সরকারের কাছে বকেয়া সংক্রান্ত রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি এয়ারটেল, ভোডাফোন আইডিয়ার

টেলিকম বিভাগের মতে, ভারতীয় এয়ারটেলের বকেয়া ২৩,০০০ কোটি টাকা এবং ভোডাফোনের বকেয়া ১৯,৮২৩.৭১ কোটি টাকা

সরকারের কাছে বকেয়া সংক্রান্ত রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি এয়ারটেল, ভোডাফোন আইডিয়ার

সেপ্টেম্বর ত্রৈমাসিকে রেকর্ড ক্ষতির মুখোমুখি হয়েছে ভারতীয় এয়ারটেল এবং ভোডাফোন আইডিয়া

সরকারের কাছে বকেয়া ঋণ নিয়ে রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি জানিয়ে আবেদন জানাল ভারতী এয়ারটেল (Bharti Airtel), ভোডাফোন আইডিয়া এবং টাটা টেলি সার্ভিস। গতমাসের রায়ে সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দেয়, সমস্ত নন-কোর কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত হবে স্থায়ী গড় রাজস্ব এবং টেলিকম সংস্থাগুলির (Telecom Companies) বকেয়া ৯২,০০০ কোটি টাকা আদায়ের জন্য টেলিকম বিভাগকে নির্দেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট।

এখানে রইল ১০'টি তথ্য:

  1. সংস্থাগুলির তরফে পাল্টা হয়েছে, শুধুমাত্র কোর পরিষেবাগুলির ক্ষেত্রেই সীমাবদ্ধ রাখা উচিত স্থায়ী গড় রাজস্ব।
     

  2. গতমাসে সুপ্রিম কোর্ট স্থায়ী গড় রাজস্ব নিয়ে টেলিকম দফতরের পক্ষে রায় দেয় যে, টেকিলম সংস্থাগুলির থেকে ১.৪৭ লক্ষ কোটি টারা বকেয়া লেভি এবং সুদ আদায় করা যাবে
     

  3. এর ফলে ভারতী এয়ারটেল এবং ভোডাফোনের মতো সংস্থাগুলির পরিষেবা চালানো ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে যায়, যারা হুঁশিয়ারি দিয়েছে, উচ্চ হারে কর এবং শুল্ক ধার্য করা বন্ধ না করলে তাদের পরিষেবা চালু রাখা মুশকিল হয়ে পড়বে।
     

  4. সেপ্টেম্বর ৩০ ত্রৈমাসিকে সবচেয়ে বেশী ক্ষতির মুখে পড়ার খবর পাওয়া গিয়েছে ভারতী এয়ারটেল এবং ভোডাফোনের, টেলিকম দফতরে বকেয়ার কারণে এই ক্ষতি। ভোডাফোন আইডিয়ার ক্ষতি ৫০,৯২১.৯ কোটি টাকা, ভারতের কর্পোরেট দুনিয়ায় ত্রৈমাসিকে সবচেয়ে বেশী ক্ষতি, সেখানে ভারতী এয়ারটেলের ক্ষতির পরিমাণ ২৩,০৪৫ কোটি টাকা
     

  5. টেলিকম দফতরের দাবি, ভারতী এয়ারটেল,  ভোডাফোন আইডিয়া এবং রিলায়েন্স কমিউনিকেশনের লাইসেন্স ফি বাবদ বকেয়া রয়েছে ৯২,০০০ কোটি টাকা এবং স্পেকট্রামের ভাড়া বাবদ ৪১,০০০ কোটি টাকা।
     

  6. টেলিকম দফতর জানিয়েছে, ভারতী এয়ারটেলের বকেয়া রয়েছে ২৩,০০০ কোটি টাকা এবং ভোডাফোনের বকেয়া ১৯.৮২৩.৭১ কোটি টাকা এবং রিলায়েন্স কমিউনিকেশনের বকেয়া রয়েছে ১৬,৪৫৬.৪৭ কোটি টাকা।  ২০১৭-এর ডিসেম্বরে ভয়েস পরিষেবা বন্ধ করে রিলায়েন্স কমিউনিকেশন, চলতি বছরে তারা দেউলিয়া ঘোষণা করে।  
     

  7. বকেয়ার কেন্দ্রে রয়েছে স্থায়ী গড় রাজস্ব। স্পেকট্রাম ব্যবহারের মূল্য হিসেবে তাদের তাদের স্থায়ী গড় রাজস্বের ৩-৫ শতাংশ টেলিকম বিভাগকে দেয় সংস্থাগুলি, এবং লাইসেন্স ফি হিসেবে দেয় ৮ শতাংশ।
     

  8. সংস্থাগুলি দীর্ঘ যুক্তি দিয়েছে, যে, তাদের মূল পরিষেবার সঙ্গেই যুক্ত হওয়ার উচিত স্থায়ী গড় রাজস্ব, অন্যদিকে, সরকারের দাবি, সমস্ত রাজস্বের সঙ্গেই যুক্ত হওয়া উচিত। গতমাসের, রায়ে শীর্ষ আদালত টেলিকম বিভাগের যুক্তিই বহাল রাখে।
     

  9. ভোডাফোন জানায়, যদি সরকারের তরফে কোনও ছাড় বা আইনি সুরক্ষা না দেওয়া হয়, ভারতে তারা ব্যবসা চালাতে পারবে না। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে খবর, ভোডাফোনের সিইও নিক রিড জানান, দেশে মুকেশ আম্বানির রিলায়েন্স জিও-এর সঙ্গে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার মতো কোনও নিয়ম বা পথ তৈরি করতে পারলে তারা ভারতের ব্যবসা আর বাড়াতে পারবে না।
     

  10. যেখানে, বুধবার সরকার আগামী দুবছরের জন্য স্পেকট্রামের বকেয়া অর্থের কিস্তি দেরিতে পরিশোধের পথ খুলে দেয় সরকার



More News