আয়করে ছাড় দিতে পারে সরকার, বদলাতে পারে ধাপও

আগামী ফেব্রুয়ারিতে কেন্দ্রীয় বাজেটের সময় এব্যাপারে ঘোষণা হতে পারে।

আয়করে ছাড় দিতে পারে সরকার, বদলাতে পারে ধাপও

আগামী ফেব্রুয়ারিতে কেন্দ্রীয় বাজেটের সময় এব্যাপারে ঘোষণা হতে পারে।

আয়করে (Income Tax) ছাড় দেওয়ার ব্যাপারে চিন্তাভাবনা করছে কেন্দ্রীয় সরকার (Central Government)। আশা, এর ফলে ক্রেতাদের খরচ বাড়বে। যা অর্থনীতিকে (Echonomy) চাঙ্গা করবে। সংশ্লিষ্ট ব্যাপারের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত ব্যক্তির সূত্রে এই কথা জানা গিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ন‌রেন্দ্র মোদি সরকার রোজাগারের ক্ষেত্রে আয়করের সীমা নিয়ে চিন্তাভাবনা করছে। বিশেষ ১০ লক্ষ টাকার স্ল্যাবটি নিয়ে ভাবা হচ্ছে। এই মুহূর্তে ওই ক্ষেত্রে হার ৩০ শতাংশ। তবে ওই ব্যক্তি নিজের নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক, কেননা এই আলোচনা হয়েছে গোপনীয়তার সঙ্গে। যে পদক্ষেপ করা হবে, তা মূলত হল করের ছাড় দেওয়ার পাশাপাশি কয়েকটি ক্ষেত্রে করছাড় বাতিলও করা হবে। এর মধ্যে রয়েছে বাড়িভাড়া ও ব্যাঙ্কে জমায়েতের ক্ষেত্রে প্রাপ্ত সুদ।

MTNL, BSNL-এর সংযুক্তির সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা

‘লাইভমিন্ট.কম'-এ প্রকাশিত প্রতিবেদনের সূত্রে জানা যাচ্ছে, আগামী ফেব্রুয়ারিতে কেন্দ্রীয় বাজেটের সময় এব্যাপারে ঘোষণা হতে পারে বলে ওই ব্যক্তি জানিয়েছেন। অর্থমন্ত্রকের এক মুখপাত্রের কাছে এবিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি এখনই এই নিয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি।

যদি শেষ পর্যন্ত এই পদক্ষেপ সরকার করে, তবে নিঃসন্দেহে গত ছ'বছরের হিসেবে অর্থ‌নীতির সবথেকে ধীরগতির মোকাবিলায় সরকারের এটি নতুন পদক্ষেপ হবে। গত মাসেই কর্পোরেট করে ছাড় ঘোষণা করেছে সরকার। এছাড়া বিদেশি পুঁজির উপরে করছাড়, ১০ বিলিয়ন ডলার ব্যাঙ্কে বিনিয়োগের মতো পদক্ষেপও করেছে সরকার।

ম্যাচিওরিটির আগেই এফডি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করতে চান? জেনে নিন এই নিয়মগুলো

কর্পোরেট সংস্থাগুলির দেয় কর ২২ শতাংশ করার অর্থ ৩০ শতাংশ কর দেওয়া বহু ব্যক্তির থেকেও কম কর নেওয়া হচ্ছে। এর পর থেকেই ব্যক্তিগত আয়করে ছাড় দেওয়ার দাবিও উঠছে।

অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের লক্ষ্য এবছর জিডিপিকে ৩.৩ শতাংশ আর্থিক ঘাটতি পর্যন্ত সঙ্কুচিত করা।

ব্যক্তিগত আয়কর শুরু হয় বার্ষিক ২.৫ লক্ষ টাকা বার্ষিক আয় থেকে। সেক্ষেত্রে কর দিতে হয় ৫ শতাংশ। সর্বোচ্চ কর দিতে হয় ৫ কোটির উপরে বার্ষিক রোজগার থাকলে। সেক্ষেত্রে দেয় করের পরিমাণ ৪২.৭৪ শতাংশ। এটি এশিয়ার গড় ২৯.৯৯ শতাংশের থেকেও বেশি। দেশের জনসংখ্যার মাত্র ৫ শতাংশ কর দেয়। দেশের কর থেকে জিডিপি অনুপাত বিশ্বের গড়ের থেকে ১১ শতাংশ কম।

More News