Profit

ফেল ট্রাম্প প্রশাসন রোজগেরে ঘরণীদের ভিসা নির্দেশিকা প্রকাশ পেল না

H-4  ভিসা সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে পারল না মার্কিন অভিবাসন দফতর।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
ফেল ট্রাম্প প্রশাসন রোজগেরে ঘরণীদের ভিসা নির্দেশিকা প্রকাশ পেল না

H-1B ভিসা ব্যবহারকারীদের মধ্যে  ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ারদের সংখ্যা সব দিক থেকেই বেশি

হাইলাইটস

  1. আরও একবার ফেল করল ট্রাম্প প্রশাসন! H-4 ভিসা সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ
  2. রাষ্ট্রপতি হিসেবে মেয়াদ শেষ হওয়ার এক বছর আগে 2015 সালে ভিসা চালু করেন ওবা
  3. এক লাখের বেশি মানুষ এই H-4ভিসার সুবিধা ভোগ করেন।

আরও একবার ফেল করল ট্রাম্প প্রশাসন!  H-1B ভিসা রয়েছে এমন ব্যক্তিদের স্ত্রীদের  H-4  ভিসা দেওয়া হয়। কিন্ত এবারও এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে পারল না মার্কিন অভিবাসন দফতর। আগে হোমল্যান্ড সিকিওরিটি বিভাগ আদালত বলেছিল জুন মাসের মধ্যে কাজ সেরে ফেলার চেষ্টা হচ্ছে। কিন্ত এবারও তা তারা করতে পারল না। H-1B ভিসা ব্যবহারকারীদের মধ্যে  ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ারদের সংখ্যা সব দিক থেকেই বেশি। তাঁদের স্ত্রীরাও যাতে কাজ করতে পারেন  তার জন্য প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা এক বিশেষ অর্ডারের মাধ্যমে  H-4  ভিসা প্রদানের ব্যবস্থা করেছিলেন। কিন্ত  প্রেসিডেন্ট হয়েই অভিবাসন নীতিতে আমূল পরিবর্তন এনেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। চাপে পড়েছেন   H-4  ভিসা ব্যবহারকারীরা। চাকরি থাকবে কিনা সেটাই এখন প্রশ্ন!  

 

ঠিক কী ঘটছে? দেখে নেওয়া যাক দশটি জরুরি তথ্য 

               

  1.  সংবাদ সংস্থা পিটিআই বলছে আমেরিকার হোমল্যান্ড সিকিওরিটি বিভাগ এখনও নোটিশ জারি  করেনি শুধু তাই নয় কেন এমনটা করা গেল না  সেটাও আদালতেও জানানো  হয়নি। 
  2. বিভাগের এক আধিকারিক সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন এখনও  কেন  নোটিশ জারি হয়নি তা তাঁর জানা নেই। এমনকী কবে নাগাদ বিষয়টির মিটতে পারে তাও  তাঁর অজানা। 
  3. যদিও জুন মাসে ট্রাম্প প্রশাসন জানিয়েছে এটিতে পরিবর্তনের ভাবনা এখনই  নেই। 
  4. কয়েকমাস আগেও একবার ডেডলাইন ফেল করেছিল  আমেরিকা। একটি ফেডারেল আদালতে এ সংক্রান্ত একটি মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তারা জানিয়েছিল সমস্ত দিক খতিয়ে দেখে জুন মাসে নোটিশ জারি করা হবে।  কিন্ত তা বাস্তবায়িত হল না।  
  5. কলম্বিয়ার একটি  জেলা আদালতে বারাক ওবামার জারি করা ভিসা বাতিলের দাবিতে মামলা হয়। আবেদনকারীর দাবি মার্কিন নাগরিকদের চাকরির স্বার্থে ভিসা বাতিল করতে হবে।  
  6. এক লাখের বেশি মানুষ এই  H-4ভিসার সুবিধা ভোগ করেন।  .
  7. রাষ্ট্রপতি হিসেবে মেয়াদ শেষ হওয়ার এক বছর আগে 2015 সালে ভিসা চালু করেন ওবামা। 
  8. উচ্চ মেধাসম্পন্ন  অন্য  দেশের নাগরিকদের স্ত্রীরাই এটির সুবিধা পেয়ে থাকেন। 
  9. রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর থেকেই এ ব্যাপারে কড়াকড়ি  শুরু করেছেন ট্রাম্প। 
  10.  নির্বাচনী প্রচারের সময় থেকেই ট্রাম্প বলে আসছিলেন দেশের নাগরিকদের চাকরি বাঁচানোর ওপর সর্বাধিক গুরুত্ব দেবেন। ঢেলে সাজাবেন অভিবাসন নীতি। সেই মতো তৎপরতাও শুরু হয়েছে। তবে বিশ্বজোড়া চাপের মুখে কিছুটা হলেও ঢোক গিলতে হয়েছে তাঁকে।        

 



ব্যবসার খবর, সেনসেক্সের অপডেটস জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

পড়ুন | Read In

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

Top