করোনা লকডাউনের জের? ডলারের তুলনায় টাকার দাম কমে হল ৭৫.৭৬ টাকা

INR vs USD: মঙ্গলবার এক মার্কিন ডলারের তুলনায় টাকার দাম ছিল ৭৫.৬৩ টাকা

করোনা লকডাউনের জের? ডলারের তুলনায় টাকার দাম কমে হল ৭৫.৭৬ টাকা

Rupee Vs Dollar: চলতি বছরে ডলারের বিপরীতে টাকার দাম মোট ৬.১৭% হ্রাস পেয়েছে

হাইলাইটস

  • দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণকে রুখতে টানা লকডাউন চলছে
  • এরই প্রভাব পড়েছে দেশীয় অর্থনীতিতে, কমেছে টাকার দাম
  • বুধবার ডলারের তুলনায় টাকার দাম হল ৭৫.৭৬ টাকা

করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) সংক্রমণ রুখতে দেশে টানা লকডাউন চলছে। এই লকডাউনের প্রভাব পড়েছে দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতেও। বুধবার বাজার খোলার সঙ্গে সঙ্গে মার্কিন ডলারের তুলনায় হুৃ-হু করে কমে যায় ভারতীয় টাকার দাম (INR vs USD)। এক ধাক্কায় ১৭ পয়সা অর্থাৎ ০.২২ শতাংশ কমে যায় ভারতীয় টাকার দাম। বুধবারের বাজারের প্রথম দিকে টাকার দাম (Rupee Dollar) দাঁড়ায় ১ ডলার =৭৫.৮০ টাকা। তবে এরপরে বাজার একটু ঘুরলে অল্প হলেও বাড়ে ভারতীয় টাকার দাম। শেষপর্যন্ত মার্কিন মুদ্রার বিপরীতে ভারতীয় মুদ্রার মূল্য দাঁড়ায় ৭৫.৭৬ টাকা। হয়েছে। মঙ্গলবার এক মার্কিন ডলারের তুলনায় ভারতীয় টাকার দাম ছিল ৭৫.৬৩ টাকা। শুধু ভারতই নয়, গোটা বিশ্বই ভুগছে অর্থনৈতিক মন্দায়। তবে এদেশে এতদিন ধরে সমস্ত উৎপাদন ও ব্যবসায়িক লেনদেন বন্ধ থাকায় বড়সড় প্রভাব পড়েছে ভারতীয় অর্থনীতিতে। জানা গেছে, চলতি বছরে ডলারের বিপরীতে টাকার দাম মোট ৬.১৭% হ্রাস পেয়েছে।

বুধবার দেশের অভ্যন্তরীণ শেয়ার বাজারের সূচকগুলিও লাগাতার ওঠানামা করে। কারণ দেখা যায় দেশের অটোমোবাইল বাণিজ্য সহ বিভিন্ন দিকে গ্রাহকরা বিনিয়োগে আগ্রহ হারাচ্ছেন। 

সরকার ভ্যাট বাড়ানোয় বাড়ল পেট্রোল-ডিজেলের দাম

বুধবার সকাল ১০:৩৫ এ দেখা যায় S&P BSE Sensex সূচক ৩২১.৪৩ পয়েন্ট বা ১.০২ শতাংশ লেনদেন করে - ৩১,৭৭৪.৯৪ পয়েন্টে এসে পৌঁছয়, ওদিকে NSE Nifty 50 এর বেঞ্চমার্ক ৯৪.৪০ পয়েন্ট অর্থাৎ (১.০৩ শতাংশ) বেড়ে পৌঁছয় ৯,৩০০.০০ পয়েন্টে।

বিদেশি মুদ্রার ব্যবসায়ীরা জানাচ্ছেন, ভারত এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, দুই দেশেই বাড়ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। ফলে বিনিয়োগকারীরা ঝুঁকি নিতে সাহস পাচ্ছেন না। ফলে ডলারের তুলনায় টাকার দাম কমে চলেছে।

অর্থনীতিবিদদের একাংশের মতে, এশিয়া প্যাসেফিক অঞ্চলের অর্থনীতি রীতিমতো ঝুঁকির মুখে পড়েছে করোনা ভাইরাস আরও ছড়িয়ে পড়ায়৷

কলকাতায় ভর্তুকিহীন গ্যাসের দাম কমল সিলিন্ডার পিছু ১৯০ টাকা

ভারতে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে গত ২৫ মার্চ লকডাউন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তারপর থেকে এই নিয়ে দু'বার বাড়ল লকডাউনের মেয়াদ। তবু দেশে ওই মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ আটকানো যাচ্ছে না। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের বুধবারের পরিসংখ্যান অনুসারে ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ১,৬৯৪ জন মানুষ এবং গোটা দেশে এখনও পর্যন্ত ৪৯,৩৯১ টি কোভিড-১৯ পজিটিভ কেস পাওয়া গিয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২,৯৫৮ টি নতুন ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে এবং ১২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশে সফলভাবে এই অসুখের সঙ্গে লড়াই করে সেরে ওঠা রোগীদের সংখ্যা আজ, বুধবার সকালে ২৮.৭১ শতাংশে এসে দাঁড়িয়েছে। এখনও পর্যন্ত মোট ১৪,১৮৩ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন।