World Environment Day 2020: বিশ্ব পরিবেশ দিবস: বিশুদ্ধ রাখুন বায়ু, ঘরেই রাখুন এই গাছগুলো

World Environment Day: কিছু কিছু গাছ আছে যা ঘরে রাখলে একদিকে যেমন আপনার ঘরের বাতাস বিশুদ্ধ থাকবে, তেমনই গাছগুলো ঘরের শোভাও বাড়াবে

World Environment Day 2020: বিশ্ব পরিবেশ দিবস: বিশুদ্ধ রাখুন বায়ু, ঘরেই রাখুন এই গাছগুলো

Indoor Plants That Clean The Air: ঘরের মধ্যে গাছপালা রাখলে বায়ু বিশুদ্ধ থাকে (প্রতীকী চিত্র)

হাইলাইটস

  • একটি গাছ, একটি প্রাণ, তবে ঘরের বাতাস পরিশুদ্ধ রাখতে ঘরেও রাখুন গাছ
  • ইনডোর প্ল্যানগুলো যেমন উপকারী, তেমনই ঘরের শোভা বর্ধনকারী
  • বিশ্ব পরিবেশ দিবসে এবছরের থিম জীববৈচিত্র রক্ষা

নিজে বাঁচতে হলে সবার আগে আপনার পরিবেশকে বাঁচান, করোনা সঙ্কট সহ নানা সমস্যা থেকে দেশ তথা গোটা বিশ্বকে বাঁচাতে এমনটাই বলছেন পরিবেশবিদরা। সেই ১৯৭৪ সাল থেকে প্রতিবছর ৫ জুন দিনটিকে বিশ্ব পরিবেশ দিবস (World Environment Day) হিসাবে পালন করা হয়। রাষ্ট্রসংঘও বারবার পরিবেশ সংরক্ষণের প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দিচ্ছে। মানবজাতিকে বাঁচতে হলে পরিবেশকে বাঁচাতে হবে, গাছকে বাঁচাতেই হবে। ২০২০ সাল এমনিতেই সারা বিশ্বের কাছে এক বিষের বছর হিসাবে ধরা দিয়েছে। এবারের (World Environment Day 2020) বিশ্ব পরিবেশ দিবসের থিম হ'ল জীববৈচিত্র্য। যেভাবে আমাদের পৃথিবী থেকে অন্যান্য প্রজাতির জীবের সংখ্যা কমে যাচ্ছে তা যথেষ্টই উদ্বেগের, বলছে রাষ্ট্রসংঘ। তাই এই বছরটিতে, আমাদের গ্রহের জীববৈচিত্র্য রক্ষার জন্য জরুরি পদক্ষেপের আহ্বান জানিয়ে বিশ্ব পরিবেশ দিবসটি পালন করা হচ্ছে। "কোভিড-১৯ এর বাড়বাড়ন্তে এই সত্যটি পরিষ্কার যে, জীববৈচিত্র্যকে ধ্বংস করলে মানুষও বাঁচতে পারবে না" ।

ভাসছে ঘর, চোখের পলকে কোথায় চলে গেল সম্পূর্ণ বস্তি? দেখুন ভিডিও

কিছু কিছু গাছ (Indoor Plants That Clean The Air) আছে যা ঘরে রাখলে একদিকে যেমন আপনার ঘরের বাতাস বিশুদ্ধ থাকবে, তেমনই গাছগুলো ঘরের শোভাও বাড়াবে।

সেই বাইসাইকেল! অমর্ত্য সেনকে নোবেল পেতে যে বাহন সাহায্য করেছিল

মানি প্ল্যান্ট

হৃদয় আকৃতির পাতা থাকে এই গাছগুলোতে, বেশ শক্তপোক্ত গাছ হয় এগুলো, এটি সাধারণত একটি ইনডোর প্ল্যান্ট। এর রক্ষণাবেক্ষণে খুব একটা কসরতও করতে হয় না। এই গাছটি রাতে অক্সিজেন দেয় এবং বায়ুকে পরিশুদ্ধ করে। তাছাড়া দেখতেও ভারী সুন্দর এই গাছ।

আরেকা পাম

এই গাছটি ফর্মালডিহাইড এবং বেনজিনের মতো ক্ষতিকারক গ্যাসগুলি শোষণ করতে পারে। আসলে, এই গাছটি কেবল বাতাসকে পরিশুদ্ধই করে না, এটি বাতাসে আর্দ্রতাও যুক্ত করে এবং সাইনাসের সমস্যায় ভোগা মানুষজনের উপকারে আসে। ছায়া ছায়া পরিবেশেই এটি বেড়ে উঠতে পছন্দ করে, তাই একে অন্দর সজ্জার জন্যে রাখাই যায় ঘরে। 

জারবেরা

যারা খুব অল্প যত্নেই উজ্জ্বল রঙের ফুল ফোটাতে চান তাঁরা ঘরে রাখতেই পারেন জারবেরা। এই গাছটি বার্বারটন ডেইজি নামেও পরিচিত - এটি বায়ু পরিশোধক উদ্ভিদ। মহাকাশ স্টেশনগুলিতে বায়ু পরিষ্কার করার বিভিন্ন উপায় নিয়ে গবেষণা করার জন্য নাসা জারবেরাকে গাছ ব্যবহার করে।

স্নেক প্ল্যান্ট

এই গাছটি শুধু যে সুন্দর দেখতে তাই নয়, এটা আপনার বাড়ির বাতাসকে বিশুদ্ধ করতেও সাহায্য করে। ঘরের জানলা দিয়ে যেটুকু রোদ আসে বেঁচে থাকার জন্যে এই গাছের সেটাই যথেষ্ট। এই গাছ আপনার চারপাশের বাতাস থেকে ফর্মালডিহাইড, নাইট্রোজেন অক্সাইড, বেনজিনের মতো টক্সিন অপসারণ করে বাতাসকে শুদ্ধ করে।

তুলসি

তুলসি এমন একটি গাছ যাকে ওষধি গাছও বলেন অনেকে। দারুণভাবে বায়ু-পরিশোধনকারী এই গাছটি। এটি সামান্য সূর্যের আলোতেই বেড়ে উঠতে পারে এবং ক্ষতিকারক টক্সিনগুলি টেনে নিয়ে বায়ুকে শোধন করতে পারে।

Click for more trending news