিরিয়ে দিতে চাইবেন মোদি মন্ত্রিসভার অর্থমন্ত্রী (Nirmala Sitharaman) , এমনটাই মনে করছেন অনেকে। স্বভাবতই আসন্ন বাজেট (Budget) ঘিরে বাড়ছে প্রত্যাশার পারদ। সামগ্রিকভাবে দেশের অর্থনীতির হাল খারাপ। গাড়ি শিল্প সহ দেশের বিভিন্ন শিল্পে নিম্নমুখী প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। এখনও পর্যন্ত ২৯ টি সংস্থা জানিয়েছে তাদের মোট আয়ের বৃদ্ধি আরও কমে গেছে, গত বছর যেখানে লাভের পরিমাণ ৮% ছিল সেখানে বর্তমানে তা কমে মাত্র ৭% হয়েছে। পাশাপাশি সামগ্রিক লাভের পরিমাণও ১.৩% হ্রাস পেয়েছে। এদিকে গ্রাহক মুদ্রাস্ফীতির হার গত সাড়ে ছয় বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম হয়ে সর্বনিম্ন ৪.৫%-এ এসে দাঁড়িয়েছে। এর থেকে ঘুরে দাঁড়াতে কেন্দ্রীয় সরকার বিনিয়োগ বাড়ানোর উপর জোর দিচ্ছে। কিন্তু তার জন্যে দেশের কর আদায়ের (Income Tax) পরিমাণ আরও বাড়াতে হবে। তাই মোদি সরকারের সামনে এখন দুটি বড় চ্যালেঞ্জ রয়েছে, একটি হল ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতি এবং সামগ্রিক বৃদ্ধি হ্রাস থেকে ঘুরে দাঁড়ানো।
  • EPFO: চাকরিজীবীদের জন্যে সুখবর, এখন ইপিএফের টাকা তোলা এবং স্থানান্তরকরণ আরও সহজ
    পুরনো সংস্থার চাকরি ছেড়ে দিয়ে অন্য সংস্থায় গেলে অনেক সময়ই কর্মচারী প্রভিডেন্ট ফান্ডে গচ্ছিত অর্থ ট্রান্সফার বা টাকা তোলা নিয়ে চিন্তায় থাকেন মানুষজন
  • Budget 2020: ভারতীয় রেলে সর্বাধিক বরাদ্দের প্রত্যাশায় বিশেষজ্ঞরা
    ২০১৬ সালের আগে, ভারতে কেন্দ্রীয় বাজেট এবং রেল বাজেট (Rail Budget) আলাদা আলাদা দিনে পেশ করা হত। ৯২ বছরের এই ঐতিহ্যকে বাতিল করে কেন্দ্রীয় বাজেটের মধ্যেই রেল বাজেটকে অন্তর্ভুক্ত করেন তৎকালীন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি, তাঁর আমলেই রেল বাজেট সাধারণ বাজেটের সঙ্গে একযোগে পেশ করা শুরু হয়। সেই রীতি মেনেই আগামী ১ ফেব্রুয়ারি সংসদে পেশ হতে চলেছে কেন্দ্রীয় বাজেট (Budget 2020)।
  • Union Budget 2020: বাজেটের সব খবর সরাসরি, কখন, কোথায়, কীভাবে দেখবেন?
