ডলারের তুলনায় আরও কমল টাকার দাম, ৯ মাসে সর্বনিম্ন: দেখুন ১০ টি তথ্য

Dollar vs Rupee: ৫ অগাস্টের পরে ভারতীয় টাকার দামের সর্বনিম্ন পতন হল। অর্থনৈতিক মন্দার প্রভাবে মাথায় হাত অর্থনীতিবিদদের।

ডলারের তুলনায় আরও কমল টাকার দাম, ৯ মাসে সর্বনিম্ন: দেখুন ১০ টি তথ্য

Dollar vs Rupee: গত শুক্রবার ডলারের তুলনায় টাকার দাম দুই সপ্তাহের মধ্যে শীর্ষে ৭১.৪২ টাকা হয়েছিল

মঙ্গলবার ডলারের বিপরীতে ভারতীয় টাকার (INR vs USD) দাম ৯৭ পয়সা বা ১.৩৫ শতাংশ হ্রাস পায়। বাজার খোলার সময় টাকার দাম ৭২ টাকা থাকলেও পরে তার পতন ঘটে, এবং মার্কিন ডলারের তুলনায় ভারতীয় টাকার দাম (rupee rate against dollar) কমে দাঁড়ায় ৭২ টাকা ৪০ পয়সায়। পরে যদিও দাম ১ পয়সা বৃদ্ধি পাওয়ায় বর্তমানে টাকার দাম ডলারের তুলনায় এসে দাঁড়িয়েছে ৭২ টাকা ৩৯ পয়সায়। ৫ অগাস্টের পরে একদিনে ভারতীয় টাকার দামের সর্বনিম্ন পতন হল। পাশাপাশি ১৩ নভেম্বর, ২০১৮ সালের পর টাকার দাম সর্বনিম্ন সমাপ্তির স্তর হিসাবে চিহ্নিত হয়েছে। দেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক মন্দা ও দেশীয় শেয়ার বাজারের লাগাতার পতন টাকার দাম কমার অন্যতম কারণ বলে মনে করা হচ্ছে। অথচ গত শুক্রবারই ডলারের তুলনায় টাকার দাম (rupee doller) দুই সপ্তাহের মধ্যে শীর্ষে ৭১.৪২ টাকা হয়েছিল। সোমবার গণেশ চতুর্থীর কারণে বৈদেশিক মুদ্রার বাজার বন্ধ ছিল। মঙ্গলবার বাজার খোলার পরেই টাকার দামের ওই পতন দেখা যায়।

ডলারের তুলনায় টাকার দাম সংক্রান্ত বিষয়ে রইল ১০ টি তথ্য:

  1. শুক্রবার প্রকাশিত সরকারি তথ্যে দেখা গেছে যে জুনের ত্রৈমাসিকে দেশের জিডিপি বৃদ্ধির হার ছয় বছরে সর্বনিম্ন পাঁচ শতাংশে নেমে গেছে। আর তার ফলেই দেশীয় মুদ্রার উপর প্রভাব পড়েছে বলে জানিয়েছেন অর্থনৈতিক বিশ্লেষকরা।
     

  2. এইচডিএফসি সিকিউরিটিজ তথা পুঁজিবাজারের কৌশলগত প্রধান ভি কে শর্মার বিবৃতি উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, "গাড়ি শিল্পে উৎপাদন কমে যাওয়ায় তার প্রভাব পড়ে জিডিপিতে।  দেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক ওই মন্দার কারণেই ডলারের তুলনায় টাকার দাম ফের কমে যায়" । আইএইচএস মার্কিট ইন্ডিয়া ম্যানুফ্যাকচারিং পারচেজিং ম্যানেজারস সূচক (পিএমআই) দেখিয়েছে যে দেশের উৎপাদন খাতের কার্যক্রম অগাস্টে গত ১৫-মাসের মধ্যে সর্বনিম্নে চলে গেছে।
     

  3. অর্থনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, এর ফলে টাকার তুলনায় শক্তিশালী ডলার ভারতীয় টাকার দামকেও আরও নিচে টেনে নামিয়েছে। গ্রিনব্যাকের শক্তি নির্ধারণকারী ডলারের সূচকটি ০.৩৬ শতাংশ বেড়ে ৯৯.২৭ এ দাঁড়িয়েছে।
     

  4. অপরিশোধিত তেলের দাম কমে যাওয়া সত্ত্বেও ক্রমবর্ধমান আমেরিকা-চিন বাণিজ্য যুদ্ধ এবং ব্রেক্সিটের আশঙ্কাও দেশীয় মুদ্রাকে টেনে নামায়, প্রভাব ফেলে টাকার দামের উপর। "ইউএস-চিন বাণিজ্য রেষারেষির কারণ এবং দেশের গত ত্রৈমাসিকের জিডিপি তথ্য টাকার দামের এই পতনের দিকে নিয়ে যায়," বলেন অ্যাঞ্জেল ব্রকিংয়ের গবেষণা বিশ্লেষক ভকরজাভেদ খান ।
     

  5. বিশ্লেষক ভকরজাভেদ খান আরও যোগ করেন, "২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও চিনের মধ্যে বাণিজ্য যুদ্ধ আরও বাড়লে এবং ভারতীয় শেয়ার বাজারে  বৈদেশিক প্রবাহ অব্যাহত থাকলে টাকার দাম ৭৩.৫-এও নেমে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।"

  6. আমেরিকা কোটি কোটি ডলার চিনা পণ্যের উপর নতুন শুল্ক আরোপ কার্যকর করার পরে চিন জানায় যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ওয়ার্ল্ড ট্রেড অর্গানাইজেশন কাছে তাঁরা অভিযোগ করেছে। 
     

  7. এদিকে, বিদেশি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা (এফআইআই) মূলধন বাজারে নিট বিক্রয়কারী হিসাবে রয়েছেন। মঙ্গলবার এনএসইর অস্থায়ী তথ্য অনুযায়ী যা ২,০১৬ কোটি টাকা।
     

  8. দেশের জিডিপি অর্থাৎ মোট অভ্যন্তরীণ উৎপাদন ৫ শতাংশে নামার পরেই এক ধাক্কায় সেনসেক্স পড়ে ৭৭০ পয়েন্ট। মঙ্গলবার দিনের শেষে ৩৬৫৬৩-এ এসে দাঁড়ায় সেনসেক্স। শুধু সেনসেক্সই নয়, নিফটির অঙ্কও ২২৫ পয়েন্ট কমে এসে দাঁড়ায় ১০৭৯৮ পয়েন্টে।
     

  9. বিশ্বব্যাপী অপরিশোধিত তেলের দাম প্রতি ব্যারেল ১.৫৫ শতাংশ হ্রাস পেয়ে ৫৭.৭৫ ডলারে দাঁড়িয়েছে।
     

  10. শুক্রবার দশ বছরের সরকারি বন্ডের উৎপাদন ছিল ৬.৫২ শতাংশ।



More News