বকেয়ার আংশিক বকেয়া মেটাল টেলিকম সংস্থাগুলি, নয়া উদ্বেগে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক

ভোডাফোন আইডিয়ার রাতের মধ্যে ২,৫০০ কোটি টাকা এবং শুক্রবারের মধ্যে ১,০০০ কোটি টাকা পরিশোধের প্রস্তাব খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট

বকেয়ার আংশিক বকেয়া মেটাল টেলিকম সংস্থাগুলি, নয়া উদ্বেগে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক

AGR Dues: টেলিকম সংস্থাগুলি তাদের এজিআরের ৩-৫ শতাংশ স্পেকট্রাম চার্জ হিসেবে টেলিকম মন্ত্রককে দেয় এবং লাইসেন্স ফি হিসেবে দেয় ৮ শতাংশ (ফাইল)

নয়াদিল্লি: সরকারের কাছে থাকা বকেয়া বাবাদ ১.৪৭ লক্ষ কোটি টাকার আংশিক মিটিয়েছে টেলিকম সংস্থাগুলি, এবার তাদের ব্যাঙ্ক ঋণ বকেয়া থেকে যাওয়া নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। সোমবার ভারতী এয়ারটেল ১০,০০০ কোটি টাকা পরিশোধ করেছে। তাদের অংশও পরিশোধ করেছে ভোডাফোন আইডিয়া এবং টাটা গ্রুপ। লোকসানে চলতে থাকা সংস্থাগুলিকে সুপ্রিম কোর্ট হঁশিয়ারি দিয়েছিল, তাদের মালিকের বিরুদ্ধে অবমাননার নোটিশ আনা হবে এবং সোমবারই তাদের আদালতে হাজিরার নির্দেশ দেয়। গত সপ্তাহের শুনানিতে, টেলিকম সংস্থা এবং সরকারের ওপর নির্দেশ থাকা সক্ত্বেও বকেয়া নিয়ে তোপ দাগে। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন বলেন, টেলিকম মন্ত্রকের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছেন তিনি এবং বিষয়টি নিয়ে মন্ত্রক কী পদক্ষেপ করে তা খুঁজে বের করা হবে।

এখানে রইল ১০'টি তথ্য:

  1. সোমবার টেলিকম মন্ত্রকে ১০,০০০ কোটি টাকা বকেয়া মেটাল ভারতী এয়ারটেল। ভোডাফোন আইডিয়া এবং টাটা গ্রুপ যথাক্রমে ২,৫০০ কোটি এবং ২,১৯৭ কোটি টাকা বকেয়া মিটিয়েছে। টেলিকম মন্ত্রকের থেকে জানা গিয়েছে, এয়ারটেলের বকেয়ার পরিমাণ ৩৫, ৫৮৬ কোটি টাকা। সোমবার ১০,০০০ কোটি টাকা পরিশোধের পর, তাদের আরও ২৫,৫৮৬ কোটি টাকা পরিশোধ করতে হবে। ভোডাফোনের বকেয়ার পরিমাণ ৫৩,০০০ কোটি টাকা। এদিনের পরিশোধের পর, তাদের আরও ৫০,৫০০ কোটি টাকা পরিশোধ করতে হবে। মোট ১৩,৮০০ কোটি টাকা পরিশোধ করতে হবে টাটা টেলিসার্ভিসকে। এই পরিশোধের সময়সীমা ১৭ মার্চ।
     

  2. আগামী পদক্ষেপ সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন বলেন, “সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পর, টেলিকমমন্ত্রক, টেলিকম সংস্থাগুলির সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছে। আমি মন্ত্রকের থেকে জানতে পারব, বিষয়টি নিয়ে তারা কী পদক্ষেপ করছে”, সংবাদসংস্থা পিটিআই এমনটাই জানিয়েছে।
     

  3. টেলিকম সংস্থাগুলির ওপর সরকারের বকেয়া পরিশোধ করার যে চাপ রয়েছে, তাতে তাদের ঋণগুলি বকেয়া থেকে যেতে পারে, পরিস্থিতির ওপর “খুব ভালভাবে” নজর রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গর্ভনর শক্তিকান্ত দাস।
     

  4. তাঁকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, “ব্যাঙ্কিং ক্ষেত্রের ওপর প্রভাবের ক্ষেত্রে, আমরা খুব ভালভাবে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। এটা নির্ভর করছে, কীভাবে সংস্থাগুলি তাদের বকেয়া মেটায় তার ওপর এবং কখন তারা বকেয়া মেটায়”।
     

  5. এর আগে, ভোডাফোন আইডিয়া প্রস্তাব দেয়, সোমবার তারা ২,৫০০ কোটি টাকা এবং শুক্রবার ১,০০০ কোটি টাকা পরিশোধ করবে, যদিও সেই প্রস্তাব খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট, তাদের বিরুদ্ধে কোনও বলপূর্বক ব্যবস্থা না নেওয়ার প্রস্তাব দেয় টেলিকম সংস্থাটি।
     

  6. গত শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট জানায়, “আধিকারিক এবং সংস্থার বিরুদ্ধে অবমাননার অভিযোগ আনা হবে”। বিচারপতি বলেন, “এক পয়সাও জমা করা হয়নি...এটা কি আর্থিক ক্ষমতার বহিঃপ্রকাশ নয়? আমরা বুঝতে পারছি না এই কাজ কে করছে, দেশে কি কোনও আইন নেই”?
     

  7. সুপ্রিম কোর্টের ধমকের পরেই, ২৩ জানুয়ারির নির্দেশ প্রত্যাহার করে টেলিকম মন্ত্রক, তাদের নির্দেশিকা ছিল, যে বকেয়া পরিশোধ না করতে পারলে টেলিকং সংস্থার বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করা যাবে না।
     

  8. অক্টোবরে টেলিকম মন্ত্রকের দাবি, বকেয়া ৯২,০০০ কোটি টাকা এবং সুদ পরিশোধ করুক মোবাইল সংস্থাগুলি এবং টেলিকম মন্ত্রকে তাদের বকেয়া পরিশোধের জন্য তিনমাসের সময়সীমা দেয়, বহাল রাখে শীর্ষ আদালত।
     

  9. টেলিকম সংস্থাগুলি তাদের এজিআরের ৩-৫ শতাংশ স্পেকট্রাম চার্জ হিসেবে টেলিকম মন্ত্রককে দেয় এবং লাইসেন্স ফি হিসেবে দেয় ৮ শতাংশ। টেলিকংসংস্থাগুলি দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে  আসছে যে, এজিআর হিসেব করা হোক মূল পরিষেবা গুলি থেকে। সরকারের বক্তব্য, সমস্ত আয় থেকেই হোক।
     

  10. গত কয়েক বছর ধরেই, প্রতিযোগিতার বাজারে টিকে থাকতে গিয়ে লোকসানে চলছে টেলিকম সংস্থাগুলি। ঋণের চাপে কয়েকটি সংস্থাতাদের ব্যবসা বন্ধ করে দিয়েছে। ডিসেম্বরে, ভোডাপোন আইডিয়ার চেয়ারম্যান কুমার মঙ্গলম বিড়লা জানান, বকেয়া নিয়ে কোনও ছাড় না পেলে, তাদের “ব্যবসা বন্ধ” করতে হবে। তিনি বলেন, “যদি আমরা কিছু না পাই, তাহলে আমার মনে হয়, ভোডাফোন আইডিয়ার গল্প শেষ”।



Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com