This Article is From Sep 16, 2019

৭৪ বছরে মা! যমজ মেয়ে কোলে নিয়ে বাড়ি ফিরলেন রাজা-মঙ্গায়াম্মা

৭৪ বছরে আইভিএফ-এর মাধ্যমে যমজ কন্যাসন্তানের (twin girls ) জন্ম দিয়ে মাতৃত্বের নজির গড়লেন অন্ধ্র প্রদেশের মঙ্গয়াম্মা (Mangayamma)।

যমজ কন্যাসন্তানের জন্ম দিলেন প্রবীণ দম্পতি

হায়দরাবাদ:

বিজ্ঞানের কাছে হার মানল প্রকৃতি। সন্তান কামনার কাছে পরাজয় স্বীকার করতে বাধ্য হল বয়স। ৭৪ বছরে আইভিএফ-এর মাধ্যমে যমজ কন্যাসন্তানের (twin girls ) জন্ম দিয়ে মাতৃত্বের নজির গড়লেন অন্ধ্র প্রদেশের মঙ্গয়াম্মা (Mangayamma)। বিশ্বের প্রবীণতম মা-বাবা হিসেবে তাঁর সঙ্গে উচ্চারিত হচ্ছে তাঁর স্বামী, ৮০ বছরের রাজা রাওয়ের ( Raja Rao) নামও। সেই প্রবীণ অভিভাবক (world's oldest parents) হাসিমুখে দুই মেয়ে কোলে ঘরে ফিরলেন রবিবার। খবর, মা এবং দুই সন্তান, উভয়েই ভালো আছেন। আপাতত তাঁরা রয়েছেন এক আত্মীয়ের বাড়িতে। 

অন্ধ্রপ্রদেশে নৌকাডুবিতে মৃত বারো, নিখোঁজ বহু মানুষ

যদিও এর আগে শোনা গেছিল, রাজা রাও নাকি এই পদ্ধতিতে চলার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সেই খবর নস্যাৎ করে জানান, ৮০ বছরের রাজা ফুসফুসে সংক্রমণ নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন। তাঁকে নজরে রাখতেই আইসিইউ-তে ভর্তি করা হয়েছিল। এছাড়, মঙ্গায়াম্মাও যথেষ্ট কর্মঠ হলেও স্বাস্থ্যের নিরাপত্তা ও নজরদারির খাতিরে তাঁকেও রাখা হয় ইনটেনসিভ কেয়ারে। যদিও দু-জনের কারোরই বিশেষ চিকিৎসার প্রয়োজন পড়েনি। একই ভাবে সংক্রমণ এড়াতে দুই যমজ কন্যা সন্তানকেও সদ্যজাত আইসিইউ-তে রাখা হয়েছিল বলে জানান ডা, উমা শঙ্কর। দুই সদ্যোজাতই ভালো আছে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

রবিবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর আপাতত রাজা-মঙ্গয়াম্মা উঠেছেন তাঁদের ভাইঝি লক্ষ্মীর বাড়িতে। এবং লক্ষ্মী জানিয়েছেন, ১৫-২০ জনের বাস তাঁর পরিবারে। সবাই উদগ্রীব এই দম্পতির দেখভালের জন্য। পাশাপাশি, সন্তানদেরও দেখাশোনা ও বড় করে তোলার দায়িত্ব এক্ষুণিই তিনি ছেড়ে দিতে চাইছেন না প্রবীণ দম্পতির হাতে।

Engineer's Day 2019: ইঞ্জিনিয়ার মানেই অধ্যাবসায় আর সংকল্প! টুইটে লিখলেন প্রধানমন্ত্রী

এপ্রসঙ্গে জানা গেছে, শরীরের বয়স বাড়লেও মনের বয়স না বাড়ায় এই বয়সে এসেও দম্পতি সন্তানের জন্য গত কয়েক বছর ধরেই চেষ্টা করে গেছেন। শেষে প্রাকৃতিক উপায়ে সম্ভব না হওয়ায়, তাঁরা দ্বারস্থ হন আইভিএফ পদ্ধতির। বিজ্ঞানের আশীর্বাদে চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে গর্ভধারণ করেন মঙ্গয়াম্মা। যমজ সন্তানের জন্ম দেন ৫ সেপ্টেম্বর। সন্তান ধারণের পর থেকেই তাঁর স্বাস্থ্যের দেখভালের জন্য আলাদা একটি ডাক্তারদের টিম গঠন করেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।