    সংসদে আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ২০২০-২১ অর্থবছরের কেন্দ্রীয় বাজেট (Budget 2020) পেশ করবেন নির্মলা সীতারামন, এই বাজেট কেমন হতে চলেছে জানতে আগ্রহী সকলে। তবে বাজেট পেশের আগের দিন সংসদে একটি অর্থনৈতিক সমীক্ষা উপস্থাপন করা হবে।
  • ভারতে প্রায় প্রতি ৪ জন স্নাতকের ১ জন চাকরি খুঁজছে, দাবি রিপোর্টের
    ভারতের বর্তমান বেকারত্বের হার (Unemployment Rate Of India) ৭.৫ শতাংশ। ‘সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকনমি’ তথা সিএমআইই তেমনটাই জানাচ্ছে। স্নাতকদের (Graduates) ক্ষেত্রে বেকারত্বের হার ১৮.৫ শতাংশ। ২০১৯-এর শেষে প্রাপ্ত তথ্য থেকেই তেমনটা জানাচ্ছে সিএমআইই। সামগ্রিক হারের দ্বিগুণ এই হার। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর থেকে ডিসেম্বরের মধ্যে ১.৭৪ লক্ষ পরিবারে সমীক্ষা চালানো হয়েছে। ওই রিপোর্ট থেকে জানা যাচ্ছে, ভারতের শহরাঞ্চলে বেকারত্বের হার অভাবনীয় ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। গ্রামীণ ভারতে যেখানে বেকারত্বের হার ৬.৮ শতাংশ, সেখানে ভারতের শহরাঞ্চলে বেকারত্বের হার ৯ শতাংশ। মহিলাদের মধ্যে বেকারত্বের হার ১৭.৫ শতাংশ। পুরুষদের মধ্যে ওই হার ৬.২ শতাংশ। গ্রামের মহিলাদের মধ্যে বেকারত্বের হার ২৬ শতাংশ! // সংস্থার সিইও মহেশ ব্যাস NDTV-কে বলেন, ‘‘ভারতের সামগ্রিক বেকারত্বের হার ৭.৫ শতাংশ। এর থেকে বোঝা যায় তরুণ স্নাতকদের জন্য পর্যাপ্ত কাজের অভাব থাকাটাই আসল সমস্যা।’’
  • চলতি অর্থবর্ষে আরও কমে ৪.৮% হবে ভারতের বৃদ্ধি: IMF-এর পূর্বাভাস
    মুলত, নন-ব্যাঙ্কিং অর্থক্ষেত্রের স্বল্প ব্যবহার আর গ্রামীণ আয়ের হার (4.8%) কমে যাওয়া-- এই দুটি বিষয়কে বৃদ্ধি কমার পেছনে দায়ী করেছে আইএমএফ।
  • Budget 2020: এক ঝলকে দেখে নিন গত কয়েকটি বাজেটের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য
    ২০১৬ পর্যন্ত, ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ কাজের দিনে সকাল ১১ টায় বাজেট পেশ হতো। ২০১৭ সালে সেই প্রথা বিলোপ করেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি।সে বছর থেকে প্রয়াত এই বিজেপি নেতা অর্থমন্ত্রী হিসেবে পয়লা ফেব্রুয়ারি বাজেট পেশ করা শুরু করেন। ২০১৬ অবধি কেন্দ্রীয় বাজেটের দিন দুই আগে পৃথক ভাবে রেল বাজেট পেশ করা হতো। কিন্তু ৯২ বছরের পুরনো সেই প্রথা ভাঙে ২০১৭ সালে। সে বছর থেকে এক সঙ্গেই রেল ও কেন্দ্রীয় বাজেট পেশ করা হয়।
  • Budget 2020: তিনশোর বেশি পণ্যের শুল্ক বাড়তে পারে কেন্দ্রীয় বাজেটে
    ক্ষুদ্র শিল্পকে স্বস্তি দেওয়া ও কর্মসংস্থান বাড়ানোর পাশাপাশি আমদানি হ্রাস ও রাজস্ব বাড়ানোর জন্যও এই পদক্ষেপ করা হতে পারে।
  • Budget 2020: আসন্ন বাজেটে বিলগ্নিকরণ থেকে ১ লক্ষ কোটি টাকা ঘরে তোলার লক্ষ্য থাকবে
    এমনতিতেই অর্থনৈতিক মন্দায় ভুগছে দেশ, সেই সময় আসন্ন বাজেটে (Budget 2020) বিলগ্নিকরণের লক্ষ্যমাত্রা প্রায় একই রাখার পথে হাঁটতে পারেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন, এমনটাই মনে করছেন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................