‘মারাত্মক মন্দা'র আশঙ্কা: ভারতের প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস ৬ শতাংশে নামিয়ে সতর্কবার্তা বিশ্বব্যাংকের

India Growth Rate: বিশ্বব্যাংক ভারতের চলতি অর্থবছরের জন্য প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস ৬ শতাংশে নামিয়ে এনে সতর্কবার্তা দিয়েছে যে, ‘মারাত্মক' মন্দা দেশের অস্থির অর্থনৈতিক অবস্থাকে আরও দুর্বল করতে পারে

দীর্ঘমেয়াদি দুর্বল প্রবৃদ্ধি সরকারের রাজস্ব একীকরণ পরিকল্পনাকে সমস্যায় ফেলবে।

নয়াদিল্লি:

রবিবার বিশ্বব্যাংক (The World Bank) ভারতের চলতি অর্থবছরের জন্য প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস (growth forecast) ৬ শতাংশে নামিয়ে এনে সতর্কবার্তা দিয়েছে যে, ‘মারাত্মক' মন্দা দেশের অস্থির অর্থনৈতিক অবস্থাকে আরও দুর্বল করতে পারে। এপ্রিলে তার শেষ পূর্বাভাসে, ব্যাংক জানিয়েছিল যে এপ্রিল মাসে শুরু হওয়া চলতি অর্থবছরে ভারতের অর্থনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি বেশ দৃঢ় এবং প্রত্যাশিত প্রবৃদ্ধি হবে ৭.৫ শতাংশ। কিন্তু ভারত বর্তমানে গত ছয় বছরের তুলনায় সবচেয়ে ধীর গতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে, এপ্রিল-জুন ত্রৈমাসিকের মাত্র পাঁচ শতাংশ প্রসারিত হয়েছে এই বৃদ্ধি। ভোক্তাদের চাহিদা এবং সরকারি ব্যয়কে পিছিয়ে রেখে ভগ্নদশা অর্থনীতির। 

৩ টি সিনেমা একদিনে ১২০ কোটির ব্যবসা করেছে, দেশের অর্থনীতি তো ভালোই: কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

অগাস্টে গত ছয় বছরের থেকে সবচেয়ে বেশি দ্রুততম হারে সঙ্কুচিত হয়েছিল ভারতের শিল্প উত্পাদন, গত সপ্তাহে প্রকাশিত তথ্যে দেখা গেছে যে, বেশ কয়েকটি সরকারি ব্যবস্থা এখনও এই দোলাচল ও উৎপাদন হ্রাসের সমস্যার মোকাবিলা করতে পারেনি। অর্থনীতিরকে আরও একটু গতিশীল করার প্রয়াসে, ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংক বা আরবিআই এই বছর পাঁচ বার সুদের হার কমিয়েছে এবং এ মাসের শুরুতেই ৬.৯ শতাংশ থেকে ৬.১ শতাংশে বৃদ্ধির হার নামিয়ে এনে নীতি নির্ধারকদের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি ফেলেছে।

গত সপ্তাহে রেটিং এজেন্সি মুডি'স ইনভেস্টরস সার্ভিস ভারতের জন্য তাদের প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস চলতি অর্থবছরে ৬.২ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫.৮ শতাংশ করে দেয় এবং এই সংস্থা আরও জানিয়েছে যে দীর্ঘমেয়াদি দুর্বল প্রবৃদ্ধি সরকারের রাজস্ব একীকরণ পরিকল্পনাকে সমস্যায় ফেলবে।

ভারতের অর্থনৈতিক বৃদ্ধি "প্রত্যাশার চেয়ে কেন দুর্বল" ব্যাখ্যা করল IMF

বিশ্বব্যাংকের সর্বশেষ পূর্বাভাসও হ্রাস প্রবৃদ্ধির এবং কর রাজস্বে প্রায় দেড় ট্রিলিয়ন অর্থ ব্যয় করা কর্পোরেট করের হার কমানোর নয়াদিল্লির সিদ্ধান্তের সঙ্গেই সম্পর্কিত। “যদিও কর্তৃপক্ষগুলি রাজস্ব বিচক্ষণতার প্রতি অবিচল প্রতিশ্রুতি দেখিয়েছে তাও এই প্রবৃদ্ধি হ্রাস তাত্পর্যপূর্ণ এবং এটি মোকাবেলায় গৃহীত কর্পোরেট ট্যাক্স কমানোর ফলে রাজস্ব কমে যাওয়ার ঝুঁকি আরও বেড়েছে,” এমনটাই লেখা হয়েছে ব্যাংকের প্রতিবেদনে।

ব্যাংক জানিয়েছে যে তারা আশাবাদী, অর্থনীতি ধীরে ধীরে সুস্থ স্বাভাবিক হয়ে উঠবে, আগামী এপ্রিলে শুরু হতে চলা ২০২০/২০২১ অর্থবছরে ৬.৯ শতাংশ হারে বৃদ্ধির সম্ভাবনা দেখছে তারা।

More News