রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথা প্রধানমন্ত্রীর

Coronavirus: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ফোনালাপের সময় এই ভাইরাস মোকাবিলায় রাজ্য যে ব্যবস্থা নিয়েছে তা নিয়ে নাকি সন্তোষপ্রকাশও করেন নরেন্দ্র মোদি

রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথা প্রধানমন্ত্রীর

West Bengal: করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় রাজ্যের পদক্ষেপের প্রশংসা করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি

হাইলাইটস

  • মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোন করলেন নরেন্দ্র মোদি
  • রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয় মুখ্যমন্ত্রীর
  • পশ্চিমবঙ্গকে সব রকমের সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন মোদি
কলকাতা:

করোনা ভাইরাস, এই এক রাক্ষুসে রোগ যেন ভয় ধরিয়ে দিয়েছে গোটা বিশ্বের মেরুদণ্ডে। পৃথিবীর অন্য দেশগুলোর মতোই করোনা-আক্রমণে বেহাল ভারত। এই মারণ ভাইরাসের (Coronavirus) আতঙ্কে ভুগছেন পশ্চিমবঙ্গবাসীও। প্রতিদিনই রাজ্যের (West Bengal) করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে পথে নামছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার পশ্চিমবঙ্গ সম্পর্কে খোঁজ খবর নিতে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে (Mamata Banerjee) ফোন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কেন্দ্রের তরফ থেকে সবরকমের সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি দিলেন তিনি (PM Narendra Modi)। পাশাপাশি বঙ্গ-মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করেছেন কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করও। তিনিও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সবরকম সহযোগিতার আশ্বাস দেন। কেন্দ্রীয় সরকার সূত্রে খবর, করোনা মোকাবিলায় এক একটি রাজ্যের দায়িত্ব এক একজন ক্যাবিনেট মন্ত্রীকে দেওয়া হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের  দায়িত্ব বর্তেছে বিদেশমন্ত্রী জয়শঙ্করের কাঁধে। সেই সূত্রেই তৃণমূল সুপ্রিমোকে ফোন করেন তিনি।

সূত্রের খবর, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ফোনালাপের সময় করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় রাজ্য যে ব্যবস্থা নিয়েছে তা নিয়ে নাকি সন্তোষপ্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। অন্যদিকে এই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই গত নভেম্বরে হওয়া ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষতিপূরণে আর্থিক প্যাকেজের টাকা পাঠানোয় প্রধানমন্ত্রীকে পাল্টা ধন্যবাদ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

"করোনাকে ভয় পেও না", সচেতনতায় গান লিখলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

গত বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন দেশের করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলায় ১ লক্ষ ৭০ হাজার কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন। জানা গেছে, এই আর্থিক প্যাকেজের জন্য প্রধানমন্ত্রী মোদিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আরও ১৪৯ জন নতুন COVID-19 আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে। ফলে সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী দেশে এখন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মোট ৮৭৩ জন, আন্দামান নিকোবার দ্বীপপুঞ্জে সন্ধান মিলেছে ৬ জন করোনা আক্রান্তের। দেশ জুডে ওই মারণ রোগের প্রকোপে এখনও পর্যন্ত ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গেও মৃত্যু হয়েছে একজনের। সব মিলিয়ে আতঙ্ক বাড়ছে এই রাজ্য সহ গোটা দেশেই।

লকডাউনে আতঙ্কিত রাজ্যের বাসিন্দারা, রান্নার গ্যাসের বুকিং বাড়ল ৩০%

করোনা সংক্রমণ রুখতে আপাতত আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন চলবে গোটা দেশে। ইতিমধ্যেই পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে এই মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্যে আপদকালীন তহবিল গঠন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সেখানে অর্থ দিয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতানেত্রীরা। তৃণমূলের সাংসদ, বিধায়করা ছাড়াও, নিজেদের স্থানীয় এলাকা উন্নয়ন তহবিল থেকে অর্থ সাহায্য করেছেন সিপিআইএম, কংগ্রেস এবং বিজেপির নেতানেত্রীরাও।

এদিকে করোনা সংক্রমণ রুখতে কতটা প্রয়োজন সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার, কী কী সচেতনতা অবলম্বন করতে পারেন আপনি, এই সবই গানে গানে রাজ্যের মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে গান বেঁধেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। এই মারণ ভাইরাসকে আমরা হারাবোই, এই বিশ্বাসও এনে দেওয়া চেষ্টা করেছেন নিজের লেখা ও সুর দেওয়া গানটির মধ্যে দিয়ে। মুখ্যমন্ত্রীর লেখা ৪৫ সেকেন্ডের এই গানটি গেয়েছেন প্রতিমন্ত্রী তথা গায়ক ইন্দ্রনীল সেন। “স্তব্ধ করো, জব্দ করো। করোনাকে ভয় পেয়ো না। ভিড় থেকে সব্বাই দূরে থাকো। করোনাকে ছুঁতে দেব না”, লেখেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com