ফের কলকাতায় নিগ্রহ! অফিস টাইমে হেনস্থা আন্তর্জাতিক বক্সারকে! ফেসবুকে তৎপর পুলিশ

সম্প্রতি তাইওয়ান পেশাদার বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছেন সুমন কুমারী (Suman Kumari)।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
ফের কলকাতায় নিগ্রহ! অফিস টাইমে হেনস্থা আন্তর্জাতিক বক্সারকে! ফেসবুকে তৎপর পুলিশ

সুমন কুমারী রাজ্য কৃষি বিভাগের একজন অস্থায়ী কর্মচারী।


কলকাতা: 

অফিস টাইমে কলকাতা শহরের বুকে ফের এক মহিলাকে হেনস্থার ঘটনা আবারও প্রশ্ন তুলছে এই শহরে বাড়তে থাকা অপরাধ প্রবণতা নিয়ে! পুলিশ সূত্রের খবর, শুক্রবার দুপুরে বাইকে চেপে অফিস যাওয়ার পথেই আন্তর্জাতিক এই মহিলা বক্সারকে (international woman boxer) কটুক্তি করে তাঁকে শারীরিকভাবে নিগ্রহ করা হয়। পরে নিজের ফেসবুক পোস্টে, বক্সার সুমন কুমারী (Suman Kumari) দাবি করেন যে, ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ কলকাতার মোমিনপুর (Mominpur) এলাকায়। সকাল তখন ১১ টা প্রায়। ঘটনাটির পরেই কাছাকাছি থাকা একজন পুলিশের কাছ থেকে সাহায্য চেয়েছিলেন সুমন। ওই পুলিশকর্মীই তাঁকে নিকটস্থ থানায় অভিযোগ জানানোর পরামর্শ দেন। 

সাবধান! এ রাজ্যেও দ্রুত নামছে জলস্তর; জলের অপচয় কমাতে আর্জি মুখ্যমন্ত্রী মমতার

সুমন নিজের পোস্টে কলকাতা পুলিশকেও ট্যাগ করেন। পরে ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। দিন কয়েক আগেই প্রাক্তন মিস ইন্ডিয়া ঊষসী সেনগুপ্ত (Ushoshi Sengupta) ও তাঁর গাড়ির চালককে গভীর রাতে অ্যাপ-ক্যাবে করে ঘরে ফেরার সময় কয়েকজন দুষ্কৃতী নিগ্রহ করে। এই ঘটনার এক সপ্তাহের মধ্যেই বক্সার (international woman boxer) সুমন কুমারীর হেনস্থার ঘটনা ঘটল এই শহরে।

সম্প্রতি তাইওয়ান পেশাদার বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছেন সুমন কুমারী (Suman Kumari)। তিনি জানান, মোমিনপুরে তাঁর বাড়ির কাছেই অফিসে যাওয়ার জন্য নিজের স্কুটিতে চাপছিলেন তিনি, সেই সময় প্রথমে তাঁকে উদ্দেশ্য করে কটুক্তি করে এক ব্যক্তি এবং তারপর তাঁকে শারীরিকভাবে হেনস্থাও করে ওই একই ব্যক্তি।

সুমন কুমারী রাজ্য কৃষি বিভাগের একজন অস্থায়ী কর্মচারী। সুমন বলেন, “ঘটনাটি ঘটে সকাল ১১ টার দিকে। আমি আমার স্কুটিতে চেপে অফিসে যাচ্ছিলাম এবং একটি লোক হঠাৎই বাস ধরার জন্য আমার সামনে চলে আসে। আমি তক্ষুণি ব্রেক কষি, কিন্তু ওই ব্যক্তি আমাকে অশ্রাব্য গালাগালি করে এবং বাসে উঠে পড়ে।” 

যৌন সম্পর্কে 'না', দূর সম্পর্কের ভাগ্নীকে অ্যসিড ছুঁড়ল মামা!

সুমনের কথায়, “আমি বাসটিকে ধাওয়া করি এবং পরবর্তী স্টপে লোকটি নামলে তাঁকে জিজ্ঞেস করলাম, কেন তিনি আমাকে এরকম হেনস্থা করলেন। তখন ফের ওই ব্যক্তি আমাকে অপমান করে এবং বাস থেকে নেমে হঠাৎ আমার গলা চেপে ধরে। আমি কাছাকাছি থাকা একজন পুলিশের মনোযোগ আকর্ষণের চেষ্টা করি, কিন্তু তিনি এগিয়ে আসেননি।”

ফেসবুকে সুমন লিখেছেন, “তারপরেও আমি কলকাতা পুলিশের (Kolkata Police) উপর যথেষ্ট আস্থা রাখি। তাই আমি কলকাতা পুলিশকে এই বিষয়ে নজর দিতে এবং শহরে আইন কানুন যতটা সম্ভব পুনরুদ্ধারের জন্য অনুরোধ করছি। একমাত্র তাহলেই আমার প্রিয় শহর মহিলাদের জন্য আরও নিরাপদ হবে।”

ফেসবুক পেজে কলকাতা পুলিশ (Kolkata Police) জানিয়েছে, সুমনের পোস্টের ভিত্তিতে তাঁরা একটি মামলা দায়ের করেছে এবং ওই এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ দেখার পর তিনজনকে - রাহুল শর্মা, শেখ ফিরোজ ও ওয়াসিম খানকে গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ তাঁদের পেজেই বক্সার সুমন কুমারীকে উল্লেখ করে জানিয়েছে, “আমরা এক ঘন্টার মধ্যেই অপরাধীদের সনাক্ত করেছি এবং গ্রেফতার করেছি এবং আমরা নিশ্চিত করব যে, তারা যেন সঠিক শাস্তি পায়।"

 



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

Quick Links
PNR Status

................................ Advertisement ................................