চলচ্চিত্র উৎসবের আসল তারকা কি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী, বিতর্ক তুঙ্গে

২৪-তম কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হয়েছে। উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খান, জয়া বচ্চন, ওয়াহিদা রহমান, মহেশ ভাট প্রমুখ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় অনীক দত্তর মন্তব্য নিয়ে রীতিমতো ঝড় বয়ে গিয়েছে

কলকাতা:

২৪-তম কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হয়েছে। উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খান, জয়া বচ্চন, ওয়াহিদা রহমান, মহেশ ভাট প্রমুখ। চোখধাঁধানো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কয়েক হাজার মানুষের উপস্থিতিতে জাঁকজমকের কোনও অভাব ছিল না। কিন্তু সেই অনুষ্ঠানে শাহরুখ খানের আসন্ন ছবি 'জিরো'র ট্রেলার দেখানো নিয়ে কিছুটা ভুরু কুঁচকে ছিলেন সিনেমাপ্রেমীরা। শাহরুখের দাবি ছিল, তাঁকে সব চলচ্চিত্র উৎসবে ডাকা হলেও, তিনি হিন্দি সিনেমার গত সাতাশ বছরের অতি বড় তারকা হওয়া সত্ত্বেও, কখনও কোনও চলচ্চিত্র উৎসবে তাঁর ছবি দেখানো হয় না। তাঁর অনুরোধ ছিল, এই চিরাচরিত দৃশ্যটি বদলে দিয়ে এবার অন্তত আর কিছু না হোক তাঁর ছবির ট্রেলার দেখানো হোক চলচ্চিত্র উৎসবে। সেই দাবি মেনে নিয়ে ট্রেলারটি চালানোও হয়। কিন্তু, বিতর্কের এতেই শেষ নয়। নন্দনে চলচ্চিত্র উৎসব প্রাঙ্গণে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিশাল বিশাল চারটি ছবি দিয়ে সাজানো হয়েছে মূল গেটটি। যা নিয়ে সরব হয়েছেন বহু মানুষ। মূলত সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন 'ভূতের ভবিষ্যৎ'-খ্যাত পরিচালক অনীক দত্ত। 

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বহু বই লিখলেও তিনি তো কখনও সিনেমা বানাননি। তাহলে তাঁর এত বড় বড় ছবি চলচ্চিত্র উৎসব প্রাঙ্গণে কী করতে রয়েছে? যেখানে এই বাংলা থেকেই বিশ্বমানের সিনেমা পরিচালক বা অভিনেতার সংখ্যা কখনওই অপ্রতুল নয়। এমন প্রশ্নই তুলেছেন বহু চলচ্চিত্রমোদী। 

এই বিতর্ককেই উসকে দিয়েছে অনীক দত্তের একটি মন্তব্য। উৎসবে একটি বিতর্কসভায় আমন্ত্রিত ছিলেন তিনি। যে বিতর্কের বিষয় ছিল- 'সিনেমাটা কে বানায়- প্রযোজক না পরিচালক'। সেখানে তিনি রসিকতা করে বলেন, অন্তত কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব দেখে যা মনে হচ্ছে, ছবিটা প্রযোজক বা পরিচালক কেউই নন, আসলে বানান তিনি, যাঁর ছবি চলচ্চিত্র উৎসবের গোটা প্রাঙ্গণ জুড়ে জ্বলজ্বল করছে। 

এনডিটিভিকে অনীক দত্ত বললেন, "আমি প্রধান গেট দিয়ে ঢোকার পর অবাক হয়ে দেখলাম, সত্যজিৎ রায়ের তৈরি 'নন্দন' লোগোটির পাশে রয়েছে এমন একজন রাজনৈতিক নেতার মুখ, যাঁর সঙ্গে কস্মিনকালেও সিনেমার কোনও সম্পর্ক ছিল না। আমি ওই আলোচনাতে অংশগ্রহণ করে ঠিক এই কথাটিই মজাচ্ছলে বলি"। 

"আমি বলেছিলাম, আমি কেউ নন্দনে এলে নিশ্চিতভাবে মনে করবেন, একমাত্র একজন মানুষই এখানে ছবি তৈরি করেন"। তিনি আরও বলেন, "গোটা শহরেরই তো আজ এই অবস্থা। আমরা তাতে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছি। কিন্তু, চলচ্চিত্র উৎসব প্রাঙ্গণে এই ব্যাপারটা একদমই মানা যায় না। আমি ঠিক সেটাই বলেছি"। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর মন্তব্য নিয়ে রীতিমতো ঝড় বয়ে গিয়েছে। পরিচালক অতনু ঘোষ সহ বহু মানুষ তাঁর বক্তব্যের সমর্থনে মুখ খুলেছেন। আবার অনেকেই তাঁর বিপক্ষে বলছে। আদতে চলছে তীব্র চাপানউতোর। 

তাঁর মন্তব্যের কারণে এসএমএস এবং হোয়াটসঅ্যাপে প্রচুর শুভেচ্ছাবার্তা পাচ্ছেন জানিয়ে দৃশ্যতই হতবাক অনীকের মন্তব্য, "আমি জানি না, কেন এগুলো হচ্ছে। একজন স্বাধীন নাগরিক হিসেবে আমি আমার মতামতটাই ব্যক্ত করেছি কেবল। এর বেশি কিছু নয়। এর জন্য আলাদা করে অভিনন্দনের কিছু নেই"।

More News