একই সঙ্গে সরকার ও সিন্ডিকেট চালাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী, ফের চিঠিতে কটাক্ষ রাজ্যপালের

তিনি লেখেন, এটাই তিক্ত সত্য যে, রাজ্যের সকলেই জানেন রাজ্যের আসল পরিস্থিতি। তিনি মমতাকে অভিযুক্ত করে বলেন, তিনি একই সঙ্গে সরকার ও সিন্ডিকেট চালাচ্ছেন।

একই সঙ্গে সরকার ও সিন্ডিকেট চালাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী, ফের চিঠিতে কটাক্ষ রাজ্যপালের

আবারও মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করে চিঠি লিখলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

আবারও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) চিঠি লিখলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (Jagdeep Dhankhar)। চিঠিতে তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে লেখেন তিনি একটি ‘পুলিশ রাজ্য' চালাচ্ছেন। পাশাপাশি তিনি জানান সাংবিধানিক মানদণ্ডে তাঁর কর্তৃত্ববাদের কোনও স্থান গণতন্ত্রে নেই। চিঠিতে রাজ্যপাল লেখেন, ‘‘পশ্চিমবঙ্গ দুর্ভাগ্যজনক ভাবে একটি পুলিশ রাজ্য হয়ে উঠেছে। যেখানে সোশ্যাল মিডিয়ায় শাসক দলের প্রতি উষ্মা প্রকাশ করলেই পুলিশ এসে তাঁর বাড়ির দরজায় ধাক্কা দিচ্ছে।'' চিঠিতে রাজ্যপাল মুখ্যমন্ত্রীকে অনুরোধ করে জানান, এবার মুখ্যমন্ত্রীর সময় হয়েছে বাস্তব পরিস্থিতিকে স্বীকার করে নিয়ে করোনা অতিমারীর ফলে অসহায় হয়ে পড়া মানুষের পাশে এসে দাঁড়ানোর।

রাজ্যে মদের দোকান খোলায় অনুমতি রাজ্য সরকারের, মাস্ক ছাড়া মদ বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা

তিনি আরও লেখেন, এটাই তিক্ত সত্য যে, রাজ্যের সকলেই জানেন রাজ্যের আসল পরিস্থিতি। তিনি মমতাকে অভিযুক্ত করে বলেন, তিনি একই সঙ্গে সরকার ও সিন্ডিকেট চালাচ্ছেন। তিনি বলেন এ সবই ‘ওপেন সিক্রেট'।

সুরাতে পুলিশ-পরিযায়ী সংঘর্ষ, শ্রমিকদের পাথর ছোড়া থামাতে পুলিশের কাঁদানে গ্যাস

রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপালের মধ্যে বারবার চিঠিতে পরস্পরের প্রতি বিষোদগার করতে দেখা গিয়েছে। কয়েকদিন আগেও রাজ্যপাল অভিযোগ করে জানিয়েছিলেন, করোনার প্রকৃত পরিসংখ্যান সামনে আসতে দিচ্ছেন না মুখ্যমন্ত্রী।

এরপর মুখ্যমন্ত্রীও চিঠি লিখে অভিযোগ করেন গোটা দেশের কোনও মুখ্যমন্ত্রীকে এভাবে রাজ্যের রাজ্যপাল আক্রমণ করেননি।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)