ব্যাঙ্কের সব শাখা খোলা, কাজ করছে এটিএম: নির্মলা সীতারমণ

দেশের সব ব্যাঙ্কের শাখা এবং এটিএম খোলা। আমাদের ব্যাঙ্ককর্মীরাও সক্রিয়। লকডাউনের ষষ্ঠ দিনে মানুষের আতঙ্ক দূর করতে এই বার্তা দিলেন অর্থমন্ত্রী।

ব্যাঙ্কের সব শাখা খোলা, কাজ করছে এটিএম: নির্মলা সীতারমণ

সামাজিক দূরত্ব মানতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে আর স্যানিটাইজার পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে: নির্মলা সীতারমণ

নয়াদিল্লি:

উদ্বেগের কারণ নেই। দেশের সব ব্যাঙ্কের শাখা (Bank-ATM) এবং এটিএম খোলা। আমাদের ব্যাঙ্ককর্মীরাও সক্রিয়। লকডাউনের ষষ্ঠ দিনে মানুষের আতঙ্ক দূর করতে এই বার্তা দিলেন অর্থমন্ত্রী (Finance Minister)।মঙ্গলবার তিনি টুইটে উল্লেখ করেন, "সব ব্যাঙ্কের শাখা খোলা। এটিএম সক্রিয় এবং পর্যাপ্ত নগদের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আমাদের ব্যাঙ্ককর্মীরাও সক্রিয়। ব্যাঙ্কের কাজ ও লেনদেনের সময় সামাজিক দূরত্ব বজায়ের আবেদন করা হয়েছে। স্যানিটাইজারও পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। ব্যাঙ্কিং লেনদেনে কোনও সমস্যা হলে বা কিছু জানার থাকলে ডিএএফএস ফাইটস করোনার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন।" টুইটারেই ওই ডিএএফএস ফাইটস করোনার প্রসঙ্গ উল্লেখ করেছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। এই নিয়ে এক সপ্তাহে দু'বার লকডাউনের  (Nationwide Lockdown) মধ্যে নগদ সঙ্কট হতে পারে এই আশঙ্কা দূর করতে সচেষ্ট হলেন অর্থমন্ত্রী। গত সপ্তাহে সাংবাদিক বৈঠক করে এ বিষয়ে আবেদন করেন অর্থমন্ত্রী (Nirmala Sitharaman)।   

২১ দিনের লকডাউনের সময়সীমা আরও বাড়ানোর জল্পনা ওড়ালো কেন্দ্রীয় সরকার

এর আগে একটা গুজব রটেছিল, করোনা সংক্রমণের হাত থেকে ব্যাঙ্ককর্মীদের বাঁচাতে নাকি বন্ধ করে দেওয়া হবে পরিষেবা। এই দাবিও নস্যাৎ করে দিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী। একই দাবি করেছেন এসবিআইয়ের এমডি পিকে গুপ্তা। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের থেকে নির্দেশিকা জারি করে বলা হয়েছে, ব্যাঙ্কের শাখা-সহ এটিএম ও অন্যান্য পরিষেবা সূচি মেনেই হবে।

এদিকে, মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্তদের একাধিক ছাড় দিতে একগুচ্ছ ঘোষণা করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। অর্থ মন্ত্রকের গাইড লাইন মেনেই সেই ঘোষণা। এর ফলে মানুষের হাতে নগদের জোগান বাড়বে।ব্যাঙ্কের আমানতি অর্থেরও সুরাহা হবে।