Budget 2020: আসন্ন বাজেটে ব্যক্তিগত আয়করে মিলতে পারে আরও ছাড়: রিপোর্ট

Budget 2020: বার্ষিক আড়াই লক্ষ টাকা পর্যন্ত ব্যক্তিগত আয়ে করছাড়ের সুবিধা রয়েছে, তবে আড়াই লক্ষ থেকে পাঁচ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয়ে এখন ৫% কর দিতে হয়

Budget 2020: আসন্ন বাজেটে ব্যক্তিগত আয়করে মিলতে পারে আরও ছাড়: রিপোর্ট

Budget-tax: এখন, একজন ব্যক্তি আয়কর আইনের ৮০ সি ধারার অধীনে বছরে দেড় লক্ষ টাকা পর্যন্ত সাশ্রয় করতে পারেন

নয়া দিল্লি:

আগামী ১ ফেব্রুয়ারি পেশ হতে চলেছে কেন্দ্রীয় বাজেট। তাঁর দ্বিতীয় বাজেটে ব্যক্তিগত করের ক্ষেত্রে বড়সড় ছাড় ঘোষণা করতে পারেন মোদি সরকারের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। মনে করা হচ্ছে, নতুন কর কাঠামোটি গত বছরের শেষদিকে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের প্রস্তাবিত করের হারের সমান হতে পারে। সেই সময় কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী প্রস্তাব দিয়েছিলেন বেসরকারি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে করের হার ৩০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২২ শতাংশ করার। এর পাশাপাশি নতুন উৎপাদন সংস্থাগুলির ক্ষেত্রে এই কর ছাড়ের পরিমাণ আরও কমিয়ে ১৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়। বাণিজ্য করে এই বিপুল পরিমাণ ছাড় দেওয়ার ভাবনার নেপথ্যে রয়েছে আসলে আরও বেশি করে বিনিয়োগ আনা। দেশের যা আর্থিক পরিস্থিতি তাতে বিনিয়োগ না এলে আর্থিক পরিস্থিতির হাল ফেরানো অসম্ভব।

বর্তমানে বার্ষিক আড়াই লক্ষ টাকা পর্যন্ত যাঁরা আয় করেন তাঁদের কোনও ব্যক্তিগত আয় কর দিতে হয় না, কিন্তু  আড়াই লক্ষ থেকে পাঁচ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ব্যক্তিগত আয়ের ক্ষেত্রে ৫ শতাংশ কর দিতে হয়। এদিকে ৫ লক্ষ থেকে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত যারা আয় করছেন তাঁদের কর দিতে হয় মোট আয়ের ২০ শতাংশ। আরও বেশি আয় করলে কর দেওয়ার পরিমাণ আরও বাড়তে থাকে। ১০ লক্ষ টাকার উপরে যদি কেউ আয় করেন তাহলে তাঁকে ৩০ শতাংশ হারে আয়কর দিতে হয়। পাশাপাশি বার্ষিক ৫০ লক্ষ টাকার বেশি উপার্জনকারী অতি ধনী ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে একটি সারচার্জও ধার্য করে কেন্দ্রীয় আয়কর দফতর।

আগামী ১ ফেব্রুয়ারি যে বাজেট পেশ করতে চলেছেন নির্মলা সীতারামন তাতে মনে করা হচ্ছে এই করকাঠামোতে বেশ কিছু রদবদল করতে পারেন তিনি। ব্যক্তিগত আয়করের ক্ষেত্রে আরও বেশি কর ছাড়ের সুবিধা দেওয়ার ভাবনা রয়েছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর । 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কর বিশেষজ্ঞরা সংবাদসংস্থা আইএএনএসকে জানিয়েছেন, সরকার আয়কর হারের পরিমাণ ৫ থেকে ৩০ শতাংশের মাঝামাঝি একটি মধ্যস্থতায় যেতে পারে। কর কাঠামোয় পরিবর্তন করে উচ্চ আয়ের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য ২০ থেকে ৩০ শতাংশ আয়করের কাঠামোয় পরিবর্তন করে মাঝামাঝি ১৫ থেকে ১৮ শতাংশ করা হতে পারে।

More News