মিউচুয়াল ফান্ডগুলোর সাহায্যে ৫০,০০০ কোটি টাকার ত্রাণ ঘোষণা আরবিআইয়ের

COVID-19: করোনা পরিস্থিতিতে কড়া চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে দেশের অর্থনীতি, বিভিন্ন মিউচুয়াল ফান্ডও ধুঁকছে

মিউচুয়াল ফান্ডগুলোর সাহায্যে ৫০,০০০ কোটি টাকার ত্রাণ ঘোষণা আরবিআইয়ের

RBI: করোনার কারণে দেশের ধুঁকতে থাকা অর্থনীতিকে দিশা দিতে আরও পদক্ষেপ করা হবে, জানালো শীর্ষ ব্যাংক

হাইলাইটস

  • দেশের আর্থিক পরিস্থিতি সামলাতে একের পর এক পদক্ষেপ আরবিআইয়ের
  • এবার মিউচুয়াল ফান্ডগুলোকে বাঁচাতে পদক্ষেপ করল রিজার্ভ ব্যাংক
  • ৫০,০০০ কোটি টাকার ত্রাণ প্যাকেজ ঘোষণা করল তারা
করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতিতে মার্কিন সংস্থা ফ্র্যাংকলিন টেম্পলটনের (Franklin Templeton) ৬টি তহবিল মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় ভারতীয় বাজারে তরল টাকার চাপ কমিয়ে আনতে এবং বিনিয়োগকারীদের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে পদক্ষেপ করল আরবিআই। সোমবার রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া (RBI) মিউচুয়াল ফান্ডগুলোর (Mutual Funds) জন্যে বাজারে তরল টাকার জোগান বাড়াতে ৫০,০০০ কোটি টাকার সাহায্যের ঘোষণা করেছে। আরবিআই বর্তমান পরিস্থিতির জন্যে করোনা সংক্রমণের ফলে গোটা বিশ্বে হওয়া আর্থিক চাপকেই দায়ী করেছে। এর ফলে চাপে পড়েছে মিউচুয়াল ফান্ডগুলোও। ২৩ এপ্রিল COVID- 19 এর মোকাবিলায় লকডাউনের মধ্যেই অপ্রত্যাশিত ঘোষণা করে মিউচুয়াল ফান্ড সংস্থা ফ্র্যাঙ্কলিন টেম্পলটনের। ৬টি ঋণ তহবিল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় সংস্থাটি। এই ঋণ-প্রকল্পগুলিতে অনাদায়ী ঋণের অর্থাৎ, ঋণ শোধ না হওয়ার আশঙ্কা বেশি ছিল। ফ্র্যাঙ্কলিন টেম্পলটনের তরফে জানানো হয়েছে, ওই তহবিলগুলির অবশিষ্ট শেয়ার বিক্রি করে বিনিয়োগকারীদের ধাপে ধাপে টাকা ফেরত দেওয়া হবে।

১০ টি তথ্য:

  1. আরবিআই বলেছে যে "কিছু সংস্থা মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করা টাকা উঠে আসবে কিনা এই আশঙ্কায় লেনদেন বন্ধের মতো পদক্ষেপ নিচ্ছে। এর ফলে দেশে লিকুইড মানির চাপ আরও তীব্র হয়েছে"।

  2. তবে, রিজার্ভ ব্যাংক একথাও বলেছে যে, এই লিকুইড মানির চাপ কিছু উচ্চপর্যায়ের ঝুঁকি সম্পন্ন  মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রয়েছে।

  3. ২৩ এপ্রিল COVID- 19 এর মোকাবিলায় লকডাউনের মধ্যেই অপ্রত্যাশিত ঘোষণা করে মিউচুয়াল ফান্ড সংস্থা ফ্র্যাঙ্কলিন টেম্পলটনের। ৬টি ঋণ তহবিল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় সংস্থাটি। 

  4. হঠাৎ করে তহবিল বন্ধের এই ঘোষণা আতঙ্ক ছড়ায়। অনেকেরই উদ্বেগ, আরও মিউচুয়াল ফান্ড সংস্থা একই পথে হাঁটতে পারে। যদিও ফান্ড সংস্থাগুলির তরফে লগ্নিকারীদের আশ্বস্ত করার চেষ্টা করা হয়, তবুও অনিশ্চয়তা পিছু ছাড়ছে না। 

  5. মার্চের শেষ পর্যন্ত ৮৬,০০০ কোটি টাকারও বেশি সম্পত্তির মালিক ফ্রাঙ্কলিন টেম্পলটন, এটি ভারতে দু'দশক আগে বিনিয়োগ করে, দেশের নবম বৃহত্তম মিউচুয়াল ফান্ড সংস্থা এটি।

  6. ফ্র্যাংকলিন টেম্পলটন দীর্ঘ সময় ধরে "এএ" বা "এ" এর মতো নিম্ন-রেটযুক্ত কাগজগুলির দিকেই জোর দেয় এবং এর ফলে বিনিয়োগকারীরা এখান থেকে বেশ বড় অঙ্কের রিটার্ন পেতেন।

  7. আরবিআইয়ের পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম। তিনি টুইটারে লেখেন, "আমি আনন্দিত এটা জেনে যে আরবিআই দু'দিন আগে যে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে সে বিষয়টি খেয়াল করেছে এবং পদক্ষেপ করছে।

  8. আরবিআই একথাও উল্লেখ করেছে যে দেশের আর্থিক পরিস্থিতির দিকে সজাগ দৃষ্টি রয়েছে তাদের এবং কোভিড-১৯ এর অর্থনৈতিক প্রভাব হ্রাস এবং আর্থিক স্থিতিশীলতা রক্ষা করতে প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপই নেওয়া হবে।

  9. করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে টানা লকডাউনের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে দেশ। সরকারি পরিসংখ্যান মতে, বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি দিন লকডাউন জারি করা হয়েছে ভারতেই।

  10. রিজার্ভ ব্যাংক এখনও পর্যন্ত ১.৭ লক্ষ কোটি টাকার ত্রাণ প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। পাশাপাশি কেন্দ্রীয় ব্যাংকটি মূল সুদের হার হ্রাস করেছে এবং বাজারে তরল অর্থের চাপ কমাতে দীর্ঘমেয়াদি ভাবে রেপো রেট চালু করেছে।