আপনারা সব কিছু নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন না: কেন্দ্রের হিন্দি আগ্রাসন নিয়ে মমতা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সোমবার জানিয়ে দিয়েছেন, আঞ্চলিক ভাষাকেই প্রাধান্য দিতে হবে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
আপনারা সব কিছু নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন না: কেন্দ্রের হিন্দি আগ্রাসন নিয়ে মমতা

হাইলাইটস

  1. মমতা জানিয়ে দিয়েছেন, আঞ্চলিক ভাষাকেই প্রাধান্য দিতে হবে।
  2. অবশেষে কেন্দ্র সেই খসড়া পরিবর্তন করেছে।
  3. বাধ্যতামূলক না করলেও ঐচ্ছিক বিষয় হিসেবে হিন্দিকে রাখা হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) সোমবার জানিয়ে দিয়েছেন, আঞ্চলিক ভাষাকেই প্রাধান্য দিতে হবে। দক্ষিণের রাজ্যগুলির কেন্দ্রের অধুনা-বাতিল করা পরিকল্পনার প্রতিবাদের সমর্থনে তিনি একথা জানিয়েছেন। হিন্দি ভাষা প্রচলিত নেই যে রাজ্যগুলিতে সেখানে হিন্দি ভাষা শিক্ষা আবশ্যিক করার ওই পরিকল্পনা নিয়ে প্রতিবাদে মুখর হয়েছিল দক্ষিণের রাজ্যগুলি। রাজ্য সচিবালয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, কে কোন ভাষা ব্যবহার করবেন, সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে মানুষকে স্বাধীনতা দিতে হবে। তিনি বলেন, ‘‘প্রত্যেক রাজ্যের পৃথক চরিত্র ও পৃথক ভাষা রয়েছে। আঞ্চলিক ভাষাকে অবশ্যই প্রাধান্য দেওয়া উচিত। আঞ্চলিক ভাষার জন্য আমার পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। মাতৃভাষাকে গুরুত্ব দিতেই হবে। তারপরে অন্য ভাষাকে।'' 

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বের সবচেয়ে উষ্ণ ১৫টি জায়গার মধ্যে ৮টি-ই ভারতের

বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্দেশে মমতা বলেন, ‘‘আপনারা সব কিছু নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না। বেছে নেওয়ার (ভাষা বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে) স্বাধীনতা দিতেই হবে। প্রত্যেক আঞ্চলিক ভাষাকেই আমাদের সম্মান দিতে হবে।'' সোমবার কেন্দ্র অ-হিন্দিভাষী রাজ্যে হিন্দি শিক্ষা আবশ্যক করার পরিকল্পনা বাতিল করেছে। ওই প্রস্তাবটির খসড়া সামনে আসতেই প্রতিবাদে সামিল হয় দক্ষিণের রাজ্যগুলি। ডিএমকে এবং  তামিলনাডুর অন্য দলগুলি তিন ভাষা ফর্মুলার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সামিল হয়। জোর করে অ-হিন্দিভাষী রাজ্যে হিন্দিকে ঢুকিয়ে দেওয়া তথা হিন্দি আগ্রাসনের অভিযোগে মুখর হয় তারা।

টুইটার ভেসে যেতে থাকে অজস্র মেসেজে। তামিলনাডু, যেখানে বিষয়টি অত্যন্ত আবেগময়, সেখানকার রাজনীতিবিদরা এই প্রতিবাদকে নেতৃত্ব দিতে থাকেন। ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গ্যানাইজেশন (ইসরো)-র প্রাক্তন প্রধান কৃষ্ণস্বামী কস্তুরীরঙ্গনের নেতৃত্বে বিশেষজ্ঞদের একটি প্যানেলের ওই হিন্দি-কেন্দ্রিক প্রস্তাবের বিরুদ্ধে শুরু হয় প্রতিবাদ।  টুইটার ব্যবহারকারীদের প্রতিবাদে #StopHindiImposition ও #TNAgainstHindiImposition এই দু'টি সবচেয়ে বড় ট্রেন্ড হয়ে ওঠে। প্রসঙ্গত, তামিলনাডু দীর্ঘদিন ধরেই হিন্দিকে অন্যান্য ভারতীয় ভাষার থেকে অধিক প্রাধান্য দেওয়ার বিষয়টিতে প্রতিবাদ করে আসছে। 

ইভিএম নিয়ে প্রশ্ন তুললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ব্যালট পেপারেই ভোটের দাবি

অবশেষে কেন্দ্র সেই খসড়া পরিবর্তন করেছে। তবে,বাধ্যতামূলক না করা হলেও ঐচ্ছিক বিষয় হিসেবে হিন্দিকে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................