আসন্ন সাধারণ বাজেটে বাড়ছে না আয়করের উর্ধ্বসীমা:রিপোর্ট

প্রত্যাশা ছিল বাজেটে (Budget) কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা আড়াই লক্ষ টাকা থেকে বেড়ে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত করা হতে পারে।

আসন্ন সাধারণ বাজেটে বাড়ছে না আয়করের উর্ধ্বসীমা:রিপোর্ট

সূত্রে দ্বারা এও জানা যাচ্ছে যে, বেতনভুক্ত ব্যক্তিদের জন্যে কিছু অতিরিক্ত কর-সঞ্চয়কারী ব্যবস্থারও ঘোষণা করতে পারে সরকার।

হাইলাইটস

  • বিশেষজ্ঞদের মতে, আয়কর ছাড়ের ঊর্দ্ধসীমা বাড়ানো ভাল পদক্ষেপ হতে পারে না
  • কর কাঠামোয় সামান্য হেরফের হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে
  • প্রত্যাশার থেকে আয়কর আদায় কম হয়েছে
নিউ দিল্লি:

আসন্ন ২০১৯-২০ সাধারণ বাজেটে (Budget) বাড়ছে না আয়কর (income tax) ছাড়ের উর্ধ্বসীমা। তবে প্রত্যাশা অনুযায়ী কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা না বড়লেও সূত্রের খবর, গত অন্তবর্তী বাজেটে, দেশের অর্থমন্ত্রক (Finance Ministry) একটি বিধান জারি করেছে, যার ফলে ৮৭ এ ধারার অধীনে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত উপার্জনকারী ব্যক্তিরা সম্পূর্ণ রূপে কর ছাড় পেতে পারবেন। ফলে এই নয়া বিধান অনুযায়ী যাঁদের বার্ষিক আয় ৫ লক্ষ টাকা,তাঁরা আয়কর রিটার্ন দাখিল করলেও আদতে তাঁদের সরকারকে কোনো কর দিতে হচ্ছে না। নরেন্দ্র মোদি সরকারের (Modi 2.0 government) দ্বিতীয়বারের শাসনকালে নয়া অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বভার সামলাচ্ছেন নির্মলা সীতারামণ। আসন্ন বাজেটে(Budget) তাই নয়া অর্থমন্ত্রীর কাছ থেকে কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা আড়াই লক্ষ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫ লক্ষ টাকা করার ঘোষণার বিষয়ে বিপুল প্রত্যাশা তৈরি হয়েছিল। কিন্তু বাস্তবে তা হচ্ছে না বলেই খবর।

Budget 2019: শিল্প বিশেষজ্ঞ ও অর্থনীতিবিদদের সঙ্গে বৈঠকে বসলেন প্রধানমন্ত্রী

যদিও মাসিক বেতনের আওতাভুক্ত কর্মচারিরা মনে করছেন মোদি সরকারকে(Modi 2.0 government)  দ্বিতীয়বারের জন্যে ভোট দিয়ে ক্ষমতায় নিয়ে আসার জন্যে তাঁদের পুরস্কৃত করবে সরকার। কিন্তু আধিকারিকদের মতে আয়কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা ৫ লক্ষ টাকা করা হলে হারাবে অন্তর্বর্তীকালীন বাজেটের যৌক্তিকতা । তাঁদের মতে,কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা বাড়ানো হলে বহু মানুষকে আর আয়কর দাখিলের প্রয়োজন পড়বে না। এর ফলে আয়কর দাখিলের পরিমাণে প্রভাব পড়বে পারে বলেও মনে করছেন অনেকে।

Budget 2019: নির্মলা সীতারামনের প্রথম বাজেট থেকে ঠিক কী প্রত্যাশা রয়েছে

বাজেট( Budget) পূর্ববর্তী বৈঠকে আয়কর বিশেষজ্ঞরা অর্থমন্ত্রককে পরামর্শ দেয় যে মৌলিক কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা বাড়ানো সরকারের দিক থেকে খুব একটা বিচক্ষণ পদক্ষেপ হবে না। কেননা বর্তমানে মোদী সরকারের লক্ষ্য হল দেশের সামগ্রিক করদাতাদের (file tax returns)সংখ্যা বৃ্দ্ধি, সেখানে কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা বাড়ানো হলে সরকারের ওই লক্ষ্য বিঘ্নিত হবে। তবে খুব সামান্য হলেও এই সম্ভাবনাও দেখা যাচ্ছে যে, আয়করের ধাপগুলিকে পরিবর্ধন করে সরকার এই ঘোষণাও করতে পারে যে, যাঁরা ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করছেন তাঁদের বর্তমান নিয়ম অনুযায়ী ২০ শতাংশ আয়কর দেওয়ার বদলে ১০ শতাংশ আয়কর (Income tax) দিতে হবে।

Budget 2019: ৫ জুলাইয়ের আগে যেগুলি জেনে রাখা দরকার

সূত্রে দ্বারা এও জানা যাচ্ছে যে, বেতনভুক্ত ব্যক্তিদের জন্যে কিছু অতিরিক্ত কর-সঞ্চয়কারী ব্যবস্থারও ঘোষণা করতে পারে সরকার। গোটা দেশে আয়কর(Income tax) দাখিলের পরিমাণ প্রত্যাশার থেকে অনেকটাই কম হওয়াতেও এই করছাড়ের উর্ধ্বসীমা বাড়ানো সম্ভব হবে না বলে মনে করছেন না অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। সূত্র একথাও বলছে যে, ১৫ লক্ষ টাকার উপর উপার্জনকারী ব্যক্তিদের আয়ের ৩০ শতাংশ করকাঠামো বৃদ্ধিরও কোনো সম্ভাবনা নেই।

বছরে ১০ লাখের বেশি নগদ তুললে দিতে হতে পারে ৫ শতাংশ কর

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক যে শুধু করদাতাদের সামগ্রিক সংখ্যা বৃদ্ধির কথাই ভাবছে তা নয়,আয়কর(Income tax)  থেকে রাজস্ব বৃদ্ধি করাও সরকারের অন্যতম লক্ষ্যের মধ্যে রয়েছে। কেননা রাজস্ব বৃদ্ধি হলে উন্নয়নের লক্ষ্যে বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেতে পারবে। যদিও আসন্ন সাধারণ বাজেটে(Budget) সরকার আয়কর কাঠামোতে খুব বেশি রদবদল করবে না বলেই মনে করা হচ্ছে।

 

More News