Budget 2020: আসন্ন বাজেটে বিলগ্নিকরণ থেকে ১ লক্ষ কোটি টাকা ঘরে তোলার লক্ষ্য থাকবে

Union Budget: এমনতিতেই অর্থনৈতিক মন্দায় ভুগছে দেশ, সেই সময় বিলগ্নিকরণের লক্ষ্যমাত্রা প্রায় একই রাখার পথে হাঁটতে পারেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন

Budget 2020: আসন্ন বাজেটে বিলগ্নিকরণ থেকে ১ লক্ষ কোটি টাকা ঘরে তোলার লক্ষ্য থাকবে

বিলগ্নিকরণ থেকে ১ লক্ষ ৫ হাজার কোটি টাকা ঘরে তোলার লক্ষ্য নিয়েছিলেন Nirmala Sitharaman

হাইলাইটস

  • বাজেটে বিলগ্নিকরণ থেকে ১ লক্ষ কোটি টাকা ঘরে তোলার লক্ষ্য রাখা হতে পারে
  • ১ ফেব্রুয়ারি সংসদে পেশ হবে কেন্দ্রীয় বাজেট
  • ওই বাজেট পেশ করবেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন
নয়া দিল্লি:

আগামী ১ ফেব্রুয়ারি সংসদে পেশ করা হবে কেন্দ্রীয় বাজেট। দেশের অর্থনৈতিক মন্দা থেকে অর্থনীতিকে গতি দিতে ২০২০ সালের বাজেটে (Budget 2020) কোন পথ অবলম্বন করবেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন, সেই দিকেই তাকিয়ে রয়েছে গোটা দেশ। অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, আসন্ন বাজেটে (Union Budget) বিলগ্নিকরণের (Divestment) লক্ষ্যমাত্রা প্রায় একই রাখার পথে হাঁটতে পারেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। চলতি অর্থবছরে বিলগ্নিকরণ থেকে ১ লক্ষ ৫ হাজার কোটি টাকা ঘরে তোলার লক্ষ্য নিয়েছিলেন নির্মলা, যেখানে গতবছর এই লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৯০,০০০কোটি টাকা। তবে অর্থ মন্ত্রক সূত্রের খবর (Budget News), চলতি বছরে খুব বেশি হলে বিলগ্নিকরণ থেকে ৬০ হাজার কোটি টাকা ঘরে আসতে পারে। অর্থাৎ ৪০ হাজার কোটি টাকার ঘাটতি থাকবে।

আগামী অর্থবছরের এয়ার ইন্ডিয়া, বিপিসিএল এবং কনটেইনার কর্পোরেশনের তফসিল বিভক্তকরণ এবং প্রবর্তন ছাড়াও বড় এবং ছোট দুটি কোম্পানির কৌশলগত অংশীদারি বিক্রির পিছনে ১ লক্ষ কোটি টাকার বেশি ধার্য করা হয়েছে। ব্যাংক এবং আর্থিক ও পাবলিক বিমা সংস্থাগুলিতে সরকারি সাফল্য পর্যবেক্ষণের জন্য একটি আর্থিক ইটিএফ গড়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

‘‘কেবল অতি ধনীদের জন্য'': প্রধানমন্ত্রীর বাজেট বৈঠক প্রসঙ্গে রাহুল গান্ধি

ফিনান্সিয়াল ইটিএফ আসলে একটি পুরনো কর্মসূচি এবং বাস্তবে ডিআইপিএএম এর জন্য ইতিমধ্যেই এক্ষেত্রে পরামর্শদাতাদের সন্ধান করা হচ্ছে। পাবলিক-সেক্টর ব্যাংক (পিএসবি), পাবলিক সেক্টর বিমা সংস্থাগুলি এবং সরকারি খাতের আর্থিক প্রতিষ্ঠানের শেয়ার অন্তর্ভুক্ত করে সরকার ইটিএফ পোর্টফোলিও সম্প্রসারণের পরিকল্পনা করেছে।

বিলগ্নিকরণ বিভাগ নালকো, এনএমডিসি, এনটিপিসি, এবং কোল ইন্ডিয়ার ব্লুচিপস সহ তুলনামূলকভাবে উন্নত সিপিএসইগুলির একটি তালিকা তৈরি করেছে বলে জানা গেছে। ন্যাশনাল অ্যালুমিনিয়াম কো লিমিটেড, কোল ইন্ডিয়া লিমিটেড, এনটিপিসি লিমিটেড, এনএমডিসি লিমিটেড, এনবিসিসি (ভারত) লিমিটেড, ভারত ইলেক্ট্রনিক্স লিমিটেড, ন্যাশনাল ফার্টিলাইজার লিমিটেড এবং হিন্দুস্তান কপার লিঃ এই সংস্থাগুলিতে সরকারের অংশীদারিত্বের তালিকায় রয়েছে যাদের বিনিয়োগের পরিমাণ ৫২-৮২ শতাংশ।

অবসরকালীন ভাতা (পেনশন ফান্ড) নিয়ন্ত্রণে এবার একটাই সংস্থা: সূত্র

সূত্র জানিয়েছে, বাজারের প্রস্তাব অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে অনুমোদনের ক্ষেত্রে এবং ভাল বাজারের শর্ত সাপেক্ষে অংশীদারিত্বের বিক্রির পরিমাণ বাড়াতে হবে।

কেন্দ্র জানিয়েছে, এ বছর জিডিপি ২০৪ লক্ষ কোটি টাকাতেই আটকে থাকবে। অথচ বাজেটে জিডিপি ২১১ লক্ষ কোটি টাকায় পৌঁছবে বলে হিসেব কষেছিলেন নির্মলা। অনুমান ছিল, রাজকোষ ঘাটতি ৭.০৪ লক্ষ কোটি টাকায় বেঁধে রাখা যাবে। জিডিপির তুলনায় ৩.৩%। এখন জিডিপি-ই কমে গিয়েছে। রাজকোষ ঘাটতির পরিমাণ ৭.০৪ লক্ষ কোটিতে বাঁধা গেলেও তার হার জিডিপি-র তুলনায় বাড়বে।

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com