কাজ ফেলে প্রতিবাদ-আন্দোলনে বসায় পার্শ্ব শিক্ষকদের শো-কজ নোটিস ধরালো রাজ্য

Show-cause notice: ১১ থেকে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত তাঁরা যে কাজ বন্ধ রেখে আন্দোলন করছেন, সেই বিষয়ে তাঁদের কর্মক্ষেত্রে অনুপস্থিতির কারণ দর্শাতে হবে

কাজ ফেলে প্রতিবাদ-আন্দোলনে বসায় পার্শ্ব শিক্ষকদের শো-কজ নোটিস ধরালো রাজ্য

West Bengal: বেতনবৃদ্ধির দাবিতে অনশনে বসেন রাজ্যের পার্শ্বশিক্ষকরা

কলকাতা:

দেখতে দেখতে ১৯ দিন হয়ে গেল, এখনও বেতন বৃদ্ধির দাবিতে অনির্দিষ্টকালের অনশনে বসে রয়েছেন রাজ্যের (West Bengal) পার্শ্ব-শিক্ষকরা। কিন্তু আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনা তো দূর অস্ত, এবার তাঁদের শো-কজ নোটিস দিল রাজ্য সরকার। ফলে প্রতিবাদ বিক্ষোভ তথা অনশনের কারণে যাঁরা ক্লাস নেননি তাঁদের এবার কারণ দর্শাতে (Show-cause notices) হবে। একটি বিজ্ঞপ্তিতে ''পশ্চিমবঙ্গ সমগ্র শিক্ষা মিশন''-এর রাজ্য প্রকল্পের পরিচালক শুভাঞ্জন দাস বলেন, ১১ থেকে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত তাঁরা যে কাজ বন্ধ রেখে আন্দোলন করছেন, সেই বিষয়ে তাঁদের কর্মক্ষেত্রে অনুপস্থিতির কারণ দর্শানোর কথা বলেছে সরকার। আন্দোলনকারী শিক্ষকদের (Para-Teacher) কাছ থেকে আগামী ১০দিনের মধ্যে এই বিষয়ে জবাব চেয়েছেন তিনি। পাশাপাশি এই কর্মকর্তা তাঁর চিঠিতে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের বলেছেন যে পার্শ্ব শিক্ষকদের দেওয়া কোনও জবাব "অ-সন্তোষজনক" মনে হলে তাঁরা উচ্চতর কর্তৃপক্ষের কাছে এর প্রমাণ সহ ব্যাখ্যাও চাইতে পারেন। "যদি কোনও পার্শ্ব-শিক্ষক ফিল্ড ডিউটি ​​করেছেন বলে দাবি করেন, তবে তাঁর দাবির সত্যতা যাচাই করা দরকার", ওই নোটিসে এই কথাও বলা হয়েছে।

বেতনবৃদ্ধির দাবিতে অনশনে পার্শ্বশিক্ষকরা

সরকারি বিদ্যালয়ে চুক্তির ভিত্তিতে কাজ করা এক হাজারেরও বেশি পার্শ্ব শিক্ষক সল্টলেকের বিকাশ ভবনের (উচ্চশিক্ষা বিভাগের সদর দফতর) কাছে ১১ নভেম্বর থেকে বিক্ষোভ শুরু করেছেন। বেতন কাঠামো পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়ে আন্দোলনকারীদের মধ্যে কমপক্ষে ৩৭ জন ১৫ নভেম্বর থেকে অনির্দিষ্টকালের অনশনে বসেছেন।

রাজ্য সরকারকে পার্শ্ব শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসার আহ্বান জানালেন রাজ্যপাল

সরকারের এই পদক্ষেপকে ভয় দেখানোর চেষ্টা বলে উল্লেখ করে পার্শ্ব-শিক্ষক সমিতির সদস্য ভগীরথ ঘোষ বলেন, সরকার সম্মতি না মেলা পর্যন্ত বিক্ষোভ অব্যাহত থাকবে। তিনি বলেন প্রতিবাদের সময় প্রায় ২০ জন শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন, তা সত্ত্বেও "আমাদের নৈতিক শক্তি অক্ষত রয়েছে"।  "এই শো-কজ নোটিস জারি করা আসলে আমাদের উপর চাপ বাড়ানোর কৌশল ছাড়া আর কিছুই নয় ... যতক্ষণ না সরকার আমাদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে এবং পার্শ্ব শিক্ষকদের জন্য আমাদের 'প্রাথমিক' 'শিক্ষকদের সমান মর্যাদা দেওয়ার প্রাথমিক দাবিতে রাজি না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত আমরা আমাদের আন্দোলন চালিয়ে যাব", বলেন পার্শ্ব-শিক্ষকদের আন্দোলনের সংগঠন ''পার্শ্ব-শিক্ষক ঐক্য মঞ্চ''-এর সহ-আহ্বায়ক ভগীরথ ঘোষ।

দেখে নিন দেশের অন্যান্য খবর:



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News