'কেন ভারতে নিরাপদ নই'? সংসদের সামনে প্রতিবাদ যুবতীর

গর্জে উঠেছিলেন ক্ষোভে, 'কেন ভারতকে নিরাপদ মনে করতে পারছি না'?

'কেন ভারতে নিরাপদ নই'? সংসদের সামনে প্রতিবাদ যুবতীর

সংসদ ভবনের সামনে প্রতিবাদে মুখর অনু

নয়া দিল্লি:

বিশ্বকবির বাণী মর্মে মর্মে উপলব্ধি করেছিলেন মহাত্মা গান্ধি---যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে তবে একলা চলো রে...। সেই গানই আরও একবার হাতিয়ার হয়ে উঠল মধ্য কুড়ির অনু দুবের (Anu Dubey)। খবর, কারোর তোয়াক্কা না করে শনিবার সকালে একাই প্রতিবাদ ধর্নায় তিনি বসেছিলেন সংসদ ভবনের (parliament) সামনের ফুটপাথে। গর্জে উঠেছিলেন ক্ষোভে, 'কেন ভারতকে নিরাপদ মনে করতে পারছি না'? তিনি মুখ খুলেছেন, তেলেঙ্গানা পশু চিকিৎসক ধর্ষণ-হত্যার বিরুদ্ধে। জানতে চেয়েছেন, নির্ভয়া কাণ্ডের পরেও কী করে বারবার বর্বরোচিত আক্রমণের শিকার হচ্ছেন দেশের নারীরা? জানতে চেয়েছেন, তাহলে কি দেশ যথেষ্ট নিরাপত্তা দিতে পারছে না নারীদের?

বন্ধুদের সঙ্গে জন্মদিন পালন করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার কিশোরী, ধৃত চার

দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, ওই দিন সকাল সকাল হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে Parliament-এর ২-৩ নম্বর গেটের সামনে ফুটপাথে বসে পড়েন। মুখে প্রতিবাদ, 'কেন ভারতের নিরাপদ নয় আমার কাছে'? প্রতিবাদ যাতে দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়তে না পারে তার জন্যই সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে যন্তরমন্তর-এর রাস্তায় সরে যেতে বলে প্রশাসন। অনু সেই নির্দেশ না মানলে তাঁকে পুলিশ ভ্যানে করে নিয়ে যাওয়া হয় পার্লামেন্ট স্ট্রিট পুলিশ স্টেশনে। অপমানে তখন তাঁর দু-চোখ বেয়ে অঝোর ধারায় কান্না ঝরছিল। পরে অবশ্য অভিযোগ শুনে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ধর্ষণ করে খুন রাজধানীতে, ২৪-এর হাতে প্রাণ গেল ৫৫-র প্রৌঢা়র

পরে সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় দুবে জানান, তিনি সরকারি অফিসারদের সঙ্গে কথা বলতে চান। এবিষয়ে দিল্লি কমিশন ফর উইমেন প্রধান স্বাতী মালিওয়ালের অভিযোগ, থানায় নিয়ে গিয়ে দিল্লি পুলিশ মারধর করেছে অনুকে। ট্যুইটে তিনি লেখেন, "হায়দ্রাবাদে মানসিক ধর্ষণের প্রতিবাদে একজন ছাত্রী যখন মুখ খুলতে গেল, তখন তাকে আটক করে মারধর করল দিল্লি পুলিশ। আমি থানায় মেয়েটির সঙ্গে দেখা করেছিলাময়। প্রতিবাদের এই পরিণতি-ই কি কাম্য?" যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে পুলিশ।

More News