মেট্রো কর্তৃপক্ষকে অবিলম্বে ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করতে বললেন মুখ্যমন্ত্রী

যে সমস্ত এলাকায় ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর কাজ চলছে, সেই সমস্ত এলাকার লোকজনদের আগেও হোটেলে সরানো হয়েছিল।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
মেট্রো কর্তৃপক্ষকে অবিলম্বে ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করতে বললেন মুখ্যমন্ত্রী
কলকাতা: 

মেট্রো রেলের কাজের জন্য বৌবাজারে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলির জন্য অবিলম্বে ৫ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার জন্য মেট্রো রেলের (Metro Railway Authorities) কাছে বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। মেট্রো রেলের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, যে সমস্ত পরিবারগুলির বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষের কাছে তাঁদের বাড়িভাড়া বহন করার জন্যও দাবি জানালেন তিনি। ঘটনার ফলে, যাঁদের দৈনিক আয় ব্যাহত হয়েছে, তাঁদের মাসিক ক্ষতিপূরণেরও ব্যবস্থা করতে বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলির মধ্যে যাঁদের মেয়েদের বিয়ে জানুয়ারিতে হওয়ার কথা ছিল, তাঁদের ৫ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেবে রাজ্য সরকার এবং মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ। রাজ্যের প্রধান প্রশাসক আরও বলেন, ক্ষমতা অনুযায়ী, মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সবরকমভাবে সহযোগিতা করবে রাজ্য সরকার।

২০২২-এর মধ্যে সব মেট্রো রেল প্রকল্প বাস্তবায়িত হবেই: রাজ্য সরকারকে আশ্বাস মেট্রো কর্তৃপক্ষের

এদিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কলকাতা মেট্রোর (Kolkata Metro) জেনারেল ম্যানেজার পিসি শর্মা, কেএমআরসির ম্যানেজিং ডিরেক্টর মানস সরকারসহ অন্যান্য আধিকারিক এবং কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম, পদস্থ পুলিশ কর্তা ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলিক সদস্যরা। যে সমস্ত ভবনগুলির নীচে জল জমার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তার জায়গায় নতুন বিল্ডিং তৈরি করা যায় কিনা, সে ব্যাপারে মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষকে ভাবনাচিন্তা করতে বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই ক্ষতিগ্রস্তদের ৫ লক্ষ টাকাকরে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে, যাতে তাঁরা আবার নতুন করে জীবনধারণ করতে পারেন...যাঁদের মেট্রো রেলের কাজের জন্য ঘর ভেঙে গিয়েছে”। তাঁর কথায়, “তাঁদের পোশাক নেই, বাসনপত্র নেই, দৈনন্দিন জীবনযাপনের কোনও সামগ্রিই নেই। খুব দ্রুত আপনাদের ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করতে হবে”।

হাত আটকে মৃত্যুর ঘটনায় মেট্রো রেলের বিরুদ্ধে এফআইআর

সল্টলেক-হাওড়া মেট্রো রেলের কাজের জন্য, রবিবার বৌজাবাজার এলাকায় বেশ কয়েকটি বাড়ি ভেঙে পড়ে। অন্যান্য জায়গাতেও বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “কে দায়ী, সেটা খোঁজার সময় নয় এটা। আমাদের ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের সাহায্য করতে হবে। আমরা মেট্রে কর্তৃপক্ষকে বাড়ির জন্য বাড়ি, দোকানের জন্য দোকান তৈরি করতে বলেছি, এবং তারা রাজি হয়েছে”।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, মেট্রো কর্তৃপক্ষের উচিত, ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার বাড়িগুলি নিয়ে একটি সমীক্ষা করা এবং ওই বাড়িগুলি পুনরায় তৈরি করার জন্য লিখিত প্রতিশ্রুতি দেওয়া। তিনি বলেন, বৌবাজার সংলগ্ন এলাকায় মেট্রোর তরফে তাদের একটি অফিস বিল্ডিং-এ থাকার ব্যবস্থা করা উচিত। প্রত্যেকটি বাড়ির একজন করে সদস্যের সঙ্গে পুলিশ এবং বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের লোক নিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িতে গিয়ে, গুরুত্বপূর্ণ নথি এবং প্রয়োজনীয় সামগ্রি উদ্ধারের ব্যবস্থা করার জন্য মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেন মুখ্যমন্ত্রী।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের রেশনকার্ড এবং আধারকার্ড পেতে রাজ্য সরকার সাহায্য করবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ঘটনার পরে, তৈরি হওয়া পরিস্থিতি দেখভালের জন্য মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে একটি কোর গ্রুপ তৈরি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।  কোর গ্রুপে রয়েছেন, স্বরাষ্ট্রসচিব, কলকাতা পুরসভার মেয়র, পুলিশ কমিশনার এবং পুলিশের ডেপুটি কমিশনার, এবং বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর এবং পরিবহন দফতরের সচিব এবং ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িগুলির পরিবারের সদস্যরা।

যে সমস্ত এলাকায় ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর কাজ চলছে, সেই সমস্ত এলাকার লোকজনদের আগেও হোটেলে সরানো হয়েছিল।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................